সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে তেল-গ্যাস উৎপাদন করতে চান বিজ্ঞানী দম্পতি

নিউজ ডেস্ক:: প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে জ্বালানি তৈল উৎপাদনে প্লান্ট স্থাপন করে বাংলাদেশের বর্জ্য ব্যবস্থাপনাকে পরিবেশ বান্ধব করতে চান যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশি বিজ্ঞানী দম্পতি ড. মইন উদ্দিন সরকার ও ড. আনজুমান সেলী। এ জন্য বাংলাদেশ সরকারের সার্বিক সহায়তা চেয়েছেন তারা।

রোববার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) আয়োজিত এ সংক্রান্ত এক সংবাদ সম্মেলন এ সহায়তা দাবি করেন এ দম্পতি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তেব্যে ড. মইন উদ্দিন সরকার বলেন, বর্তমান বিশ্বে পরিবেশের জন্য প্লস্টিক বর্জ্যকে চরম হুমকি হিসেবে দাঁড়িয়েছে। এই বর্জ্য থেকে জ্বালানি তেল, এলপিজি গ্যাস ও জেট ফুইল তৈরি করতে তিনি মার্কিন যুক্ত রাষ্ট্রে একটি প্লান স্থাপন করেছেন। এর মাধ্যমে প্রতিটন প্লাস্টিক ও পলিথিন বর্জ্য থেকে ১৩০০ লিটার জ্বালানি তেল, ১০ সিলিন্ডার এলপিজি গ্যাস ও ২৩ লিটার জেট ফুইল তৈরি হচ্ছে।

তিনি বলেন, ওয়াস্ট টেকনোলজিস এলএলসি কোম্পানি এই প্লান্টের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে বর্জ্য বস্থাপনার কাজ করছে। বর্তমানে বর্জ্যকে পরিবেশবান্ধব করে তুলতে বাংলাদেশের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিয়ে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করে তিনি সরকারের সার্বিক সহায়তা কামনা করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, প্লাস্টিক পচনশীল না হওয়ায় এর বর্জ্য মানুষ ও সমাজের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। ১৯৫০ থেকে ২০১৮ সাল পর্যান্ত সারা বিশ্বে প্রায় ৬ দশমিক ৩ বিলিয়ন টন প্লাস্টিক উৎপাদন হয়েছে। যার মধ্যে মাত্র ৯ শতাংশ পুনঃপ্রক্রিয়াজাতকরণ সম্ভব। এর বাইরে সবটাই বর্জ্য হিসেবে পড়ে থাকে। এতে করে প্রায় ৭০০ প্রজাতির সামুদ্রিক প্রাণী হুমকির মুখে পড়েছে। এ সমস্যা সামাধনে চিন্তিত পরিবেশ বিজ্ঞানীরা।

ড. মইন উদ্দিন সরকার বলেন, বাংলাদেশে একটি প্লান্ট স্থাপন করতে ১১টি বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। তারাও এটিকে ইতিবাচক বলে মন্তব্য করে সার্বিক সহায়তা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার মাধ্যমে এ আবিষ্কারকে সারাদেশে ছড়িয়ে দেয়া সম্ভব হবে। যুক্তরাষ্ট্রে পাশাপাশি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই প্লান্ট স্থাপনের আহ্বান জানিয়েছে তিনি।

তিনি বলেন, আমি বাংলাদেশের সন্তান হিসেবে আমার দায়বদ্ধতা রয়েছে। এ কারণে আমার নিজের দেশে একটি প্লান্ট স্থাপন করে সেটিকে রোল মডেল হিসেবে দেখিয়ে এশিয়া মহাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এ প্লান্ট স্থাপন করতে চাই।

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিজ্ঞানী মইন উদ্দিন সরকার কুমিল্লার সন্তান। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৯০ সালে এমএসসি পাস করার পর তিনি যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমান। এরপর লন্ডনের ম্যানচেস্টার ইন্সটিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকলোলজি থেকে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। বিগত ২৮ বছর ধরে বিভিন্ন দেশে গবেষণার কাজে নিয়োজিত ছিলেন। ২০০৫ সাল থেকে বিজ্ঞানী দম্পতি প্লাস্টিক বর্জ্য নিয়ে গবেষণা শুরু করেন। ২০১০ সালে প্লাস্টিক তেল উৎপাদনের কৌশল উদ্ভাবন ও পেটেন্ট করেন।

বর্তমানে ওয়াস্ট টেকনোলজিস কোম্পানির মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে প্লাস্টিক বর্জ থেকে জ্বালানি তেল উৎপাদন কার্যক্রম পরিচালনা করছেন এই বিজ্ঞানী দম্পতি।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: