সর্বশেষ আপডেট : ২৯ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সংস্কৃতি যত ছড়াবে মানুষের মন তত আনন্দিত হবে: সনজীদা খাতুন

নিউজ ডেস্ক::
‘সংস্কৃতি যত ছড়াবে মানুষের মন তত আনন্দিত হবে। সংস্কৃতির সঙ্গে সৌন্দর্যের একটি যোগসূত্র রয়েছে। আমরা যদি সেটাকে মানুষের মনে প্রতিষ্ঠিত করতে পারি তাহলে মানুষ হত্যা, জঙ্গিবাদ, অন্যায় ও প্রতারণা থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারে।’ বাংলা নববর্ষ বরণের প্রাক্কালে শুক্রবার ছায়ানটে প্রাক-প্রস্তুতি পর্বে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘এই প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে অনেকটা অবহিত নয়। তাদের কাছে মুক্তিযুদ্ধের কথা তুলে ধরা দরকার। তারা যদি এটা না জানে তাহলে তারা দেশের জন্য ভালোবাসা অনুভব করবে না। আমরা চাই, দেশের মানুষ সংস্কৃতিবান হোক। কেবল কিছু মঞ্চ সাজিয়ে অনুষ্ঠান করলে তাতে কেবল নিজেরা আনন্দিত হওয়া ছাড়া কিছু হয় না। তাতে মানুষের মনে খুব দীর্ঘ ছাপও পড়ে না। সাংস্কৃতিক কার্যক্রমকে ধরে রাখতে হবে, চর্চা করতে হবে, সারা বছর ধরে এর পরিচালনা করতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা গ্রামের দিকে একেবারে যেতে পারিনি। এটা যে আমাদের অনেক বড় ভুল! এটার সংশোধনের কোনো পথও আমরা দেখিনি।’

স্বাধীনতার সাড়ে চার দশক পরে এসে তরুণদের বড় অংশই মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে ‘জানে না’ বলে মনে করেন স্বাধীনতা সংগ্রামসহ এদেশের সব প্রগতিশীল আন্দোলনের কর্মী সনজীদা খাতুন। পাকিস্তানের সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে জাতীয় জাগরণ গড়ে তুলতে ষাটের দশকে যে সংস্কৃতিকর্মীরা সাংস্কৃতিক সংগঠন ছায়ানট গড়ে তুলেছিলেন তাদেরই একজন সনজীদা খাতুন। ওই ছায়ানটের উদ্যোগেই ১৯৬৭ সালে রমনার বটমূলে হয় প্রথম বর্ষবরণের অনুষ্ঠান।







নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: