সর্বশেষ আপডেট : ১৮ মিনিট ৫০ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বরেণ্য সাংবাদিক গোলাম সারওয়ার আর নেই

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
বরেণ্য সাংবাদিক গোলাম সারওয়ার আর নেই। ‘ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন’। তিনি সোমবার (১৩ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ২৫ মিনিটে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। খ্যাতিমান সাংবাদিক গোলাম সারওয়ার সর্বশেষ দৈনিক সমকালের সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। সমকালের পক্ষ থেকে তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়েছে।

এর আগে, সোমবার বিকেল ৫টায় গোলাম সারওয়ারের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।

১৯৬৩ সালে দৈনিক পয়গমে যোগ দেওয়ার মাধ্যমে সাংবাদিকতা শুরু করেন গোলাম সারওয়ার। এরপর একে একে দৈনিক সংবাদ, দৈনিক ইত্তেফাক, দৈনিক যুগান্তর ও দৈনিক সমকালের মতো দেশের শীর্ষস্থানীয় সব সংবাদপত্রে কাজ করেছেন তিনি। তিনি দৈনিক সমকাল ছাড়াও দৈনিক যুগান্তরের সম্পাদক হিসেবে কাজ করেছেন। তিনি ছিলেন যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক। দৈনিক ইত্তেফাকে তিনি বার্তা সম্পাদক হিসেবে কাজ করেছেন। সাংবাদিকতায় অবদানের জন্য ২০১৪ সালে বাংলাদেশ সরকার তাকে সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান একুশে পদকে ভূষিত করে।

গোলাম সারওয়ার জন্মগ্রহণ করেন ১৯৪৩ সালের ১ এপ্রিল, বরিশালের বানারীপাড়ায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় সম্মানসহ স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন তিনি। তার লেখা বইয়ের মধ্যে সম্পাদকের জবানবন্দি, অমিয় গরল, আমার যত কথা, স্বপ্ন বেঁচে থাক উল্লেখযোগ্য।

স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়ে এবং অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন গোলাম সারওয়ার।

উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ৩ আগস্ট মধ্যরাতে সমকাল সম্পাদককে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। পরদিন সকালে তাকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসার পর তার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতিও হয়েছিল। নিউমোনিয়া সংক্রমণ হ্রাসের পাশাপাশি ফুসফুসে জমে থাকা পানিও কমে গিয়েছিল। হার্টও স্বাভাবিকভাবে কাজ করছিল। কিন্তু গত রোববার হঠাৎ করে তার রক্তচাপ কমে যায়। কিডনিও স্বাভাবিকভাবে কাজ করছিল না। এ অবস্থায় সোমবার বিকেলে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।

এর আগে, গত ২৯ জুলাই মধ্যরাতে দেশবরেণ্য সাংবাদিক, সম্পাদক পরিষদের সভাপতি গোলাম সারওয়ার রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি হন। ওই সময় ল্যাবএইচ হাসপাতালের চিকিৎসক সোহরাব হোসেন জানিয়েছিলেন, ১৯৯৪ সালে তার স্পাইন কোর্ডে টিউমার ধরা পড়েছিল। এর সঙ্গে পরে যোগ হয় ডায়াবেটিস। যে কারণে তার শারীরিক অবস্থা কিছুটা জটিল হয়েছে।


নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: