সর্বশেষ আপডেট : ৫৫ মিনিট ৩১ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ঘণ্টার পর ঘণ্টা মালিকের অপেক্ষায় কুকুর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রীতিমত তারকা বনে গেছে কুকুরটি। জনপ্রিয় পিয়ার ভিডিও ওয়েবসাইটে কুকুরটির এক ভিডিও দেখা হয়েছে প্রায় এক কোটি বার। গত এপ্রিলেই এটি পোস্ট করা হয়।

এই কুকুরটির বৈশিষ্ট্য হলো সে তার মালিকের বাড়ি ফেরার জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে অপেক্ষা করে এবং এটাই তার প্রতিদিনের রুটিন।

চীনের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর চোংগিং এ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে। ভিডিওতে দেখা গেছে জিয়ংজিয়ং নামের কুকুরটি কোন কিছু দিয়ে বাঁধা নেই। কিন্তু তবুও সে বসে বসে মালিকের জন্য অপেক্ষা করে।

সে প্রতিদিন একটি সাবওয়ের মাথায় মাটিতে বসে থাকে এবং কমপক্ষে বারো ঘণ্টা ধরে তার মালিকের বাড়ি ফেরার জন্য অপেক্ষা করে। কুকুরটির মালিক তার নিজের নাম প্রকাশ করতে রাজী হননি। তবে তিনি জানিয়েছেন, গত আট বছর ধরে কুকুরটি তার সঙ্গে রয়েছে।

তিনি জানিয়েছেন, কুকুরটি সবসময়ই তার জন্য এভাবে অপেক্ষা করে। স্থানীয়রা অনেকেই বলেছেন কুকুরটি কারও জন্য কোন ধরনের হুমকিস্বরুপ আচরণ করেনা।

নিজ থেকে না দিলে সে কিছু খায়না। প্রতিদিন সাতটা বা আটটার দিকে তাকে দেখা যায় যখন তার মালিক কাজে যায়। এবং এরপর সে অপেক্ষা করে, একেবারেই খুশি মনে তাকে অপেক্ষা করতে দেখা যায়।

পিয়ার ভিডিওর তথ্য অনুযায়ী কুকুরটিকে এতো নিয়মিত দেখা যায় যে অনেকেই তার ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। আবার অনেকে এখন শুধু কুকুরটিকে দেখতেও ভিড় করছেন সেখানে। হাজার হাজার বার ভিডিও যেমন শেয়ার হচ্ছে তেমনি মন্তব্যও আসছে অসংখ্য। অনেকেই কুকুরটির আনুগত হওয়ার ধরণে বেজায় খুশি।

একজন বলেন, খুবই হৃদয় স্পর্শকারী বিষয়। তার কাছ থেকে আমরা নৈতিকতা শিখতে পারি। আবার অনেকে বিতর্ক তুলে বলছেন মালিকের উচিত কুকুরটির আরও যত্ন নেয়া। কেউ কেউ আবার উদ্বিগ্ন যে এতো নাম করে ফেলার কারণে কুকুরটি খারাপ মানুষদের হাতে ক্ষতির শিকার হতে পারে।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট বলছে জিয়ংজিয়ং আধুনিক সময়ের হাচিকো। ১৯২০ এর দশকে বিখ্যাত হওয়া একটি কুকুর ছিল হাচিকো যে তার মালিককে দেখার জন্য রেলস্টেশনে আসতো। প্রায় নয় বছর ধরে মালিকের মৃত্যু পর্যন্ত এটি সে নিয়মিত করে গেছে।

১৯ শতকে যুক্তরাজ্যেও এ ধরনের একটি ঘটনা বিখ্যাত হয়ে আছে। এডিনবার্গে ওই কুকুরের স্মরণে একটি মূর্তিও বানানো হয়েছে।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: