সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৩৫ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

দেড় লাখ গরু মেরে ফেলছে নিউজিল্যান্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ব্যাকটেরিয়াজনিত রোগের বিস্তার রোধ করতে দেড় লাখ গরু মেরে ফেলার পরিকল্পনা নিয়েছে নিউজিল্যান্ড। রাজনীতিবিদ ও শিল্প নেতারা গত সোমবার তাদের এ উদ্দেশ্যের কথা ঘোষণা করেছেন। তারা এ-ও বলেছেন, আর এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে শত শত কোটি ডলার খরচ হবে। এ পরিকল্পনায় তারা সফল হলে, নিউজিল্যান্ডই হবে প্রথম কোনো আক্রান্ত দেশ, যে দেশ মাইকোপ্লাজমা বোভিস দূর করল। খামার নিউজিল্যান্ডের অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

গত জুলাইয়ে, দেশটিতে প্রথমবারের মতো মাইকোপ্লাজমা বোভিসের অস্তিস্ব খুঁজে পাওয়া যায়। এ ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত হলে গরু স্তন প্রদাহ, নিউমোনিয়া, বাতসহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হতে পারে। বলা হচ্ছে, যদিও এ বিষয়টি খাদ্য নিরাপত্তার জন্য হুমকি নয়, তারপরও দেশে উৎপাদনের জন্য বিশাল ক্ষতি।

সরকারি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, যেসব খামারে এই মাইকোপ্লাজমা বোভিস ব্যাকটেরিয়া আক্রান্ত গরুর সন্ধান পাওয়া যাবে, সেগুলো মেরে ফেলা হবে। যদিও গরুগুলো দেখতে স্বাস্থবান হোক না কেন। মেরে ফেলার পর এগুলো পুড়িয়ে ফেলা হবে অথবা অনুমোদিত কোনো জমিতে পুঁতে ফেলা হবে।

খবরে বলা হচ্ছে, গরু মেরে ফেলার দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তারা আক্রান্ত খামারে যেকোনো সময় খামারে প্রবেশ করতে পারবেন এবং আক্রান্ত গরু মেরে ফেলতে পারবেন। খামার মালিকরা বাধা দিলেও তারা মানবেন না।

নিজজিল্যান্ডের অ্যাভভোকেসি গ্রুপ ফেডারেটেড ফার্মারসের ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট কেটি মিলনে বলেন, ‘মাইকোপ্লাজমা বোভিস থেকে মুক্তি পাওয়া খুবই দরকার ছিল, যদিও এটার সুযোগ কমই ছিল। তিনি আরও বলেন, ভুক্তভোগী খামার মালিকদের জন্য প্রয়োজনীয় সকল ধরনের সহায়তা দেয়া হবে। এমনকি তারা পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণও পাবে।’

নিজজিল্যান্ড এমন একটি দেশ যে দেশে অন্তত এক কোটি গরু রয়েছে; যা দেশটির জনসংখ্যার তুলনায় দ্বিগুণ। এর মধ্যে দুই-তৃতীয়াংশ দুগ্ধ গাভী আর বাকি এক তৃতীয়াংশ গবাদি। দুগ্ধজাত পণ্য রফতানি করে দেশটি সবচেয়ে বেশি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে থাকে।

১৮ মাস আগে দেশটিতে মাইকোপ্লাজমা বোভিসের উপস্থিতি সনাক্ত করা হয়। এ পর্যন্ত ৩৮টি খামারে মাইকোপ্লাজমা বোভিস ব্যাকটেরিয়া পাওয়া গেছে। কম্পিউটার মডেলিং করে জানা গেছে, এ সংখ্যা ১৪২-তে পৌঁছাতে পারে। কঠোর জৈব নিরাপত্তা স্বত্ত্বেও দেশটিতে কীভাবে এ ব্যাকটেরিয়া ঢুকে পড়লে-তা জানতে কাজ করে যাচ্ছেন কর্মকর্তারা।

চলতি মাসে দেশটিতে ২৪ হাজার গরু মেরে ফেলা হয়। সরকারের নতুন গৃহীত পরিকল্পনায় সামনে আরও দেড় লাখ মেরে ফেলা হবে। আক্রান্ত গরু নিধনের এ প্রকল্পে সরকারের আনুমানিক ৬১৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ হবে।

এদিকে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাকিন্ডা আর্ডান্ড বলেছেন, তিনি মনে করেন মাইকোপ্লাজমা বোভিস সমূলে নির্মূল করা সম্ভব হবে। আমরা আসলে জানিনা, অদূর ভবিষ্যতে এটা আমাদের শিল্পের উপর কতটা প্রভাব পড়বে। অথচ খামার শিল্প আমাদের অর্থনীতির জন্য অবিশ্বাস্যভাবে গুরুত্বপূর্ণ। তবে এই রোগ সমূলে উদপাটন করার কোনো সুযোগ থাকে, তাহলে আমরা সেই সুযোগ গ্রহণ করব।

সরকারি কর্মকর্তারা বলছেন, উচ্ছেদ পরিকল্পনা আ-দৌ কাজ করছে কি না-তা চলতি বছরের শেষেই জানা যাবে।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: