সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ০ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২১ মে, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মৌলভীবাজারে দ্রব্যমুল্যের উর্দ্ধগতি

মৌলভীবাজার সংবাদদাতা:: রমজানের আর মাত্র তিন দিন বাকি। তবে মৌলভীবাজার জেলার সবকটি হাট বাজারে দ্রব্যমূল্যের দাম বেড়েছে। সবজিসহ প্রায় প্রতিটি পন্যের দাম এখন রীতিমত আগুন। ফলে বিপাকে পড়েছেন নি¤œ আয়ের সাধারণ মানুষ। বর্তমানে সবজি কিনে খাওয়া যেন সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে।
রবিবার (১৩ মে) শহরের কয়েকটি বাজারে গিয়ে দেখা যায়, নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির চিত্র। টানা বৃষ্টির কারনে এমনটাই হচ্ছে বলে জানাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।
বাজারে আসা ক্রেতারা বলছেন, রোজার অজুহাতে অনেক বিক্রেতা দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। তবে বিক্রেতাদের দাবি, পাইকারি বাজারে দাম বেড়েছে। এ কারণে তাঁরাও দাম বাড়াতে বাধ্য হয়েছেন।
বিশেষ করে পেঁয়াজ, রসুন, আদা, ডাল, বেসন, কাচা মরিচ, টমেটো, বেগুন, শসা, গাজরসহ বিভিন্ন সবজির মূল্য বেশ ঊর্ধ্বমুখি। চাহিদার তুলনায় বাজারে পণ্য সরবারহ পর্যাপ্ত থাকার পরও দাম বাড়ছে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। ক্রেতাদের অভিযোগ সরবরাহ বেশি থাকা সত্বেও লাগামহীন দামে বিক্রি করছেন বিক্রেতারা।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, শহরের পশ্চিম বাজারে পেয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৮ টাকায়। যা আগে ছিল ২২-২৪ টাকা। রসুন মোটাটা বিক্রি হচ্ছে ১০ টাকা বাড়তিতে ১২০ টাকা দরে। সবজি বাজারে এক সাপ্তাহ ব্যবধানে দাম বেড়েছে কাঁচা মরিচ ১০টাকা, বেগুন ১০-১২টাকা, শসা ১০-১৫ টাকা, টমেটো ১০ টাকা, বেসন ১০টাকা, খেসারী ডাল ৫টাকা, গাজর ১০টাকা বাড়তি দরে বিক্রি করা হচ্ছে। রমজানের আগেই অস্বাভাবিক হারে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ মানুষ পড়েছেন ভোগান্তিতে।
রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তারা প্রশাসনের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।
এদিকে মুরগি, গরু ও ছাগলের মাংশের দামও উঠানামা করছে। বিক্রেতারা বলছেন রমজানে মাংশের চাহিদা বেশি থাকায় এগুলোর দাম কিছুটা বাড়ছে।
একাধিক ব্যবসায়ীরা জানান, বাজারে সব পণ্যের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে। তবে কাচা তরিতরকারীর ক্ষেত্রে কিছুটা মূল্য বৃদ্ধির বিষয়টি তারা অস্বীকার করেননি। এজন্য বিক্রেতারা দায়ী করেছেন পাইকারি ব্যবসায়ীদের। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ, রমজানকে পুঁজি করে কোনো কারণ ছাড়াই ব্যবসায়ীরা ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন।
ছনাওর খান নামে এক ক্রেতা বলেন, রমজান উপলক্ষে সবজির দাম বেড়েছে। বিশেষ করে বাজারে বেগুন, শসা, কাঁচা মরিচের দাম।
একই কথা বলেন, আসুক মিয়া, আব্দুল আহাদ সহ আরো কয়েকজন।
তবে বাজার সংশ্লিষ্ট বলছেন, রমজানের আগে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্যের দাম ক্রয় ক্ষমতার ভিতরে না আনলে নি¤œ আয়ের মানুষের কষ্টের ও দু:খের শেষ থাকবে না। তাই আমরা মনে করি রমজান মাসে প্রতনিয়ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বাজার মনিটরিং করে দ্রব্যমুল্যের উর্দ্ধগতি ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখতে হবে।
মৌলভীবাজার ভোক্তা অধিদপ্তরের নির্বাহী পরিচালক আল আমিন জানান, পাইকারি বাজারে সবজি আসতে সময় নেওয়ায় দাম বাড়ছে। আরোও কিছুটা সবজির দাম বেড়েছে মূলত টানা বৃষ্টির কারণে। রমজানে বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে প্রতিদিন ভ্রাম্যমান আদালত পারিচালনা করা হবে।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: