সর্বশেষ আপডেট : ১৯ মিনিট ৪৮ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এহছানুল হক মিলনের পিএইচডি ডিগ্রি অর্জনে সংবর্ধনা

প্রবাস ডেস্ক:: পিএইচডি ডিগ্রি অর্জনে মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসীদের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আ ন ম এহছানুল হক মিলন। বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক এ সম্পাদক মালয়েশিয়ার আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

তার ডিগ্রি অর্জন উপলক্ষে মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের সৌজন্যে শনিবার বিকেলে কোতারায়া রাজধানী রেস্টুরেন্টে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে এহছানুল হক মিলন বলেন, ‘আমার দীর্ঘদিনের ইচ্ছা ছিল ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জনের। আল্লাহর অশেষ রহমত এবং দেশবাসীর দোয়ায় এটা আমি সম্পন্ন করেছি। একজন সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী হয়েও আমি এখনও পড়াশোনা করেছি। বাংলাদেশের ছাত্রদের সঙ্গে ক্লাস করেছি। আমি মনে করি, শিক্ষার কোনো শেষ নেই। একমাত্র শিক্ষাই মানুষকে আলোর দিকে নিয়ে যেতে পারে।’

‘বেগম খালেদা জিয়ার কিছু হলে এর দায় শেখ হাসিনা ও তার সরকারকে নিতে হবে’- যোগ করেন তিনি।

মালয়েশিয়া বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ডা. আহমেদ বুরহানের সভাপতিত্বে এ সময় বক্তব্য রাখেন মো. শহীদ উল্লাহ শহীদ, মিজানুর রহমান, ড. আরিফ ও কাজী সালাহ উদ্দিন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আব্দুল্লাহ আল মামুন,মো. মিন্টু, মো. কামাল, ইমন হাসান, আনোয়ার পারভেজ, মোবারক কারী, আনোয়ার হোসেন, মো. নাছির, মো. রাসেল, মো. আমজাদ হোসেন, মো. মনির, মুজিব ও মিজান প্রমুখ।

jagonews24

এহছানুল হক মিলন দীর্ঘ চার বছরের সাধনায় এ ডিগ্রি অর্জন করেন। তার গবেষণার বিষয় ছিল ‘মানবিক মূলধন এবং সামাজিক-অর্থনৈতিক উন্নয়ন’।

তিনি কানাডার আলবার্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. আবদুল রশিদ মতিনের তত্ত্বাবধানে গবেষণারত ছিলেন। তার পিএইচডি মৌখিক পরীক্ষায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিভার্সিটি মালয়ের অধ্যাপক ড. মো. ইউসুফ আলী। যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ-ওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এল ফাতিহ আবদুল্লাহ আবদেস সালাম ছিলেন তার পরীক্ষক।

বিএনপির এই নেতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশে শতাধিক রাজনৈতিক মামলা রয়েছে। এর মধ্যে ৩১টি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি রয়েছে। ২০০১-০৬ মেয়াদে বিএনপি নেতৃত্বাধীন সরকারের সময় মিলন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন। নকলমুক্ত শিক্ষার প্রসারে তার ভূমিকা সর্বজনস্বীকৃত।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: