সর্বশেষ আপডেট : ৩০ মিনিট ১২ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বৈশাখে রঙিন তারকারা

বিনোদন ডেস্ক:: বাংলা নববর্ষের হাওয়াও মেতেছে সবাই। বিদায় নিল ১৪২৪ সাল। জীর্ণ, পুরাতন সব মুছে দিয়ে প্রাণে নতুনের আলো জ্বালাতে এবার এলো নতুন বাংলা বছর ১৪২৫। নতুন দিনের আলোয় উদ্ভাসিত সবার মুখ। পান্তা ইলিশ খাওয়ার ধুমও পড়েছে। খুশির আমেজ ছড়ানো এই দিনে রঙে রঙে সেজে উঠেছে চার পাশ। এভাবেই একটি বছর পেরিয়ে আরেকটি বছর আসে। আমরা তাকে বরণ করে নিই। পহেলা বৈশাখ শব্দটি শুনলেই যেনো রঙ ছড়িয়ে পড়ে মনে। নতুন বছর নিয়ে কথা হলো এক ঝাঁক তারকার সাথে। তার বলেছেন তাদের বৈশাখে স্মৃতি ও ভাবনার কথা। তুলে ধরা হলো তারকাদের রঙ ছড়ানো বৈশাখী আলাপ। চলুন দেখে নিই বৈশাখ নিয়ে কী বললেন তারকারা।

পরীমনি : আমার এবারের বৈশাখ স্বপ্নজালময়। স্বপ্নজাল আমার কাছে একটা আয়নার মতো। আমি এই ছবিটার মধ্যে আমাকে দেখতে পাই। এমন ভাবে এই ছবির চরিত্র শুভ্রা আমার ভেতরে ভর করেছে। এই চরিত্রটির মধ্যে থেকে বের হতে ইচ্ছে করছে না। আমার শিল্পী স্বত্বাকে এই চরিত্রটির মধ্যে খুঁজে পেয়েছি। আমার অভিনয় জীবনের সেরা ছবি হয়ে থাকবে এটি। আমাকে এই ছবির নির্মাতা গিয়াস উদ্দিন সেলিম ভাই এই ছবিটিতে অভিনয়ের সুযোগ দিয়েছেন এই জন্য তার কাছে আমি চিরদিন কৃতজ্ঞ থাকবো। ছবিটি এবারের বৈশাখকে আরও বেশি রাঙিয়ে দিয়েছে।

ভাবনা : প্রতি বছরই অনেক প্রোগাম থাকে এই দিনে। নাট্যপ্রযোজক আলী বশীর নিজ উদ্যোগে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন এখানে যাচ্ছি। মিডিয়ার অনেকেই আসেন সেখানে। সবার সঙ্গে দেখা হয় আড্ডা হয়। অনেক ভালো লাগে। প্রতি বছরেই এই দিনটি আসে। বাঙালীর এই উৎসবটি আমাদের রাঙিয়ে দিয়ে যায়। আমরা আসলে ইংরেজী তারিখ দেখে চলি। ছোটবেলা থেকেই এটা আমাদের অভ্যেস হয়ে গেছে। আমাদের স্কুল কলেজ, অফিস সব কিছুই এই নিয়মে চলে। হয় তো বাংলা তারিখ অনুসরণ করা হলে আমরা সেই নিয়মে অভ্যস্ত হতাম।

চঞ্চল চৌধুরী : বাঙালি হিসেবে আর দশটা মানুষের মতো আমিও বৈশাখটাকে ঠিক তেমনভাবেই উপভোগ করি। বিশেষ করে পহেলা বৈশাখ দিনটাকে। এই একটা দিনই তো আমরা সবাই মিলে একই রঙে, একই আমেজে কাটাতে পারি। একই ময়দানে আমরা সবাই হাজির হই। মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন থেকে শুরু করে একই দিনে যত ধরনের আয়োজন হয় সব আয়োজনই আমরা একসঙ্গে আনন্দ-ফুর্তিতে কাটাই। এই দিনটি শুধু আমারই নয়। আমি মনে করি আমাদেও দেশের প্রতিটা মানুষের জন্যই এই দিনটি আলাদা ভাবে ভালো লাগার একটি দিন। চলুন সবাই মেতে উঠি বৈশাখী উৎসবে। সবার মনে লাগুগ বৈশাখের রঙ। আর এই রঙে রঙিন হয়ে কেটে যাক আগামীর দিনগুলো।

ফাহমিদা নবী : পহেলা বৈশাখের আগে নানারকম পরিকল্পনা করতাম আমরা। আমি, সোমা, পঞ্চম আর অন্তরা সবাই মিলে মোহাম্মদপুরের বাসা থেকে রিকশা করে রমনায় যেতাম। খুব সকালে আম্মা সবাইকে সাজিয়ে দিতেন। আমাদের দলের নেতৃত্ব দিতেন খালারা। রমনা গিয়ে দেখতাম বাবার সব সহকর্মী সেখানে হাজির। তারা গান করবেন। তাদের গানগুলো তো আমাদের ঠোঁটস্থ থাকত। আমরা তাদের সঙ্গে গলা মেলাতাম। ফেরার পথে আমি নাগরদোলা চড়ব বলে বায়না করতাম। এখনও মেলায় গেলে নাগরদোলায় চড়ি। এখন মেলায় যাবার সুযোগ নেই। নানা অনুষ্ঠানে যেতে হয়। নানা অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে হয়।

কনা : বৈশাখ আমার পছন্দের একটি সময়। পহেলা বৈশাখ আমার কাছে সব সময়ই অন্যরকম তার কারন হলো পরের দিনই আমার জন্মদিন। এই কারণে ছোটবেলা থেকে এই দিনটি বিশেষ আমার জন্য। আর আমার কাছে মনে হয় বাংলাদেশে যতোগুলো উৎসব হয় ঈদের পরেই সবচেয়ে বেশি উপভোগ করি বৈশাখী উৎসবটা। কারন পহেলা বৈশাখে বাংলাদেশের সব মানুষ একই উৎসবে মেতে ওঠে। ঈদের সময় সেটা শুধু মুসলিমরা উৎযাপন করে। পূজা হিন্দু ধর্মের মানুষরা উৎযাপন করে। পহেলা বৈশাখ সবাই এক সঙ্গে উৎযাপন করে। বৈশাখে নতুন গান আসে। সব মিলিয়ে ভালোই কাটছে দিনটি। আর কালকের দিনটির জন্য অপেক্ষা করছি। রাত পার হলেই তো জন্মদিন আমার।

কোনাল : বৈশাখ কাটবে বৈশাখী হাওয়ায় মেতে। এই দিনটা আমার কাছে অন্যরকম ভালো লাগার। কনসার্ট থাকে ছোট ছোট শো থাকে। সবার সাথে দেখা করি। প্রতিবার যেমন হয় এই বৈশাখও তেমন ভালো কাটবে। ঝড় বৃষ্টির মাঝ খানে অনেক গরমের মধ্যে পহেলা বৈশাখকে মনে হয় একটুকরো রঙ। আর এই বৈশাখে নতুন কোনো গান প্রকাশ হচ্ছে না আমার। তবে গানের সঙ্গেই থাকা হবে দিনটিতে। প্রিয় মানুষদের সঙ্গে বৈশাখে আনন্দে মেতে উঠতে কার না ভালো লাগে। বৈশাখের শুভেচ্ছা জানায় দেশের প্রতিটা মানুষকে। ভালোবাসার রঙে রেঙে উঠুক সবার প্রতিটা দিন।

দেবলিনা সুর : বৈশাখ আসার কয়েক দিন আগে থেকেই শুরু হয়ে যায় এই দিনটির প্রস্তুতি। আমাদের দেশে অনেক আয়োজন হয় এই দিনটিতে। রঙে রঙে সেজে ওঠে চারপাশ। সারা দেশে নানা আয়োজন হয় যেমন তেমন টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতেও অনেক অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা করা হয়। সে কেন্দ্রিক কিছু ব্যস্ততা নিয়েই দিন কাটছে। আর এবারের বৈশাখে আমার একটি গান প্রকাশ হয়েছে শ্রোতাদের জন্য। বিপ্লব সাহার সঙ্গে গাওয়া ‘সেদিন দুজনে’ গানটির মিউজিক ভিডিও বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে প্রকাশ হয়েছে। এই ভিডিওতে মডেল হয়েছেন চিত্রনায়ক শিপন এবং মডেল নিশাত। মিউজিক ভিডিওটি পরিচালনা করেছেন মনজু আহমেদ। এর আগে আমার কথা ও সুরে আমার কণ্ঠেই একটি বৈশাখের গান শুনেছেন সবাই।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: