সর্বশেষ আপডেট : ৪৩ মিনিট ৫৯ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ১৭ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শাহরুখ নন, আসল বাজিগর তো আমাদের সাকিব!

খেলাধুলা ডেস্ক::
নিজেকে যেন নতুন করে চেনাচ্ছেন বিশ্বসেরা অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এবার আইপিএল মঞ্চে শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলছেন। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং তিন ক্ষেত্রেই ভালো খেলে নিজের দল হায়দরাবাদের জয়ে অবদান রেখে চলেছেন। প্রতিদানে দলের প্রতিটি ম্যাচেই মাঠে রাখা হচ্ছে আমাদের সাকিবকে। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন, টিম ম্যানেজমেন্টের অন্যতম সদস্য লঙ্কান কিংবদন্তি মুত্তিয়া মুরালিধরন এমনকি দলের প্রধান কোচ টম মুডিও উদারভাবে তাকে সমর্থন দিচ্ছেন। সুযোগ পেলেই তাকে প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন মুরালি আর কেন উইলিয়ামস।

শুরু থেকেই সাকিবকে যোগ্য সম্মান দিয়েছে হায়দরাবাদ। এ মাসের গোড়ার দিকে সাকিব যখন দলের অনুশীলনে প্রথম যোগ দেন তখন তাকে নিয়ে হায়দরাবাদ লিখেছে, ‘অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান যোগ দিয়েছেন দলে। তার প্রথম ম্যাচ দেখতে অধীর অপেক্ষায়।’ সেদিনই হায়দরাবাদ তাদের আরেকটি পোস্টে লিখেছিল, ‘২০১৮ আইপিএলে আমাদের তারকা সাকিব ব্যাট ও বল হাতে জ্বলে উঠতে তৈরি। আপনি তৈরি তো?’

উত্তরে হায়দরাবাদকে সমর্থন করার আহ্বান জানিয়ে সাকিব বলেছিলেন, ‘আমি মনে করি, আমরা এমন একটি দল, যারা শিরোপা জেতার জন্যই খেলব। অবশ্যই এটি একটি লম্বা টুর্নামেন্ট। সবাইকে ফিট থাকতে হবে এবং ছন্দে থেকে শেষ পর্যন্ত খেলতে হবে। যেভাবে সমর্থন দিচ্ছেন, সেভাবেই দিতে থাকুন। আশা করি, আপনাদের জন্য গৌরব বয়ে আনতে পারব।’

অথচ কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলার সময় তাকে সেভাবে সুযোগই দেয়া হয়নি। গতবছরের আইপিএলে মাত্র একটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পান সাকিব। ৩ ওভারে ৩১ আর ব্যাট হাতে অপরাজিত ১ রানেই শেষ তার ২০১৭ আইপিএল অধ্যায়। এরপর তো ম্যাচের পর ম্যাচ সাইডবেঞ্চে বসিয়ে রাখা হয়েছিল বাংলাদেশের অন্যতম সেরা এই খেলোয়ারকে। এ নিয়ে তখন দেশের অনেক ক্রীড়ামোদি ও সমর্থকদের ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে। এবার তো কলকাতা তাকে ছেড়েই দিয়েছে।

শাহরুখ আর জুহি চাওলার দল যে তাকে ছেড়ে দিয়েছে, এতে বরং শাপে বর হয়েছে; হায়দরাবাদের হয়ে দুর্দান্ত খেলে চলেছেন সাকিব। এখন যেন আরও শানিত আর ক্ষুরধার হয়ে ওঠেছে তার বোলিং। আর মাঠে তার অ্যাপিয়ারেন্সের কথা তো না লিখলেই নয়। গত বৃহস্পতিবার কিংস ইলিভেনস পাঞ্জাবের মায়াঙ্ক আগারওয়ালকে দিয়ে কী উদ্‌যাপনটাই না করলেন! মুষ্টিবদ্ধ হাতে আগ্রাসী চেহারায় যেন হুংকার ছুড়লেন। তখন তার মাথা থেকে ঝরে পড়া ঘামের বিন্দুগুলোকে মনে হচ্ছিল যেন এক একটা আগুনের জলকণা!

আইপিএলে এই সাকিবকে দেখে তার ভক্তরা তো মহাখুশি। এবার সাকিব যেন ফিরিয়ে আনছেন আইপিএলের আট বছর আগের স্মৃতি। ২০১৪ সালে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে ১৩ ম্যাচ খেলে নিয়েছিলেন ২২৭ রান ও ১১ উইকেট। তার এই পারফরমেন্স শাহরুখের দল নাইট রাইডার্সকে শিরোপা জিততে ব্যাপক সহায়তা করেছিল।

কিন্তু ব্যবসায়ী শাহরুখ কি সে কথা মনে রেখেছেন? তিনি ও তার দল সাকিবকে দিনের পর দিন করে গেছেন অবহেলা আর অবজ্ঞা। তারা যেন ভুলেই গিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সবচেয়ে উজ্জ্বল নক্ষত্র এই সাকিব। সাকিবের কারণেই বাংলাদেশ জিতেছে কত না গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। তার কল্যাণে ভারত, অস্ট্রেলিয়াসহ বিশ্বের কত সেরা দলকে হেসে খেলে হারিয়েছে টাইগাররা।

এতদিন পর মাঠে কলকাতার সেই অবজ্ঞার জবাবই যেন দিচ্ছেন সাকিব। নিজের পারফরমেন্স আর অভিব্যক্তি দিয়ে যেন বুঝিয়ে দিচ্ছেন, ‘দেখ, আমি তো এই সাকিব। আমি ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলতে পারি। আমার যোগ্যতা তোমরা উপলব্ধি করতে পারনি এটা তোমাদের ব্যর্থতা, আমার নয়।’

শাহরুখ খান ভালো অভিনেতা হতে পারেন, ব্যবসাতেও তিনি যথেষ্ট পাকা। কিন্তু তিনি ও তার দল এই টাইগারের ক্ষমতাটা বুঝতে পারেননি। বুঝতে পারেননি সাকিবের মত একজন খেলোয়ারকে দিনের পর দিন সাইড বেঞ্চে বসিয়ে রাখলে তার মনের অবস্থা কি হতে পারে, কতটা চাপ পড়তে পারে তার খেলায়। কিন্তু এবার সাকিব ঠিকই তাদের বুঝিয়ে দিচ্ছে নিজের ক্ষমতাটা। কোনো কথা না বলে এভাবে পারফরমেন্স দিয়ে নিজের অপমানের জবাব দেবার সাহস আর কার আছে, সাকিব ছাড়া!

তাই শাহরুখ নন, আসল বাজিগর তো আমাদের সাকিব আল হাসান।

সাকিবের এই রূপ কি আগে দেখেছেন?

 

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: