সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২১ মে, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সমাবেশ-র‌্যালি হলো না, সংবাদ সম্মেলনই করল শ্রমিক দল

নিউজ ডেস্ক:: মে দিবস উপলক্ষে প্রথমে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে চেয়েছিল বিএনপি। সেখানে পুলিশের অনুমতি না পাওয়ায় নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের নিচ থেকে শান্তিনগর ফ্লাইওভার পর্যন্ত র‌্যালি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। তাতেও পুলিশের অনুমতি মেলেনি। শেষে কার্যালয়ের তৃতীয় তলায় সংবাদ সম্মেলন করেই মে দিবস পালন করলো বিএনপির অঙ্গসহযোগী সংগঠন জাতীয়াতাবদী শ্রমিক দল।

প্রথমে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে চায় তারা। সেখানে পুলিশের অনুমতি না পাওয়ায় নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের নিচ থেকে শান্তিনগর ফ্লাইওভার পর্যন্ত র‌্যালি করার সিদ্ধান্ত নেয়। তাতেও পুলিশের অনুমতি মেলেনি। পরবর্তীতে তারা বিএনপি কার্যালয়ের তৃতীয় তলায় সংবাদ সম্মেলন করে; যা কার্যত আলোচনা সভায় পরিণত হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে অনুষ্ঠিত এই সংবাদ সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন শ্রমিক দলের প্রধান উপদেষ্টা বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। অন্যদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ, শ্রমিক দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. আনোয়ার হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নাসিম বক্তব্য দেন।

সরকারের কঠোর সমালোচনা করে নজরুল ইসলাম খান তার বক্তব্যে বলেন, ‘আমরা তো আন্তর্জাতিক ট্রেড ইউনিয়নের সদস্য। এটার সদস্য হিসেবে নিশ্চয়ই আমরা কখন কোন প্রোগ্রাম করি এটা তাদের জানাতে হয়। এইবার যে আমরা পারলাম না বা কেন পারলাম না এটাও জানাতে হবে। আমরা বিশ্বাস করি এ ব্যাপারে তারা নিশ্চয়ই তাদের অবস্থান ব্যক্ত করবে যা আমাদের দেশের জন্য মর্যাদার ব্যাপার হবে না।’

তিনি বলেন, ‘এই সরকার নির্বাচিত নয়, এই সরকার জনগণের বন্ধুপ্রতীম না। তারা শ্রমজীবী মানুষের বন্ধুপ্রতীম না। তারপরেও এই সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন আমরাই করতে চাই জনগণকে সঙ্গে নিয়ে। বিদেশিরা কেউ এ ব্যাপারে খবরদারি করুক আমরা চাই না। কিন্তু সরকার এমন সব আচরণ করছে যেসব আচরণে আন্তর্জাতিক নিয়মনীতি লঙ্ঘিত হচ্ছে যার ফলে অনিবার্যভাবে আন্তর্জাতিক প্রতিবাদের সম্মুখীন হতে হবে সরকারকে।’

সরকারবিরোধী এই নেতা বলেন,‘আজকে বাংলাদেশে শ্রমিক আন্দোলনকে নিস্তব্ধ করার জন্য মে দিবসকে বেছে নেয়া হলো। বাংলাদেশের আজকে সবাই মে দিবস উদযাপন করছে রাষ্ট্রীয়ভাবে। প্রধানমন্ত্রী দেশের বাইরে ছিলেন সেটার জন্য রাষ্ট্রপতি সেখানে বক্তব্য রাখবেন। শ্রমমন্ত্রীর নেতৃত্বে মিছিল হয়েছে। সব শ্রমিক সংগঠন মিছিল করছে, মিটিং করছে, করতে পারবে না শুধু জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল। কী অপরাধ? অপরাধ হলো শ্রমিক দল শহীদ জিয়ার আদর্শে উদ্দীপ্ত বেগম জিয়ার খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ এবং এই সংগঠনটি শ্রমজীবী মানুষের আদর্শে আদর্শিত।’

তিনি বলেন, ‘শ্রমিক দল সব ধরনের নিয়মনীতি অনুসরণ করে সমাবেশ করার অনুমতি চাওয়া হয়েছিল, তারপরও কেন অনুমতি দেয়া হলো না? সরকারবিরোধী সংগঠনগুলোর প্রতি বিমাতাসুলভ আচরণ করছে।

শ্রমিক দলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল মে দিবসের কর্মসূচি সারাদেশেই করছে। কিছু জায়গায় বাধা দেয়া হচ্ছে। গত বছর আমরা এই নয়াপল্টন থেকে মিছিল করেছি, তার আগের বছর সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করেছি, কিন্তু এবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেও জনসভা করতে দেয়া হলো না, র‌্যালিও করতে দেয়া হলো না।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: