সর্বশেষ আপডেট : ৪১ মিনিট ৩ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সরকারি হাসপাতালেই চিকিৎসা নিতে চান আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

বিনোদন ডেস্ক:: রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের সরকারি জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটেই চিকিৎসা নিতে চান দেশের স্বনামধন্য মুক্তিযোদ্ধা, গীতিকার ও সুরকার আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। সম্প্রতি হৃদরোগে আক্রান্ত দেশবরেণ্য প্রচারবিমুখ এ ব্যক্তিটির হৃদপিন্ডে প্রধান তিনটি রক্তনালীসহ ছোটবড় ৮টি ব্লক ধরা পড়েছে।

এরপর থেকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট, মিরপুর হার্ট ফাউন্ডেশন, ইব্রাহিম কার্ডিয়াক ও সর্বশেষ গত শুক্রবার স্কয়ার হাসপাতালে ভারতীয় একজন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞকে দেখানো হয়েছে তাকে। এরপর তিনি সরকারি জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটেই দেশীয় ডাক্তারদের কাছে চিকিৎসা করাবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনি চাইছেন তার হার্টে রিং (স্ট্যান্টিং) বসানোর কাজ দেশীয় সরকারি চিকিৎসকরাই করবেন।

শনিবার এ তথ্যই জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের চিকিৎসার দায়িত্বপালনকারী ডা. জুলফিকার লেনিন। তিনি জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের সহযোগি অধ্যাপক এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক পরিচালক। তিনি এই বিষয়ে একটি স্ট্যাটাসও দিয়েছেন নিজের ফেসবুকে।

সেখানে এই চিকিৎসক লিখেছেন, ‘আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল-স্বনামধন্য মুক্তিযাদ্ধা, একজন গায়ক, একজন সুরকার, একজন গীতিকার। উনার চিকিৎসার ব্যপারে অনেক চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করেছি। সর্বশেষ গতকাল (শুক্রবার) স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তির উদ্দেশ্যে ওখানকার একজন ইন্ডিয়ান সার্জনকে দেখানো হলো। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থেকে শুরু করে সবাই খুব আন্তরিক ছিলেন। কিন্তু চিকিৎসক কোনো আশা দিতে পারলেন না। শেষপর্যন্ত বুলবুল ভাই জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটেই তার চিকিৎসা করাবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’

এদিকে আলাপকালে ডা. জুলফিকার লেনিন আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় উনার উন্নত চিকিৎসার জন্য দেশের প্রখ্যাত সকল হৃদরোগ বিশেষজ্ঞদের সাথে তার এনজিওগ্রাম রিপোর্ট দেখিয়ে আলাপ আলোচনা করা হয়েছে। চিকিৎসকদের কেউ বলছেন হার্টে রিং বসাতে আবার কেউ বলছেন ওপেন হার্ট সার্জারি করতে। তবে তিনি ডায়াবেটিসের রোগী হওয়ায় বেশীরভাগ চিকিৎসকই রিং বসানোর পক্ষে। তার হার্টে ব্লক ৮টির মতো হলেও প্রধান তিনটি রক্তনালীর ব্লকে রিং বসালেই আপাতত চলবে।’

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল স্কয়ার হাসপাতালে ভারতীয় একজন চিকিৎসককে দেখানোর আগে স্কয়ারে চিকিৎসা নেবেন জানিয়েছিলেন। কিন্তু ভারতীয় চিকিৎসক খুব একটা আশাব্যঞ্জক কথা না বলায় তিনি হৃদরোগ ইনস্টিটিউটেই চিকিৎসা করাবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আগামী মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ অথবা ঈদের পর হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে ভর্তি হতে পারেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। এ সময়ে সিদ্ধান্ত বদল করে অন্য কোথাও ভর্তি হতে চাইলেও তার সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সেখানেই ভর্তি করা হবে বলে ডা. লেনিন জানান।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ এপ্রিল আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল পেটের ব্যথা নিয়ে বারডেম হাসপাতালে আসেন। এ সময় অধ্যাপক ডা. লিয়াকত আলীর পরামর্শে ইসিজি করলে সেখানে অস্বাভাবিকতা ধরা পড়ে। পরে ডাক্তার তাকে এনজিওগ্রাম করাতে বলেন। গত ১২ মে তিনি ইব্রাহিম কার্ডিয়াকে এনজিও গ্রাম করাতে ভর্তি হন। এনজিও গ্রাম পরীক্ষায় তার হৃদপিন্ডে ছোটবড় ৮টি ব্লক ধরা পড়ে।

হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরে দেশবরেণ্য এই ব্যক্তি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অভিমান করে তার অসুস্থতা নিয়ে স্ট্যাটাস দেন। এটি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী অবহিত হন। পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রী আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের সুচিকিৎসা করানোর দায়িত্ব নেন। এর সবকিছু দেখাশোনার জন্য নির্দেশ দেন ডা. জুলফিকার লেনিনকে।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক: লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: