সর্বশেষ আপডেট : ৩২ মিনিট ৪ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কফিন নয়, গাড়িসহ দেয়া হলো কবর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মৃত্যুর পর যদি আলাদা জীবন শুরু হয়, তাহলে তা যেন সমৃদ্ধ হয় এ জীবনে ভালোবাসার বস্তু বা পোষ্য দিয়ে। এই বিশ্বাস থেকে মিশরের ফারাওরা নিজেদের মৃত্যুর পর প্রিয় পোষ্যকেও তাদের সঙ্গে মমি বানিয়ে রাখতেন। এ যুগেও অনেকটা তেমনই ভালোবাসার সন্ধান মিলল। তবে একটু অন্যভাবেই।

কোনো পোষ্য নয়, মৃত্যুকালীন শেষ ইচ্ছায় কফিনের বদলে প্রিয় গাড়ির সঙ্গে নিজেকে কবর দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন চীনের এক ব্যক্তি। তার ইচ্ছা পূরণও হলো। সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, গত সোমবার প্রিয় গাড়িটাকে কফিন করে তাকে কবর দেওয়া হয়। গাড়ির সঙ্গে কবর দেওয়ার ভিডিও সোশ্যাল মাধ্যমে পোস্টও করা হয়েছে।

ওই ব্যক্তির নাম কিউ। চীনের হেবেই প্রদেশের বাসিন্দা কিউয়ের ছোট থেকেই গাড়ির শখ ছিল। অনেক বছর ধরে সিলভার-গ্রে রঙের সেডান গাড়িটা তার ছিল। অনেক পুরনো হওয়ার দরুণ গতি কমে গিয়েছিল গাড়িটির। কিন্তু দীর্ঘদিন একসঙ্গে থাকার কারণে কেমন যেন ভালোবেসে ফেলেছিলেন গাড়িটাকে। তাই জীবন হারিয়ে ফেললেও গাড়িটাকে হারাতে চাননি তিনি। পরিবারের কাছে অনুরোধ করেছিলেন, মৃত্যুর পর তাকে যেন কফিনে কবর না দিয়ে ওই গাড়িটাতে কবর দেওয়া হয়।

পরিবার তার অনুরোধ রাখে। গাড়ির মাপের বড় গর্ত খোঁড়া হয়। গাড়িটার ভেতরে শোওয়ানো হয় কিউকে। তারপর ক্রেনের সাহায্যে দড়ি বেঁধে আস্তে আস্তে ওই গর্তের ভিতরে গাড়িসহ কবর দেওয়া হয় তাকে।

কবর দেওয়ার ভিডিওটি ইউটিউবে ভাইরাল হয়েছে। নানা রকমের মন্তব্যও করা হয়েছে ওই ভিডিওর নিচে। কেউ লিখেছেন, ‘ভাগ্যিস তিনি বিমান ভালোবাসতেন না’। কেউ বলছে, ‘আজ থেকে অনেক বছর পরে ওই জায়গাটা খুঁড়লে গাড়িটা পাওয়া যাবে, তখন কী হবে ভাবুন’।

সূত্র: আনন্দবাজার




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: