সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ২৯ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মুক্তিযোদ্ধা কোটা রেখেই সংস্কার: প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক:: মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল রেখে দরকার হলে অন্যান্য কোটা সংস্কার করা যেতে পারে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।সোমবার (২৩ জুলাই) গণভবনে দলের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন। বৈঠকে উপস্থিত দলটির একাধিক নেতা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সূত্র জানায়, বৈঠকে সরকারি চাকুরির কোটা বাতিল বা সংস্কার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। এক্ষেত্রে শেখ হাসিনা কোটা সংরক্ষণ নিয়ে উচ্চ আদালতের রায় ও সরকারের গঠিত কমিটির প্রসঙ্গ তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আমরা কোটা সংস্কার চাই। এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে কমিটি কাজ করছে। কমিটির রিপোর্ট পাওয়ার পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে, কোটা বিষয়ে আদালতের নির্দেশনা রয়েছে। সেটি আমাদের বিবেচনায় নিতে হবে। মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাদ দেওয়া যাবে না। এ কোটা বহাল রেখে দরকার হলে অন্য সব কোটা বাতিল করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী কোটাবিরোধী আন্দোলন এবং এ বিষয়ে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের বিভিন্ন শ্রেণি-গোষ্ঠীর ভূমিকার কঠোর সমালোচনা করেন বলে বৈঠকে অংশ নেওয়া একাধিক নেতা নিশ্চিত করেছেন। তারা জানান, প্রধানমন্ত্রী কোটা বাতিল আন্দোলনের সময় স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে বিশ্বাসী নারী সংগঠন, বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নীরব ভূমিকায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোনয়ন প্রক্রিয়া আগামী সেপেম্বর মাসে শুরু হবে বলে শেখ হাসিনা বৈঠকে জানান। তিনি বলেন, শোকের মাসের পর সেপ্টেম্বরের শুরুতেই আমি বিভাগীয় পর্য়ায়ের নেতাদের নিয়ে বৈঠকে বসবো। সেখানে মনোনয়নের কাজ এগিয়ে নেওয়া হবে। এ সময় তিনি সেপ্টেম্বরেই তার একাধিক বিদেশ সফর রয়েছে উল্লেখ করে বিষয়টি বিবেচনায় রেখে মনোনয়ন সংক্রান্ত বৈঠকের দিনক্ষণ নির্ধারণের কথা বলেন।

জানা গেছে, বৈঠকে কয়েকটি জেলার কোন্দলের বিষয়টি উঠে আসে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বিভেদ মিটিয়ে নির্বাচনের আগে দলকে ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী করার নির্দেশ দেন।বৈঠকে ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী ব্যস্ততার কারণে সময় দিতে পারছেন না বলে কিছু বিলম্ব হচ্ছে বলে জানান শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, যারা আবেদন করেছে তাদের বিষয়টি যাচাই-বাছাই চলছে। নতুন কমিটি নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশনে যারা আছে তাদের সঙ্গে আমি দ্রুত বসবো।

বৈঠকে অংশ নেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, নির্বাহী কমিটির সদস্য আনোয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, নির্বাহী কমিটির সদস্য মির্জা আজম প্রমুখ।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: