সর্বশেষ আপডেট : ২৫ মিনিট ৪৪ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২২ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এগিয়ে থেকেও প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দিকে তাকিয়ে আরিফ

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ১৩২টি কেন্দ্রে এগিয়ে থেকেও প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী।

স্থগিত থাকা দুই কেন্দ্রের পুনরায় ভোটগ্রহণ হবে কি-না সে বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিদ্ধান্ত দেবেন বলে জানিয়েছেন সিলেট সিটি নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামান।

সিলেট আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ঘোষিত ১৩২টি কেন্দ্রের মধ্যে আরিফুল হক চৌধুরী পেয়েছেন ৯০ হাজার ৪৯৬ ভোট এবং নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান পেয়েছেন ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট। সেই হিসাবে আরিফুল হক চৌধুরী সিসিক নির্বাচনে ১৩২টি কেন্দ্রে ৪ হাজার ৬২৬ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন।

এদিকে, স্থগিত হওয়া দুটি কেন্দ্রের মোট ভোটার ৪ হাজার ৭৮৭। নির্বাচনী এই হিসাবে বিজয় নিশ্চিত করার জন্য আরিফুলের ১৬১টি ভোট প্রয়োজন।

সিসিক নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আলীমুজ্জামান জানিয়েছেন, যেহেতু আরিফুল হক চৌধুরী ৪ হাজার ৬২৬টি ভোটে এগিয়ে আছেন এবং এর মধ্যে ১৬১টি ভোট পেলেই তিনি বিজয়ী হবেন; তাই স্থগিত দুই কেন্দ্রের ভোট হবে কি-না এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেবেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

আলীমুজ্জামান বলেন, স্থগিত দুই কেন্দ্রের ভোটের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) প্রধান নির্বাচন কমিশন বরাবর চিঠি পাঠানো হয়েছে। তিনিই ঠিক করবেন নতুন করে ভোট হবে নাকি আরিফুল হক চৌধুরীকে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে।

উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার ভোট শেষে এখন নগরবাসীর চোখ প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দিকে। স্থগিত ভোটকেন্দ্রে আবার ভোট হবে কি-না তা নির্ভর করছে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের ওপর।

সোমবার (৩০ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে ৪টা পর্যন্ত সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট সম্পন্ন হয়েছে বলে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান দাবি করেছিলেন।

কিন্তু ভোটের ফলাফল প্রকাশের একপর্যায়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর ভোটের ফলাফল ঘোষণা স্থগিতের আবেদন করেন।

আবেদনে তিনি বলেন, স্থানীয়ভাবে আওয়ামী লীগের এজেন্টদের মাধ্যমে প্রাপ্ত ফলাফলের সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত ফলাফলে ১০-১৫ হাজার ভোটের ব্যবধান রয়েছে। তাই ফলাফল ঘোষণা বন্ধ রেখে পুনরায় ভোট গণনার অাবেদন করা হয়।

অপরদিকে, দিনভর বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী জাল ভোট এবং কেন্দ্র দখলের অভিযোগ করেছিলেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। যদিও ভোটে এগিয়ে থাকার পর এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি তিনি।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: