সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ১ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

দম্পতিকে মূত্র পান!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: পরিবারের সদস্যদের অমতে বিয়ে করায় এক তরুণ দম্পতিকে উলঙ্গ করে মারপিটের পর মূত্র পানে বাধ্য করা হয়েছে। এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের আলিরাজপুরের ভোপালে।

মারপিটকারী এক অভিযুক্ত এ ঘটনার ভিডিও ধারণ করে। এতে দেখা যায়, সদ্যবিবাহিত ছেলেটিকে একটি খাম্বার সঙ্গে বাঁধা হয়েছে এবং তার পাশেই বসে আছেন অর্ধ-নগ্ন স্ত্রী। মারপিটের পর ওই দম্পতিকে যখন ছেড়ে দেয়া হয় তখন এক অভিযুক্ত বলেন, পরিবারের সম্মান ক্ষুণ্ন করায় তাদের এই শাস্তি দেয়া হয়েছে।

মারধরের শিকার ছেলের বয়স ২৩, মেয়ের ২১ বছর। তারা দুজনই আলিরাজপুরের একই গ্রামে বসবাস করেন। উভয়ই তাদের পিতামাতার অমতে গত মে মাসে বিয়ে করেন। বিয়ের পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার জন্য ওই ছেলে মেয়ের পরিবারকে ৭০ হাজার রুপি ও দুটি ছাগল দেন।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা বিকাশ কাপিস বলেছেন, গত সপ্তাহে ছেলের এক চাচার বাসা থেকে নিজ গ্রামে ফিরে আসেন তারা। কিন্তু গ্রাম পঞ্চায়েতদের এক সিদ্ধান্তে নতুন এই দম্পতির ওপর হামলা চালানো হয় গত শনিবার। গ্রামে ফিরে আসার খবর পেয়ে মেয়ের বাবা-মা ২৫ জুলাই বন্দুকের নলের মুখে তাদের অপহরণ করে।

পুলিশের কাছে দায়ের করা অভিযোগে ওই দম্পতি বলেছেন, ওইদিন বিকেল চারটার দিকে মেয়ের কিছু আত্মীয়-স্বজন বন্দুকের নলের মুখে তাদের বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়। তারা ছেলে এবং মেয়েকে মারপিটের পর মেয়ের চুল কেটে দেয়।

বিকাশ কাপিস বলেন, ওই তরুণী থানায় ফিরে তার বাবা, দুই চাচা ও অন্য তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। আমরা ইতোমধ্যে দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছি।

সূত্র : এনডিটিভি




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: