সর্বশেষ আপডেট : ২৫ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নিজ দেশেই তুমুল সমালোচনার শিকার নেইমার

স্পোর্টস ডেস্ক:: রাশিয়া বিশ্বকাপে অন্যতম ফেবারিট। অনেকেই বলতে শুরু করে দিয়েছিল, রাশিয়া থেকে ৬ষ্ঠ বিশ্বকাপটা এবার নেবেই সেলেসাওরা। কিন্তু গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে সবার প্রত্যাশার ব্রাজিলকে মোটেও দেখা যায়নি। বরং, বাজে খেলা উপহার দিয়ে ১-১ গোলে ড্র করেছে তিতের শিষ্যরা। পুরো ম্যাচে নেইমার ছিলেন অনেকটাই নিষ্প্রভ। গোল লক্ষ্যে শটই নিতে পারেননি। বরং, সুইস ফুটবলারদের একের পর এক ফাউলের শিকার হয়েছেন।

এমন এক ম্যাচের পর ব্রাজিল জুড়ে চলছে নেইমারের সমালোচনা। কৌতিনহোর দারুণ এক গোলে এগিয়ে যায় ব্রাজিল। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই সেই ব্রাজিলকেই দারুণ এক হেডে গোলটা ফিরিয়ে দেন সুইজারল্যান্ডের স্টিভেন জুবের। এমন পরিস্থিতির পরও যখন নেইমারের আরও জ্বলে ওঠা প্রয়োজন ছিল, তখন তিনি ছিলেন একেবারে শান্ত। তার কাছ থেকে তেমন কোনো কিছুই লক্ষ্য করা যায়নি।

ইএসপিএন ব্রাজিল সংবাদদাতা অরনালডো রিবেইরো লিখেছেন, ‘নেইমার মানেই হলো যেন সম্পূর্ণ একটি বিপর্যয়। তিনি কোনোভাবেই একটি গ্রহণযোগ্য ম্যাচ খেলেননি। উচিৎ ছিল তাকে পরিবর্তিত হিসেবে মাঠে নামানো। ব্রাজিল অবশ্যই দারুণ একটি দল এবং দলটিতে অনেক প্রতিভাবান ফুটবলারের সমন্বয় রয়েছে। যারা নিজেদেরকে যাবতীয় সমস্যা থেকে বের করে আনতে পারে। কিন্তু নেইমার একা চেষ্টা করেছেন ম্যাচটা জিততে এবং তিনি ব্যর্থ হয়েছেন।’

অরনালডো রিবেইরো নেইমারের সমালোচনা করে আরও লিখেন, ‘নেইমার নিজের পায়ের অপরাশেনকে হয়তো অজুহাত হিসেবে দাঁড় করাবেন। কিন্তু তিনি তো পারফর্মই করতে পারেননি। দলের জন্য ভালো কোনো কিছুই উপহার দিতে পারেননি। আমি হলে তার পরিবর্তে ডগলাস কস্তাকেই খেলাতাম। এবং আমি এখনও বুঝতে পারছি না, কেন কস্তাকে খেলানো হয়নি।’

সাবেক ফুটবলার জি এলিয়াস নিজের মতামত ব্যক্ত করতে গিয়ে একরাশ ক্ষোভই উগড়ে দিলেন নেইমারের প্রতি। তিনি বলেন, ‘মাঠে সে তো একজন স্বার্থপর ফুটবলার। এ কারণেই অনেকগুলো ফাউলের শিকার হয়েছে সে। কিন্তু আমি বুঝতে পারছি না, কেন তারা নেইমারের জন্য এতটা উতালা হচ্ছে। মূল সমস্যা হচ্ছে, নেইমার ভুলে গেছে যে একটি দল হয়ে খেলতে হয়, একা একা না। তাহলেই বলটা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।’

ফক্স স্পোর্টসের ব্রাজিল সংবাদদাতা অসভালদো পাসকোয়ালও ভিন্ন কোনো কথা বললেন না। তিনি মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, ‘এমন ফুটবল খেলাটা নিশ্চিতরূপেই কদর্য, অমার্জিত। আমি খুবই অবাক হচ্ছি যে, শেষ মিনিট পর্যন্তও কেন তিতে তাকে (ডগলাস কস্তা) কোনো সুযোগ দিলো না।’

ও টেম্পো ব্রাজিলের থিয়াগো নিগেইরা বলেন, ‘নেইমার সত্যিই খুব খারাপ খেলেছেন। প্রত্যাশার চেয়ে অনেক খারাপ। সুইজারল্যান্ডকে ব্রাজিলের হারাতে না পারার এটাই একমাত্র কারণ।’




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: