সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

গুজব-প্রচারেও সেরা ভরসা শাকিব খান

বিনোদন ডেস্ক:: ইন্ডাস্ট্রির সেরা নায়ক শাকিব খান। তাকে ঘিরে এখানে নিশ্চিন্তে টাকা লগ্নি হয়। সাম্প্রতিক সময়টাতে তিনি কলকাতার প্রযোজক-পরিচালকদেরও আস্থা অর্জন করেছেন। নিজেদের বাজারে বাণিজ্যিক ঘরানার ছবি নিয়ে ভুগতে থাকা টালিউড বাংলাদেশি বাজার ধরতে শাকিব খানকে করেছেন তুরুপের তাস। শাকিব খানকে তাই দুই বাংলার সেরা নায়কদের অন্যতম বলা চলে।

তাই শাকিবকে ঘিরে আলোচনাও বেশি, সমালোচনাও বেশি। অতি সম্প্রতি যোগ হয়েছে শাকিবের নামের আড়ালে প্রচারের প্রতিযোগিতা। সেইসব প্রচারের বেশিরভাগই গুজবে ভরা।

গেল কয়েক বছর ধরেই শাকিবের নাম ব্যবহার করে আলোচনায় আসার চেষ্টা করেছেন অনেক প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান, পরিচালক। শুধু তাই নয়, আলোচনায় আসতে অনেক নবাগত নায়িকার নামও জড়িয়েছে শাকিব খানের বিপরীতে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এইসব খবর-প্রচারের নব্বই ভাগেরই কোনো সত্যতা মেলেনি।

শাকিব খানকে নিয়ে একের পর এক ছবি ঘোষণা দিয়ে রাতারাতি আলোচনায় এসেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া। এক বছরের ব্যবধানে এক ডজনেরও বেশি সিনেমা ঘোষণা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি শাকিবকে নায়ক করে। তবে মুক্তি পেয়েছে কেবল ‘আমি নেতা হবো’ নামের একটি ছবি।

এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের হয়েই রাহা তানহা খান, মৌমাছি তানহা, মিষ্টি জান্নাতসহ আরও বেশ ক’জন নবাগতার নাম শোনা গেছে শাকিবের নায়িকা হিসেবে। রাতারাতি আলোচনায় এসেছেন এইসব নায়িকারা। কিন্তু শেষাবধি কোনো নায়িকাই স্বপ্নের নায়কের বিপরীতে কাজ করার স্বপ্ন পূরণ ঘটাতে পারেননি।

এবার আলোচনায় আসতে মিথ্যে প্রচার দেখা যাচ্ছে শাকিবের পারিশ্রমিককে কেন্দ্র করে। গেল বছরের মাঝামাঝিতে শোনা গিয়েছিলো ‘নোলক’ নামের একটি ছবিতে ৫০ লাখ টাকা পারিশ্রমিক নিচ্ছেন শাকিব খান। কিন্তু ছবিটির প্রযোজনার একটি সূত্র জানিয়েছিলো স্রেফ প্রচারের জন্যই এমন তথ্য বলা হয়েছে।

গেল মাসের শেষদিকে শোনা গিয়েছিলো ৬০ লাখ টাকায় ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হচ্ছেন শাকিব খান। তার কিছুদিন পর শোনা গেল ৬০ লাখ টাকা পারিশ্রমিক দিয়েও শাকিবের শিডিউল পেলেন না পরিচালক। কে সেই পরিচালকৈ? গুজব প্রচারে খবর এসেছে গেল বছরের ব্যবসা সফল ছবি ‘ঢাকা অ্যাটাক’খ্যাত নির্মাতা দীপংকর দীপন তার নতুন ছবিতে শাকিবকে পেতে ৬০ লাখ টাকা প্রস্তাব করেছিলেন।

কিন্তু এখানেও দেখা গেল তথ্য বিভ্রাট। পরিচালক দীপংকর দীপন বলেন, ‘ব্যাপারটা মোটেও এমন ছিলো না। আমার নতুন ছবিটি নিয়ে শাকিব খানের সঙ্গে আলোচনা হয়েছিলো। গল্পটি বেশ পছন্দ করেছিলেন তিনি। কিন্তু আমার যখন শিডিউল প্রয়োজন তখন তার অনেক ব্যস্ততা। শিডিউল জটিলতা থাকায় তার সঙ্গে আর কাজটি করা হয়ে উঠেনি। পারিশ্রমিক নিয়ে আলাপের সুযোগই আসেনি। চুক্তি না হওয়া পর্যন্ত পারিশ্রমিক নিয়ে কথা হওয়া ঠিক নয়। আমি জানিনা এই তথ্য কোথা থেকে ছড়িয়েছে। আমি কাউকে পারিশ্রমিক নিয়ে কোনো কথাই বলিনি, শাকিব খানেরও এত সময় আছে বলে মনে করি না।’

তিনি আরও বলেন, ‘যারা বলছেন বা লিখছেন তারা হয়তো নিজেদের আলোচনায় রাখতেই এমনটা করছেন। আমাকে শিডিউল দিচ্ছেন না শাকিব খান- এটা বাজে প্রচার। তার সঙ্গে আলাপ এখনো শেষ হয়ে যায়নি। তিনি এ যাত্রায় দেশে ফিরলে আবারও আলোচনা হবে। আর আমি একজন সিনেমা নির্মাতা হিসেবে যদি দেখি আমার ছবিতে কাউকে লাগবেই তাকে পেতে আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো। এখানে পারিশ্রমিকের প্রচারের চেয়ে নির্মাতার আগ্রহটাকেই প্রাধান্য দেয়া উচিত। তাছাড়া আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে কত টাকা বাজেটের ছবি হয় সেটাও মাথায় রাখা উচিত।’

এবার প্রচার হচ্ছে জাজ মাল্টিমিডিয়ার একটি ছবিতে ৭০ লাখ টাকা পারিশ্রমিক নিতে যাচ্ছেন শাকিব খান। কিন্তু খোঁজ নিয়ে এই তথ্যেরও সত্যতা পাওয়া যায়নি। কেবল জানা গেল, জাজ একক প্রযোজনায় মুক্তিযুদ্ধের গল্প নিয়ে একটি ছবি করতে যাচ্ছে। এর গল্প ভাবনা জাজ প্রধান আব্দুল আজিজের। এখানে প্রধান চরিত্রটির জন্য ভাবা হচ্ছে শাকিব খানকে। এটি পরিচালনা করবেন কলকাতার রাজ চক্রবর্তী।

প্রযোজনা সূত্রে জানা গেল, ছবিটির জন্য ঢালাও শিডিউল দরকার শাকিবের। আর তার জন্যই জাজ চাইছে একটু মোটা পারিশ্রমিক দিয়ে হলেও শাকিবকে ছবিটিতে চুক্তি করাতে। কিন্তু সেটা ৪০-এর কোটা পার হবার সম্ভাবনাও নেই। ৭০ লাখ একজনের পারিশ্রমিক হলে সেই ছবির বাজেট গিয়ে ঠেকবে ২ কোটিরও উপরে। এমন বাজেটের ছবি নির্মাণের পরিবেশ ঢালিউডে বর্তমানে নেই।

চলচ্চিত্রবোদ্ধারা মনে করেন, চারপাশে এখন কাজের লোকের চেয়ে অতি উৎসাহি বেশি। তারাই এইসব ছড়ায়। কেউ সিনেমা করতে আসলেই শাকিবের নাম নিয়ে নিজেদের আলোচনায় নিয়ে আসছে। কোনো নতুন মেয়ে সিনেমা করতে চাইলেই সে কৌশলে নিজেকে শাকিবের নামের সঙ্গে জড়িয়ে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করছে। এইসব প্রচারের চক্করে তাল মেলায় শাকিব খানকে অনেকবারই বিড়ম্বনার মুখে পড়তে হয়েছে।

শাকিব খানের একক উত্থানের পর তার জনপ্রিয়তাকে পূঁজি করে অনেকেই অনেক দিক থেকে লাভবান হয়েছেন। শাকিব নিজেও জানেন না এমন অনেক কিছুই প্রচার হয়েছে তাকে ঘিরে। যখন জানতে পেরেছেন তখন এইসব নিয়ে আপত্তি করেছেন। হয়তো দামি নায়ক বানানোর এইসব অবান্তর তথ্য-গুজবের প্রতিক্রিয়াও দেখাবেন তিনি।

এদিকে বর্তমানে শাকিব খান ব্যস্ত রয়েছেন ‘ভাইজান এলো রে’সহ বেশ কিছু ছবির শুটিং নিয়ে। আর আসছে ২৭ এপ্রিল মুক্তি পেতে যাচ্ছে তার নতুন ছবি ‘চালবাজ’। সাফটা চুক্তিতে আসতে যাওয়া ছবিটিতে শাকিবের নায়িকা কলকাতার শুভশ্রী গাঙ্গুলি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: