সর্বশেষ আপডেট : ১২ মিনিট ৪ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কে ৪ কোটি টাকা বরাদ্দ, তবুও নিম্নমানের কাজ

তাহিরপুর প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার তাহিরপুর সদর থেকে বাদাঘাট ইউনিয়ন পর্যন্ত সড়কে বরাদ্ধ প্রায় ৪কোটি টাকা। এই সড়কের বাদাঘাট বাজার থেকে পাতারগাঁও (ইসলামপুর) গ্রাম পর্যন্ত সড়কটিতে নাম মাত্র কাজ করছে দায়িত্বপ্রাপ্ত লোকজন। এছাড়াও প্রশাসনিক সঠিক তদারকি না থাকার কারনে সড়কের গর্তে মাটি না দিয়েই এবং সড়কটিতে উচুঁ নিচু সমান না করেই নিন্মমানের বালু,পাথর ব্যবহার করেই নামমাত্র বিটুমিনের ঢালাই দিয়ে দায়সারা কাজ গোচ্ছে। আর অন্যান্য পয়েন্টে যে কাজ হচ্ছে তা একবারেই নিন্ম মানের। এর পরও সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নেওয়ায় এলাকাবাসীর মাঝে চরম ক্ষোব বিরাজ করছে। যেন দেখার কেউ নেই।

জানাযায়,উপজেলার ব্যবসা বানিজ্যের প্রান কেন্দ্র হিসাবে পরিচিত বাদাঘাট বাজার। উপজেলা সদর থেকে বাদাঘাট বাজারের দূরত্ব প্রায় ১০কিলোমিটার। এই বাজারটি বাজারের উপর দিয়ে বড়ছড়া,বাগলী,চারাগাঁও শুল্কষ্টেশনসহ কয়েকটি পর্যটন এলাকা,হিন্দু সম্প্রদায়ের পর্নর্থীত স্থানসহ পর্যটন এলাকায় যেতে হয় এই সড়কটি দিয়ে বিভিন্ন যানবাহন দিয়ে। এছাড়াও বর্ষা ও শুষ্ক মৌসুমে এই সড়ক সংলগ্ন ২০গ্রামের হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে। কিন্তু শুষ্ক মৌসুমে কাজ শুরু করলেও এখনও কাজের কোন আশানুরুপ ফল দেখা যায় নি। যে কাজ করা হয়েছে তা এখনেই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ফলে যেই লাউ সেই কদু। ফলে এ সড়কে চলাচলে চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছে সর্বস্থরের জনসাধারন। এই সড়কের একাধিক স্থানেই মেরামত করার নামে রাস্তা ভেঙ্গে রাখা হয়েছে। কিন্তু কাজ করছে না। এছাড়াও কাজ না করে এই সড়কের দু-পাশে ইট,বালু ফেলে বিভিন্ন যানবাহন ও জনসাধারনের চলাচলের বাধা সৃষ্টি করেছে অভিযোগ উঠেছে সর্বত্র।

তাহিরপুর উপজেলা এলজিইডি কার্য্যালয় ও একাধিক স্থানীয় সূত্রে জানাযায়,জিওবি প্রকল্পের মাধ্যমে এই সড়কে তিনটি ভাগে মেরামতের কাজ শুরু হয়েছে শুষ্কমৌসুমে। দায়িত্ব পেয়েছেন দু-জন কনট্রাক্টার। তাহিরপুর থানার সম্মুখ থেকে সূর্যেরগাঁও ভাঙ্গা ও টাকাটুকিয়া পর্যন্ত,টাকাটুকিয়ার ব্রীজ সংযোগ ও এর থেকে পাতারগাঁও পর্যন্ত এবং পাতারগাঁও (ইসলামপুর) থেকে বাদাঘাট বাজার পর্যন্ত। এতে বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে ৩কোটি ১৪লাখ টাকার অধিক। এর মধ্যে প্রায় কোটি টাকা বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে বাদাঘাট-পাতারগাঁও সড়কের জন্য। কিন্তু এই সড়কের বাদাঘাট-ইসলামপুর গ্রাম পর্যন্ত যে কাজ হচ্ছে তা এক বারেই নিন্ম মানের। এছাড়াও অন্যান্য কাজ গুলো নাম মাত্র কাজ করছে আর অনেক স্থানের কাজ এখন এক বারেই বন্ধ রেখেছে দায়িত্বপ্রাপ্তরা।

এই সড়কের পাশের স্থানীয় বাসিন্দা ও এলাকাবাসী জানান,এই সড়কের কাজ আরো অনেক আগেই শেষ হবার কথা কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। নিন্ম মানের কাজ হচ্ছে আর আমাদের দূর্ভোগের মধ্যে রেখেছে। একদিন কাজ করলে দশ দিন পার হয়ে যায় কোন খবর নাই। আর যে কাজ হচ্ছে তা একবারেই নিন্ম মানের।
এই সড়কের দায়িত্বে থাকা শুয়েব নামে একজন বলেন,নিয়ম অনুযায়ী কাজ করা হচ্ছে। এত নিন্ম মানের কাজ হচ্ছে কেন জানতে চাইলে বলেন,এই ভাবেই কাজ করার কতা আর নির্দেশনা আছে তাই করছি।

এবিষয়ে তাহিরপুর উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী আলমগীর হোসেন জানান,কনট্রাক্টারদের বার বার তাগিত দিচ্ছি তারপরও তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কের তিনটি অংশের কাজ করতে তারা দেরী করছে। বিটুমিনের কাজ বৃষ্টির কারনে করতে সমস্যা হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী বিটুমিনের কাজ হচ্ছে। কোন অনিয়ম হলে থাকলে খোজঁ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূনেন্দ্র দেব জানান,এই সড়কের অবস্থা খুবেই খারাপ আমি নিজেও দেখেছি। আমি এই সড়কের দায়িত্ব প্রাপ্তদের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি।
তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল বলেন,তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কটি এই উপজেলার জন্য খুবেই গুরুত্বপূর্ন। এই সড়কটিতে জনদূর্ভোগ চরম আকার ধারন করেছে। জনদূর্ভোগ কমাতে মেরামতের কাজ ভাল ভাবে দ্রুত শেষ করার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: