সর্বশেষ আপডেট : ২৩ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এইচআইভি প্রতিষেধকের ঠিক এক পা দূরে দাঁড়িয়ে দুনিয়া!

নিউজ ডেস্ক:: ইঁদুর, গিনিপিগ ও বাঁদরের উপর পরীক্ষা সফল হয়েছে আগে।এবার সরাসরি মানুষের দেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা হবে এইচআইভি ভাইরাস নিষ্ক্রিয়কারী ভ্যাক্সিন।গত ৪ জুন নেচার মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে ইঁদুর, গিনিপিগ ও বাঁদরের দেহে এইচআইভি গঠনতন্ত্রের গুরুত্বপূর্ণ অংশ নিষ্ক্রিয় করার জন্য বিশেষ ভাবে প্রস্তুত ভ্যাক্সিন ব্যবহারের ফলাফল।

ব্রিটেনের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (NIAID)-এর বিজ্ঞানীদের গবেষণার ফলের ভিত্তিতে এবার মানবদেহে এই ভ্যাক্সিন প্রয়োগ করার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

NIAID ভ্যাক্সিন রিসার্চ সেন্টারের অধীনস্থ স্ট্রাকচারাল বায়োলজি বিভাগের প্রধান পিটার ডি কোয়াং ও বিজ্ঞানী জন আর মাসকোলার নেতৃত্বে এই অভিনব গবেষণা চালানো হচ্ছে।

জানা গিয়েছে, ভ্যাক্সিনটি মূলত এপিটোপ ভিত্তিক। জীবদেহে ক্ষতিকর পদার্থ অনুপ্রবেশ রোধকারী অ্যান্টিজেন-এর এক নির্দিষ্ট অংশকে এপিটোপ বলা হয়। এই অ্যান্টিজেনে যুক্ত থাকে একটি অ্যান্টিবডি। অ্যান্টিবডি যুক্ত হতে পারে, এমন বেশ কিছু এইচআইভি স্ট্রেনের উপর ভিত্তি করেই তৈরি হয়েছে ভ্যাক্সিনটি। উল্লেখ্য, এপিটোপটি ২ বছর আগে আবিষ্কৃত হয়।

প্রথমে বিজ্ঞানীরা শক্তিশালী অ্যান্টিবডিগুলি চিহ্নিত করেন, যা এইচআইভিকে নিষ্ক্রিয় করতে সক্ষম। এরপর ভ্যক্সিনের সাহায্যে সেই অ্যান্টিবডিগুলি বাদ দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। পরবর্তী ধাপে মানুষের শরীরে ভ্যাক্সিনটি প্রয়োগ করে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংগ্রহ করা হয়। আশা করা যাচ্ছে, ২০১৯ সালের মাঝামাঝি এই পরীক্ষা বাস্তবায়িত হবে।

সূত্র: টাইমস অফ ইন্ডিয়া




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: