সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সবচেয়ে বেশি স্বর্ণের গহনা ব্যবহার হয় যেসব দেশে

নিউজ ডেস্ক:: স্বর্ণের গহনা যেমন প্রয়োজনীয় তেমনি কোনো কোনো ক্ষেত্রে এক প্রকার নেশাও। উপহারেও স্বর্ণে গহনা অনেকের পছন্দ। কোথাও কোথাও স্বর্ণের গহনা কেনা-বেচা নিয়ে উৎসবও হয়ে থাকে। তবে জানেন কি, পৃথিবীর মধ্যে কোন কোন দেশে সবচেয়ে বেশি সোনার গয়না কেনে? চলুন জেনে নেয়া যাক-

চীন
স্বর্ণের গহনা কেনা-বেচার শীর্ষে রয়েছে চীন। মোট ৬১২.৫ মেট্রিক টন সোনার গয়না রয়েছে এ দেশের নাগরিকদের কাছে। মার্কিন ম্যানেজমেন্ট সংস্থা ম্যাককিনসে অ্যান্ড কোম্পানি তথ্য মতে, ২০২৫ সালে গ্লোবাল লাক্সারি মার্কেটের প্রায় ৪৪ শতাংশই চীনের দখলে থাকবে।

ভারত
বাংলাদেশের পার্শ্ববর্তী এ দেশেটিতে ৪৬৩.২ মেট্রিক টন স্বর্ণের গহনা রয়েছে। দক্ষিণ ভারতের বিভিন্ন মন্দিরে দেবতাকে স্বর্ণ দান করা হয়। দীপাবলি উৎসবে ধনতেরাসেও রয়েছে সোনার গয়না কেনার চল। বিবাহের অনুষ্ঠানেও সোনার গয়না পরার রীতি রয়েছে ভারতে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মার্কিন রাষ্ট্রের নাগরিকদের মধ্যেও রয়েছে স্বর্ণের গহনার বিপুল চাহিদা। মোট ১৩৮.২ মেট্রিক টন স্বর্ণের গহনা রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের কাছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত
শুধুমাত্র দুবাইয়ে ৩০০টি স্বর্ণের গহনার দোকান রয়েছে। ৪৬.২ মেট্রিক টন স্বর্ণের গহনা রয়েছে আরব আমিরাতের নাগরিকদের কাছে। ইতালির ট্রেড কমিশনের এক সমীক্ষায় বলা হয়েছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতে স্বর্ণের চাহিদা বেড়েই চলেছে।

ইরান
ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিলের মতে, ইরানে স্বর্ণ কেনার চাহিদা শেষ চার বছরে ২৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। মোট ৩৯.৭ মেট্রিক টন গহনা রয়েছে ইরানের নাগরিকদের কাছে।

তুরস্ক
৩৯.৭ মেট্রিক টন স্বর্ণ রয়েছে তুরস্কের নাগরিকদের কাছে। ১৯৯৫ সালে এ দেশে মেটাল মার্কেট তৈরি হওয়ার পর চাহিদা তৈরি হয় নাগরিকদের মধ্যে। বেশিরভাগ স্বর্ণই গচ্ছিত আছে দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকে।

সৌদি আরব
৩৮.১ মেট্রিক টন স্বর্ণের গহনা রয়েছে সৌদির নাগরিকদের কাছে। স্বর্ণে বাটের তুলনায় তাদের কাছে গহনাই বেশি পছন্দ।

ইন্দোনেশিয়া
পৃথিবীর অন্যতম বড় স্বর্ণের খনি রয়েছে ইন্দোনেশিয়ায়। দেশটির নাগরিকদের কাছে ৩৪.২ মেট্রিক টন স্বর্ণ রয়েছে।

রাশিয়া
গত কয়েক বছরে রুশ সেন্ট্রাল ব্যাংকে হলুদ ধাতুটির তৈরি গয়না কম জমা পড়েনি। ২০১৬ সালেই ৩০.২ মেট্রিক টন স্বর্ণ ছিল রাশিয়ার নাগরিকদের কাছে।

মিশর
১৩শ’ খ্রিস্টপূর্বাব্দের প্যাপিরাসের তৈরি মানচিত্রেও রয়েছে স্বর্ণের গহনা মজুত থাকার কথা। মিশরের নাগরিকদের কাছে সব মিলিয়ে ২৭.৫ মেট্রিক টন স্বর্ণ রয়েছে।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: