সর্বশেষ আপডেট : ৩৩ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিসিক নির্বাচন : ভোটের দিনে নির্বাচন কমিশনের রূপরেখা

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণের প্রস্তুতি শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন। ভোট গ্রহণের জন্য ১৩৪ জন প্রিজাইডিং, ৯২৬ জন সহকারী প্রিজাইডিং এবং ১৮৫২ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবেন।
ইতোমধ্যে ২৯১২ জন ভোটগ্রহণকারী কর্মকর্তার তালিকা চূড়ান্ত করেছে রিটানিং অফিসার কার্যালয়। নির্বাচনের দিন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নিরাপত্তা ছকও চূড়ান্ত করা হয়েছে।

আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সিকি নির্বাচনে দিন ভোট কেন্দ্রের নিরাপত্তায় ২৯৪৮ জন পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্যের পাশাপাশি থাকবে র‍্যাব ও বিজিবির সমন্বয়ে স্ট্রাইকিং ফোর্স।

আগামী ৩০ জুলাই সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে সিসিক নির্বাচনের তিনটি পদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। আর এ নির্বাচনে ১৩৪ কেন্দ্রে মোট ২৯১২ জন কর্মকর্তা ভোটগ্রহণের দায়িত্ব পালন করবেন। এর মধ্যে প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ১ জন করে প্রিজাইডিং অফিসার, ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ৯২৬টি বুথে ১ জন করে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ১৮৫২ জন পোলিং অফিসার ভোটগ্রহণের দায়িত্ব পালন করবেন।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১৩৪টি ভোট কেন্দ্রের নিরাপত্তায় পুলিশ ও আনসার বাহিনীর ২৯৪৮ জন সদস্য দায়িত্বে থাকবেন। প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ২২ জন করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবেন। এর মধ্যে ৭ জন পুলিশ, ১২ জন আনসার সদস্য, আগ্নেয়াস্ত্রসহ আনসার বাহিনীর ১ জন প্লাটুন কমান্ডার (পিসি) ও ১ জন এপিসি এবং ১ জন ব্যাটলিয়ান আনসার সদস্য থাকবেন। প্রতি কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করা ৭ সদস্যের পুলিশ টিমে ১ জন সাব ইন্সপেক্টর (এসআই), ১ জন এএসআই ও ৫ জন পুলিশ কনস্টেবল থাকবে। ১২ আনসার সদস্যের মধ্যে ৭ জন পুরুষ ও ৫ জন নারী সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবেন।

এছাড়া নির্বাচনের দিন আইনশৃঙ্খলা রক্ষার কাজে সিটি করপোরেশন এলাকায় নির্বাচনের দায়িত্ব পালন করবেন র‍্যাব ও বিজিবি সদস্যরা। নির্বাচনী এলাকার প্রতি দুটি সাধারণ ওয়ার্ডে ১ প্লাটুন করে মোট ১৪ প্লাটুন বিজিবি। প্রতি ভোট কেন্দ্রে ১টি করে মোবাইল ফোর্স এবং প্রতিটি ওয়ার্ডে থাকবে র‍্যাবের ১টি করে টিম।
এছাড়াও ৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১টি করে স্ট্রাইকিং ফোর্স নির্বাচনের দিন নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবে।
নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনী অপরাধসমূহ আমলে নিয়ে তা সংক্ষিপ্ত বিচারের জন্য ভোটগ্রহণের আগের দিন ২৯ জুলাই থেকে ১ আগস্ট পর্যন্ত সিলেট সিটি করপোরেশনের সংরক্ষিত ৯টি ওয়ার্ডে ৯ জন জুডিশিয়ার ম্যাজিস্ট্রে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

এর আগে গত ১০ জুলাই থেকে ১ আগস্ট পর্যন্ত সিসিক নির্বাচনী এলাকায় প্রার্থীদের আচরণবিধি প্রতিপালন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষার কাজে সংরক্ষিত ৯টি ওয়ার্ডে ৯ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেয় নির্বাচন কমিশন।
রিটার্নিং অফিসার কার্যালয়ের তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা প্রলয় কুমার সাহা বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য সব ধরণের নিরাপত্তা প্রক্রিয়া নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সম্পন্ন করা হয়েছে। নগরের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ভোটের পরের দু’দিন পর্যন্ত জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ নিয়মিত কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

এছাড়া নির্বাচনী এলাকার সার্বক্ষণিক নিরাপত্তায় বিজিবি, পুলিশ, র‍্যাব ও আনসার বাহিনীর সদসদের সমন্বয়ে নিরাপত্তা বাহিনী কাজ করবে।

প্রসঙ্গত ২০০২ সালে প্রতিষ্ঠা পাবার পর সিলেট সিটি করপোরেশন এবারই প্রথম দলীয় প্রতীকে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত এ সিটি করপোরেশনে মোট ভোটার ৩ লাখ ২১ হাজার ৭৩২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৭১ হাজার ৪৪৪ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ৫০ হাজার ২৮৮ জন। এই নির্বাচনে মেয়র পদে ৭ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১২৬ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৬২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।


এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: