সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ২৮ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

তাহিরপুর সীমান্তে বিজিবি সোর্সের বিরুদ্ধে সালিশ, ২টন কয়লা আটক

তাহিরপুর প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বালিয়াঘাট,টেকেরঘাট ও চাঁনপুর সীমান্ত এলাকা দিয়ে প্রতিদিন ওপেন পাচাঁর করা হচ্ছে শতশত মে.টন কয়লা,চুনাপাথর ও মাদকদ্রব্য। সরকারের লক্ষলক্ষ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ভারত থেকে পাচাঁরকৃত অবৈধ মালামাল বৈধ করার জন্য বিজিবি,পুলিশ,সাংবাদিক ও স্থানীয় জনপ্রতিনিদের নাম ভাংগিয়ে চোরাচালানীরা বিজিবির সোর্স পরিচয় দিয়ে নামে-বেনামে করছে চাঁদাবাজি।

এনিয়ে মঙ্গলবার (২অক্টোবর) এলাকাবাসী গ্রাম্য সালিশ করেছে এবং ২ মে.টন চোরাই কয়লা আটক করেছে বিজিবি। খোজ নিয়ে জানা যায়,প্রতিদিনের মতো সোমবার রাত ১১টায় বালিয়াঘাট বিজিবি ক্যাম্পের লালঘাট এলাকা দিয়ে ওই ক্যাম্পের নায়েক সাব্বির চোরাচালানী কালাম মিয়া,জানু মিয়া ও বাবুল মিয়া,আবুল মিয়া,হাসিম মিয়া,তানজু মিয়া,হানিফ মিয়া,কাসেম মিয়া,রবি মিয়া, মানিক মিয়া গংকে নিয়ে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ভারত থেকে ৩০মে.টন চোরাই কয়লা ও বিপুল পরিমান ইয়াবা ও মদ পাঁচার করে। এই খরব পেয়ে পার্শ্ববর্তী টেকেরঘাট ক্যাম্পের বিজিবি অভিযান চালিয়ে চোরাচালানী তানজু মিয়া বাড়ি থেকে ২ মে.টন কয়লা আটক করলেও কাউকে গ্রেফতার করেনি।

পরবর্তীতে বাকি ২৮মে.টন কয়লাসহ ইয়াবা ও মদের চালান মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৪টায় চোরাচালানী জানু মিয়া তার ইঞ্জিনের নৌকাতে বোঝাই করে বালিয়াঘাট বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন দুধেরআউটা ও ড্রাম্পের বাজার নিয়ে বালিয়াঘাট গ্রামের এক প্রভাবশালী চোরাই কয়লা ব্যবসায়ীর কাছে কয়লা ও দুধের আউটা গ্রামের মাদক ব্যবসায়ী জিয়াউর রহমান জিয়া ও আংগুরী বেগমের কাছে নিয়ে ইয়াবা ও মদ বিক্রি করা হয়।

এঘটনার পর দুপুর ২টায় লালঘাট গ্রামে এলাকাবাসী বিজিবির সোর্স পরিচয়ধারী ১০টি চোরাচালান ও চাঁদাবাজি মামলার জেলখাটা আসামী কালাম মিয়ার বিরুদ্ধে সালিশ বসায়।

এব্যাপারে এলাকাবাসী জানায়,চোরাচালানী কালাম মিয়া নায়েক সাব্বির ও এএসআই ইমামের সহযোগীতায় ভারত থেকে পাচাঁরকৃত ১বস্তা কয়লা থেকে বালিয়াঘাট বিজিবি ক্যাম্পের কমান্ডার দেলোয়ার হোসেনের নামে ৫০টাকা,নায়েক সাব্বিরের নামে ১০টাকা, টেকেরঘাট পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই ইমামের নামে ৩০টাকা ও সাংবাদিকদের নাম ভাংগিয়ে ৩০টাকা নেওয়াসহ সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হোসেন খাঁ ও ইউপি মেম্মার শফিকুল ইসলামের নাম ভাংগিয়ে ৩০টাকা চাঁদা নিয়েছে।

বালিয়াঘাট বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার দেলোয়ার হোসেন বলেন, কয়লা আমরা আটক করেছি, আর ক্যাম্পে এসে দেখা করেন, আমি কালামকে বলে দিচ্ছি আপনার সাথে যোগাযোগ করতে। সুনামগঞ্জ ২৮ব্যাটালিয়নের বিজিবি অধিনায়ক আবুল আহসান বলেন,সীমান্ত চোরাচালান বন্ধের জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: