সর্বশেষ আপডেট : ১৭ মিনিট ৪২ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

পেটে কাপড় রেখেই অপারেশন শেষ করলেন ডাক্তার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: পেটের ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন রোগী। আল্ট্রাসনোগ্রাফি করার পর ডাক্তার বললেন, অপারেশন করতে হবে। ডাক্তারের কথামতো অপারেশন করানো হয়। তবে অপারেশন শেষে রোগী ফের পেটে ব্যথা অনুভব করেন। অসহ্য ব্যথা নিয়ে তিনি আবার হাসপাতালে ভর্তি হন। দ্বিতীয় দফা আল্ট্রাসনোগ্রাফি করে দেখা যায়, রোগীর পেটের ভেতর এক টুকরো কাপড় রয়ে গেছে। ভারতের উত্তর প্রদেশের এটাওয়া জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

ভুক্তভোগী রোগীর স্বামীর উদ্ধৃতি দিয়ে ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই জানায়, জেলা সরকারি হাসপাতালে তার স্ত্রীকে ভর্তি করানোর পর ডাক্তার পেটের ভেতর এক টুকরো কাপড় রেখেই অপারেশন সম্পন্ন করেন। ডাক্তারকে বিষয়টি জানানো হলে তিনি দ্বিতীয় দফা অপারেশন না করে তাকে অন্য একটি বেসরকারি হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। সেখানে দ্বিতীয় দফা অপারেশন করে কাপড় বের করা করা হয়।

ভুক্তভোগীর ছেলে জানান, আল্ট্রাসনোগ্রাফি করে পেটের ভেতর কাপড় রয়ে গেছে জানার পরও ওই ডাক্তার দ্বিতীয় দফা অপারেশনে অস্বীকৃতি জানান। এজন্য তিনি অতিরিক্ত টাকা চেয়ে বসেন। পরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে পরবর্তী অপারেশন করানো হয়।

এএনআই বলছে, দ্বিতীয়বার আল্ট্রাসনোগ্রাফি করে ওই রোগীর পেটে কাপড়ের টুকরো পাওয়ার পাশাপাশি তার ক্যান্সার ধরা পড়েছে। বর্তমানে তিনি লক্ষ্ণৌর একটি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ দিলে বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন এটাওয়া জেলা হাসপাতালের চিফ মেডিকেল সুপারিনটেনডেন্ট ডা. এস এস ভাদোরিয়া।

এ ঘটনায় পর্যাপ্ত চিকিৎসা সুবিধা পেতে সরকারের কাছে আবেদন করেছে ভুক্তভোগীর পরিবার। ইতোমধ্যে পরপর দুইবার অপারেশনের খরচ বহন করে ওই পরিবার এখন নিঃস্ব।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: