সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আন্তর্জাতিক মিডিয়া সম্মেলনে বাংলাদেশের তিন তরুণ

প্রবাস ডেস্ক:: গত ৪ জুলাই থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত স্কটল্যান্ডের এডিনবার্গে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো আন্তর্জাতিক মিডিয়া সম্মেলন।যেখানে বাংলাদেশ থেকে অংশগ্রহণ করেন উদীয়মান তিন তরুণ সাংবাদিক।প্রতিযোগিতামূলক বাছাইপর্বের মাধ্যমে বিশ্বের ৫০টি দেশের ২৫শ প্রতিযোগীর মধ্য থেকে নির্বাচিত সাংবাদিকরা এ সম্মেলনে অংশ নেন।

ব্রিটিশ কাউন্সিল নেটওয়ার্কের তত্ত্বাবধানে কঠোর বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে নির্বাচিত হয়েছেন গ্রামীণফোনের ট্রেইনি মিয়া মো খাই, অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির (কিউইউটি) শিক্ষার্থী নোরমা হিলটন এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জাওয়াদ সাদমান।বছরের শুরুতে ফিউচার নিউজ ওয়ার্ল্ডওয়াইডের অনলাইন প্রচারণায় প্রতিযোগীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে এবং তাদের যোগ্যতার মাপকাঠিতে সেরাদের নির্বাচিত করা হয়েছে। বাংলাদেশ থেকে শতাধিক আবেদনকারীর মধ্যে সাংবাদিকতায় ভূমিকা এবং এ পেশায় তাদের অনুরাগের ভিত্তিতে সেরা তিনজনকে বাছাই করা হয়েছে।

বিশ্বের বেশ কটি শীর্ষস্থানীয় মিডিয়া প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় ব্রিটিশ কাউন্সিল এ সম্মেলনের আয়োজন করেছে।সম্মেলনে, প্রতিযোগীরা সাংবাদিকতা বিষয়ে প্রশিক্ষণ নেওয়ার পাশাপাশি, খ্যাতিমান সাংবাদিকদের সঙ্গে আলোচনার সুযোগ পাবে।

ইতিমধ্যেই, এ সম্মেলনে নিজেদের উপস্থিতি নিশ্চিত করেছেন বিবিসির সংবাদ পাঠক ও সাবেক চীন সম্পাদক ক্যারি গ্রেসি, রয়টার্সের গ্লোবাল নিউজ এডিটর আলেসান্দ্রা গ্যালোনি এবং কেনিয়ার সম্পাদক ও ওপেন-ডাটা চ্যাম্পিয়ন ক্যাথেরিন গিশেরু।

স্কটিশ পার্লামেন্টে অনুষ্ঠিতব্য ফিউচার নিউজ ওয়ার্ল্ডওয়াইডের এ সম্মেলনের মাধ্যমে স্কটল্যান্ডের তরুণ ও মেধাবী সাংবাদিকরাও কিংবদন্তী সাংবাদিকদের সঙ্গে নিজেদের অভিজ্ঞতা আদান-প্রদানের পাশাপাশি, নিজেদের কর্মদক্ষতা উন্নয়নে দিক নির্দেশনা নেওয়ার সুযোগ পাবেন।

দৈনন্দিন জীবনে গোটা বিশ্বের খবর নিতে গণমাধ্যম অগ্রগণ্য ভূমিকা পালন করে আসছে। এ সম্মেলনের লক্ষ্য সংবাদ সংগ্রহ ও প্রকাশের ক্ষেত্রে গণমাধ্যমকর্মীরা যে সকল প্রতিকূলতার মুখোমুখি হন তা সবার সামনে তুলে ধরা।

সম্মেলনে অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে জাওয়াদ সাদমান সিদ্দিকী বলেন, ‘কখনোই কণ্ঠের ক্ষমতাকে ছোট করে দেখার উপায় নেই। যখন আপনার কথার মূল্য থাকবে, তখনই আপনি সমাজে পার্থক্য গড়ে দিতে পারবেন। সম্ভাবনাময় সাংবাদিকদের জন্যবেশ বড় একটি প্ল্যাটফর্ম হতে যাচ্ছে ফিউচার নিউজ ওয়ার্ল্ডওয়াইডের এ সম্মেলন। এখানে অংশ নেওয়ার সুযোগ পেয়ে আমি অত্যন্ত আনন্দিত।’

ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর বারবারা উইকহ্যাম বলেন, ‘এডিনবার্গে অনুষ্ঠিত ফিউচার নিউজ ওয়ার্ল্ডওয়াইড সম্মেলনে অংশ নেয়ার সুযোগ পাওয়ায় প্রতিভাবান সাংবাদিক মিয়া মো খাই, নোরমা হিলটন ও জাওয়াদ সাদমান সিদ্দিকীকে আন্তরিক অভিনন্দন। মিডিয়া ও উন্নয়ন ক্ষেত্রে সম্ভাবনাময় অন্যান্যনেতৃবৃন্দের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনে এ সম্মেলন অংশগ্রহণকারীদের জন্য বিশেষ সুযোগ হিসেবে কাজ করবে। তরুণ এ তিন অংশগ্রহণকারীরা শুধুমাত্র বাংলাদেশের প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ প্রজন্মকেই তুলে ধরবে না পাশাপাশি, তারা অন্যান্যদেশের ভবিষ্যৎ মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনে সাংবাদিকতায় তাদের অনুরাগ ও প্রবল উৎসাহের প্রমাণ দিয়েছে। সম্মেলনে নেটওয়ার্কিং-এর মাধ্যমে তারা সাংবাদিকতা বিষয়ে দক্ষতা অর্জনের সুযোগ পাবে এবং দেশে ফেরত আসার পর সম্মেলনে অর্জিত জ্ঞান প্রয়োগ করে তারা এ খাতে ইতিবাচক প্রভাব রাখতে পারবে।’

রয়টার্সের এডিটর ইন চিফ এবং ফিউচার নিউজ ওয়ার্ল্ডওয়াইডের চেয়ারম্যান মার্ক উড বলেন, ‘ফিউচার নিউজ ওয়ার্ল্ডওয়াইড সম্মেলন ৫০টি দেশের তরুণ সাংবাদিকদের জন্য অত্যন্ত শিক্ষণীয় হতে যাচ্ছে। অভিজ্ঞ সাংবাদিকদের কাছ থেকে অংশগ্রহণকারী তরুণরা নানা দিক-নির্দেশনা অর্জন করতে পারবে। সম্মেলনে উচ্চমানের সাংবাদিকতা, বিশ্বস্ত ভূমিকা পালন ও ডিজিটাল যোগাযোগ ব্যবস্থার বিভিন্ন দিক সম্পর্কে ধারণা পাবে অংশগ্রহণকারীরা। সত্য, নিরপেক্ষ ও ভালোমানের সংবাদ যখন সকলের চাহিদা, এমন সময়ে এ সম্মেলনে তরুণ সাংবাদিকদের নির্ভরশীল হতে এবং গুণগত সাংবাদিকতায় উৎসাহী করে তুলবে।’

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক: লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: