সর্বশেষ আপডেট : ১১ মিনিট ১৫ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বৃটিশ আইনজীবীকে সরকার বেআইনিভাবে দেশে আসতে দেয় নাই : রিজভী

নিউজ ডেস্ক:: বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ বলেছেন, ‘১/১১-এর সময়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা কানাডিয়ান এবং বৃটিশ আইনজীবী নিয়োগ দিয়েছিলেন। তারা দেশে এসে পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বৃটিশ আইনজীবীকে সরকার বেআইনিভাবে দেশে আসতে দেয় নাই।’

এ সময় সরকারকে নিষ্ঠুর বলে মন্তব্য করেন তিনি।

উচ্চ আদালতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার শুনানি শেষে বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে নিজের পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন রুহুল কবীর রিজভী।

রিজভী বলেন, ‘সরকার অন্যায়ভাবে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জেলে ভরে রেখেছে। আজ এবং গতকাল যে মামলার শুনানি হলো, এতে বৃটিশ আইনজীবী কারলাইল অংশ নিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তাকে আসতে দেয়া হয়নি। ভিসা দেবে কি না, কিছুই বলা হয়নি। ৮ তারিখের (৮ মে) শুনানিতে অংশ নেয়ার জন্য এক সপ্তাহ আগে তিনি আবেদন করেছিলেন। উদ্ভট সব প্রশ্ন করা হয়েছে তাকে। বেআইনিভাবে তাকে আসতে দেয়া হয়নি।’

তিনি বলেন, ‘অথচ ১/১১-এর সময় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী কানাডিয়ান বৃটিশ আইনজীবী নিয়োগ দিয়েছিলেন। তারা দেশে এসে পরামর্শ দিয়েছিলেন। এই সরকার কী নিষ্ঠুর!

ন্যায় বিচারের জন্য সুপ্রিম কোর্টের প্রতি আস্থার কথা জানান তিনি। ‘সরকারের প্রতিহিংসার বহি:প্রকাশ হচ্ছে’ উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘সরকার চারদিকে মোসাহেব নিয়োগ দিয়েছে। নির্বাচন কমিশনেও তারা মোসাহেব নিয়োগ দিয়েছে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার প্রধানমন্ত্রীর অনুগত কেরানির মত কাজ করছেন। খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের কী পরিণতি হবে জানি না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সেখানে অভিযানের নামে দলের নেতাকর্মীদের বাড়িতে গিয়ে হয়রানি করছে। চেয়ারপারসনের নি:শর্ত মুক্তি দাবি ও সুচিকিৎসার দাবিতে ঘোষিত কর্মসূচিতে পুলিশ হামলা চালিয়েছে, মামলা দিয়েছে। আজ দলের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ ইসলাম অমিতকে গ্রেফতার করেছে।’

বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ড্যাব নেতা ডা. শামীমুল সোহানের ওপর হামলার ঘটনায় সরকারকে দায়ী করে রিজভী বলেন, ‘এটা একটা লোমহর্ষক ঘটনা, বেদনাদায়ক ঘটনা। তার (ডা. শামীমুল) ৪২টি সেলাই লেগেছে।’

তিনি বলেন, ‘আজকে সরকারি চাকরিজীবীরাও নিরাপদ নয়। সরকারের দুস্কৃতিকারীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।’

এ ঘটনায় তিনি দোষীদের অবিলম্বের গ্রেফতারের দাবি জানান এবং সোহানের আশু চিকিৎসা কামনা করেন।

এ সময় বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: