সর্বশেষ আপডেট : ১২ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেটে ঐতিহাসিক চা-শ্রমিক হত্যা দিবস পালিত

ডেস্ক রিপোর্ট:: সিলেটে শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় ঐতিহাসিক ‘চা-শ্রমিক হত্যা দিবস’ পালন করেছে বিভিন্ন চা-শ্রমিক ও বাম সংগঠন। রোববার সকালে মালনীছরা চা-বাগানের শহীদ মিনারে মিছিলসহ নিহতদের স্মরণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন চা-শ্রমিক ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা।

এ সময় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা বলেন, চা-শিল্প, প্রতিষ্ঠিত শিল্প হিসেবে স্বীকৃত হলেও শ্রমিকদের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি আজও। সরকার ও মালিকপক্ষ চা উৎপাদনে লাভবান হচ্ছে ঠিকই, কিন্তু শ্রমিকদের শিক্ষা, চিকিৎসা, বাসস্থানের অধিকার এখনো নিশ্চিত হয়নি।

বক্তারা আরও বলেন, চা-শিল্পের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে সরকারকে পদক্ষেপ নিতে হবে।

উল্লেখ্য, ১৯২১ সালের ২০ মে চা-শ্রমিকদের ওপর ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির অব্যাহত নির্যাতন-নিপীড়নের প্রতিবাদে সে সময়কার চা-শ্রমিক নেতা পণ্ডিত গঙ্গাচরণ দীক্ষিত ও পণ্ডিত দেওসরন নিজ দেশে চা-শ্রমিকদের ফিরে যাওয়ার জন্য ‘মুল্লুকে চল’ (দেশে চল) আন্দোলনের ডাক দেন।

‘মুল্লুকে চল’ আন্দোলনের ডাকে ১৯২১ সালের ২০ মে সিলেট থেকে হেঁটে চাঁদপুর মেঘনা স্টিমার ঘাটে পৌঁছান সিলেট অঞ্চলের প্রায় ৩০ হাজারের অধিক চা-শ্রমিক। তারা জাহাজে চড়ে দেশে ফিরে যেতে চাইলে ব্রিটিশ সৈন্যরা নির্মমভাবে গুলি চালিয়ে শত শত চা-শ্রমিককে হত্যা করে এবং মৃতদেহ ভাসিয়ে দেয় মেঘনা নদীতে।

যারা ব্রিটিশ সৈন্যদের হাত থেকে ওই দিন পালিয়ে এসেছিলেন তাদেরকেও আন্দোলন করার অপরাধে পাশবিক নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছিল। ঘটনার পর ৯৭ বছর কেটে গেলেও আজও জাতীয় স্বীকৃতি পাননি তারা।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: এ. আর. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: