সর্বশেষ আপডেট : ৩৬ মিনিট ২০ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

পালবাড়ি-জেটিঘাট সড়কে জনদুর্ভোগ

ফেঞ্চুগঞ্জ সংবাদদাতা ::
ষাট বছরের পুরনো পালবাড়ি-জেটিঘাট সড়কে জনদুর্ভোগের সম্মুখিন সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার বারহাল, ভরাউট (জেটিঘাট) ও আদর্শগ্রাম (গুচ্ছগ্রাম) নামের ৩টি গ্রামের অবস্থান। এছাড়াও দেশের বৃহত্তম শাহজালাল সারকারখানা সহ সরকারি-বেসরকারি ৫টি বিদ্যুত কেন্দ্র ও এসব গ্রামের লোকজনকে এ রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে হয়। বর্তমানে এই রাস্তাটির বেহাল অবস্থা। রাস্তার মধ্যে বড় বড় গর্তে পানি আটকে গিয়ে যানবাহন চলাচলে জনসাধারণকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এই রাস্তার সংস্কার বা পাকাকরণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোন উদ্যোগ নিচ্ছেন না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ১৯৬১সালে দেশের প্রথম ফেঞ্চুগঞ্জ সারকারখানা প্রতিষ্ঠাকালীন সময় নদী পথে সার পরিবহনের জন্য সারকারখানা কর্তৃপক্ষ আরসিসি ঢালাই দিয়ে রাস্তাটি নির্মাণ করে। পরবর্তীতে বিভিন্ন সময় ওই রাস্তার সংস্কার কাজ করায় রাস্তাটি জনসাধারণের চলাচলের উপযোগী থাকে। ১৯৯২ সালে তৎকালীন বিএনপি সরকার ফেঞ্চুগঞ্জ সারকারখানাকে জরাজীর্ণ ও ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে সারকারখানা বন্ধ করে দেওয়ার উদ্যোগ নিলে এই রাস্তায় আর কোনো কাজ হয়নি। সংস্কার করার জন্য নেওয়া হচ্ছে না কোন উদ্যোগ। ৩টি গ্রামের ৭হাজার মানুষ প্রতিদিন এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে দুর্ভোগে পড়েন। ভাঙ্গাচোরা রাস্তাটি দিয়ে খানাখন্দের ওপর দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে ঢেউয়ের দোলায় গাড়িগুলো দুলতে থাকে। অনেক সময় গাড়ি উল্টে দুর্ঘটনা ঘটে যায়। জেটিঘাট এলাকায় কুশিয়ারা নদীর ওপর স্থাপিত পানির পাম্প ষ্টেশন স্থাপন করে এখান থেকে শাহজালাল সারকারখানায় পানি সরবরাহ করা হয়।
জেটিঘাট এলাকায় অবস্থিত ৫টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র। এর মধ্যে ২টি সরকারি ও ৩টি বেসরকারি বিদ্যুৎ কেন্দ্র রয়েছে। বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বড় বড় ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান ভারি মালামাল নিয়ে ওই রাস্তা দিয়ে বিদ্যুৎ কেন্দ্রে চলাচল করায়। রাস্তায় ছোট-বড় গর্ত ও খানা খন্দের সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে ভরাউট গ্রামের বাসিন্দা মো. তানু মিয়া বলেন, ওই রাস্তা দিয়ে হাট-বাজারে যেতে আমাদের প্রতিদিন বিড়ম্বনায় পড়তে হয়।
শাহজালাল সারকারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মো. মনিরুল হক বলেন, দীর্ঘ দিনের পুরনো ওই রাস্তাটি আমরা ছাড়াও আরো কয়েকটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র ব্যবহার করে থাকে। ফলে রাস্তার এই বেহাল অবস্থা হয়েছে। রাস্তাটি সংস্কারের জন্য আমরা উদ্যোগ নিয়েছি। আপাতত চলাচলের জন্য হালকা ধরনের সংস্কার হবে। পরবর্তীতে রাস্তাটির বড় ধরনের সংস্কার ও প্রশস্থ করণের জন্য বিষয়টি বিসিআইসির বোর্ড সভায় উত্থাপন করা হবে।


এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: