সর্বশেষ আপডেট : ২৫ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আওয়ামী লীগ আর সেই আওয়ামী লীগ নেই : ফখরুল

নিউজ ডেস্ক:: সরকার বেগম জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিতে চায় উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বেগম জিয়া হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন; সেটিকে বিলম্বিত করার পরও তিনি সুপ্রিম কোর্ট থেকে জামিন পান। কিন্তু সেই জামিনেও তাকে মুক্ত হতে দিচ্ছে না সরকার।

সোমবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির আয়োজনে আশ্রমপাড়া হাওলাদার কমিউনিটি সেন্টারে রুহিনা থানার বর্ধিত সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, এই সরকার শুধুমাত্র নিজের ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার জন্য বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করে রেখেছেন। এই সরকার সম্পূর্ণভাবে গণবিচ্ছিন্ন সরকার।

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ আর সেই আওয়ামী লীগ নেই। যে আওয়ামী লীগ আমরা দেখেছি ১৯৭১ সালের আগে। যারা স্বাধীনতার জন্য, গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছিলেন, যারা মানুষের অধিকারের জন্য সংগ্রাম করেছিলেন, গণতন্ত্রের পক্ষে লড়াই করেছিলেন, সেই আওয়ামী লীগ আর নেই। আজ দেশে আওয়ামী লীগ সবচেয়ে বড় নির্যাতনকারী দল হয়ে দাঁড়িয়েছে। তারা দমন করছেন ভিন্ন মতকে। গায়ের জোরে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চান।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, এর আগে আমরা বলেছিলাম একদিন ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ান। দেখুন জনগণ আপনাদের অবস্থা কী করে। ওবায়দুল কাদের উত্তরে বললেন, এক ঘণ্টাও যদি আওয়ামী লীগ ক্ষমতার বাইরে থাকে তাহলে নাকি দেশে রক্তের নদী বয়ে যাবে। তিনি আওয়ামী লীগের কর্মীদের বলেছেন, আপনারা টিকতে পারবেন না। হঠাৎ এই উপলব্ধি কেন? কারণ আওয়ামী লীগ নিশ্চিত যে, তারা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন। জোর করে, মানুষ খুন করেই তাদেরকে ক্ষমতায় টিকিয়ে থাকতে হবে। সেজন্যই তারা দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রেখেছেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ৩ মাস আগেই আইনগতভাবে বেগম খালেদা জিয়ার বেরিয়ে আসার কথা। কিন্তু এই সরকার পরিকল্পিতভাবে একটার পর একটা মামলা দিয়ে বেগম জিয়াকে আটকে রেখেছে। আপনারা জানেন কীভাবে মামলা তৈরি করা হয়, কীভাবে সেটাতে জড়িয়ে দেয়া হয়। মিথ্যা মামলা দিয়ে আপনাদেরকে যেমনি জড়িয়ে দেয়া হয়; ঠিক তেমনি খালেদা জিয়াকেও মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করে রেখেছে সরকার।

তিনি বলেন, যে কারাগারে বেগম জিয়াকে রাখা হয়েছে সেটি একটি নির্জন কারাগার। সেখানে অন্য কোনো বন্দী থাকে না। যেখানে একসময় কমপক্ষে ১২ হাজার বন্দী থাকতো সেখানে এখন একমাত্র বন্দী বেগম খালেদা জিয়া। কারাগারে খালেদা জিয়ার প্রতি যে আচরণ করা হচ্ছে তা বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ী কোনো নাগরিকের সঙ্গে করা হয় না। এই সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরাতে হলে আমাদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফয়সল আমিন।







নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: