সর্বশেষ আপডেট : ৮ মিনিট ১৫ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

৫% আদিবাসি কোটা পুনর্বহালের দাবিতে বৃহত্তর সিলেট আদিবাসি ছাত্র ঐক্য পরিষদের মানববন্ধন

১ম ও ২য় শ্রেণি সরকারি চাকরিতে ৫% আদিবাসি কোটা পুনর্বহালের দাবিতে বৃহত্তর সিলেট আদিবাসি ছাত্র ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

বৃহত্তর সিলেট আদিবাসি ছাত্র ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক শুভ কুমার সিংহের সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ মণিপুরি ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক কিরণ সিংহের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন মনিপুরী সমাজকল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক কমলবাবু সিংহ, সিলেট মহানগর শাখার সভাপতি নির্মল কুমার সিংহ, সাধারণ সম্পাদক সংগ্রাম সিংহ, বৃহত্তর সিলেট আদিবাসি ছাত্র ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব শোভন চাকমা, অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস- সাস্ট এর সদস্য সৌরভ চাকমা, রূপেল চাকমা, বাংলাদেশ মণিপুরী ছাত্র পরিষদের সহ সভাপতি রুমা সিনহা, মনিপুর মৈতি ছাত্র ছাত্র প্রতিনিধি জয় শর্ম্মা, মাছিমপুর মণিপুরী পাড়া যুব সংঘের অনিক সিংহ প্রমুখ।
একাত্মতা পোষণ করে বক্তব্য রাখেন ইমজা সভাপতি আশরাফুল কবীর, শাবিপ্রবির শিক্ষার্থী ফয়সাল আহমদ শুভ, ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলা নেতা তন্ময় পাল প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলন তীব্র আকার ধারণ করলে গত ১১ জুলই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে কোটা পদ্ধতি বাতিলের ঘোষণা দেন। এরপর গত ২ জুন কোটা পদ্ধতি পর্যালোচনায় সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি তাদের সুপারিশে দেশের বিদ্যমান সকল কোটা বাতিল করে মেধাকে প্রাধান্য দেয়ার প্রস্তাব করে এবং গত ৩ অক্টোবর মন্ত্রীপরিষদ সভায় এটি অনুমোদন লাভ করে। যেখানে সরকারি চাকরিতে ১ম ও ২য় শ্রেণি (৯ম গ্রেড থেকে ১৩ গ্রেড) নিয়োগের ক্ষেত্রে ৫% আদিবাসি কোটাও বাতিল করা হয়। এ প্রসঙ্গে মন্ত্রী পরিষদ সচিব বলেন যে, দেশে এখন আর পিছিয়ে পড়া কোন জনগোষ্ঠী নেই। আমরা এ বক্তব্যের তীব্র বিরোধীতা জানাচ্ছি।

বক্তারা আরো বলেন, দেশে প্রায় ৪৬টি আদিবাসী জনগোষ্ঠী বসবাস করে যাদের জীননযাত্রার মান এখনো অনেক পিছিয়ে। যার কারনে দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর সাথে সমভাবে এগিয়ে যেতে পারছে না। এছাড়াও পাবর্ত্য ও সমতলের আদিবাসীদের ভূমি দখল, সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের ঘটনা নিয়মিত চিত্র। যার ফলে মন্ত্রীপরিষদ সচিব কর্তৃক উপসংহার অনুমোদন প্রসূত এবং সরকারি ও অন্যান্য গ্রহণযোগ্য আর্থ-সামাজিক সমীক্ষা ও আদমশুমারীর তথ্যের পরিপ্রেক্ষিতে ভিত্তিহীন ও বৈষম্যমূলক।

এছাড়াও বৃহত্তর সিলেট আদিবাসি ছাত্র ঐক্য পরিষদ মনে করে আদিবাসী কোটা কোন ভাবেই মেধাকে অবমূল্যায়ন করে না। এিিট আদিবাসীদের অধিকার। আমরা আমাদের অধিকার নিশ্চিতের জন্য একত্রিত হয়েছি। সরকারি চাকরিতে ৫ শতাংশ আদিবাসী কোটা বহাল রাখতে হবে। যা রাষ্ট্র আমাদের প্রদান করতে বাধ্য। তাই আপনাদের সকলের প্রতি আহ্বান রইলো- আমাদের দাবির সাথে একাত্ম হওয়ার ও দেশের সকল নাগরিকদের সমতার অধিকার প্রাপ্তিতে নায্যতা প্রতিষ্ঠার। – বিজ্ঞপ্তি




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: