সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কার্ডে কেনাকাটায় ছাড়ের হিড়িক

নিউজ ডেস্ক:: বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। বাংলা বছরের প্রথম দিনটি আনন্দ-উল্লাসে কাটাতে চলছে জোর প্রস্তুতি। লেগেছে কেনাবেচার ধুম। নববর্ষের এ আনন্দ আরও বাড়িয়ে দিতে ব্যাংকগুলোও ডেবিট-ক্রেডিট কার্ডের গ্রাহকদের জন্য দিয়েছে আকর্ষণীয় বৈশাখী অফার। কার্ডে বিল পরিশোধ করলেই মিলছে একটি কিনলে আরেকটি ফ্রিসহ ৫০ শতাংশ পর্যন্ত নগদ মূল্যছাড়।

দেশীয় ফ্যাশন হাউস আড়ং, দেশীদশ, নিপুণ, কে-ক্র্যাফট, অন্যমেলা, আবর্তন, বাংলার মেলা, বিশ্বরঙ, দর্জিবাড়ি, অঞ্জনস, রঙ, সাদাকালো, বিবিয়ানা এবং নগরদোলাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকরা কেনাকাটায় ১০ থেকে ২০ শতাংশ ডিসকাউন্ট উপভোগ করতে পারছেন। মোবাইল ব্যাংকিংয়েও চলছে নানান ক্যাশব্যাক অফার।

অফার সম্পর্কে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের (ইউসিবি) কার্ড ডিভিশনের প্রধান নেহাল এ হুদা বলেন, বাঙালির প্রাণের উৎসব বৈশাখ উপলক্ষে ইউসিবি কার্ডহোল্ডারদের ১০ থেকে ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত নগদ ছাড় দিচ্ছে। সঙ্গে একটি পণ্য কিনলে একটি ফ্রি অফারও রয়েছে। এছাড়া ওয়েস্টিন, রেডিসন ব্লু, আমারি ঢাকাসহ নামিদামি বেশকিছু হোটেলে রয়েছে বিশেষ মূল্যছাড়। উৎসবকে কেন্দ্র করে কার্ডে অফার দেয়ার মূল্য উদ্দেশ্য পণ্যের প্রচার। পাশাপাশি ডিজিটাল ক্যাশলেস লেনদেনে গ্রাহককে উৎসাহ দেয়া। এতে বেশ সাড়াও পাওয়া যাচ্ছে বলে জানান ইউসিবির এ কর্মকর্তা।

ব্যাংকগুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বৈশাখী কেনাকাটায় ক্রেতাদের নগদ মূল্যছাড়ের পাশাপাশি আকর্ষণীয় অফার দেয়া হচ্ছে। সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিয়েছে প্রতিষ্ঠানগুলো। এর মধ্যে বেসরকারি ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড (ইবিএল) তাদের বিভিন্ন ধরনের কার্ডের গ্রাহকদের জন্য ৭ থেকে ৫০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে। স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক তাদের ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে দেশীয় পোশাকের কয়েকটি ব্র্যান্ডে কেনাকাটায় ১০ থেকে ১৫ শতাংশ ছাড় দিয়েছে।

দ্য সিটি ব্যাংক তাদের আমেরিকান এক্সপ্রেস কার্ডের গ্রাহকদের জন্য ৩৬ শতাংশ ছাড়ের অফার দিয়েছে। ২৫ শতাংশ ছাড় রয়েছে খাবার-দাবারের বিলে। ঢাকা ব্যাংক দিয়েছে ৭ থেকে ২২ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়।

মিডল্যান্ড ব্যাংক ঘোষণা দিয়েছে, তাদের ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের আসবাব, ইলেকট্রনিক্স ও গৃহস্থালির পণ্য কিনলে আগামী ২৪ মাস বিনা সুদে তা পরিশোধ করা যাবে। একই ধরনের অফার দিয়েছে যমুনা ব্যাংক।

ব্র্যাক ব্যাংক তাদের সব কার্ডধারীর জন্য ৬৩টি ফ্যাশন হাউসের সব ধরনের কাপড়ের ওপর ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়, ৩২টি রেস্টুরেন্টে খাবারের ওপর ২০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে। মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক দিচ্ছে ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়। সাউথইস্ট ব্যাংক তাদের ক্রেডিট কার্ডের গ্রাহকদের জন্য দেশের জনপ্রিয় ৩৪টি ফ্যাশন হাউসে কেনাকাটায় ৩৪ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যছাড়ের অফার দিয়েছে। এছাড়া ১১টি হোটেল ও রেস্তোরাঁতে একটি কিনলে আরেকটি ফ্রি অফার দিয়েছে।

এদিকে আর্থিকপ্রতিষ্ঠান লংকাবাংলা তাদের ভিসা ও মাস্টার কার্ডে ২৫ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে। দেশের নামকরা সব ফ্যাশন হাউসসহ অর্ধশতাধিক ফ্যাশন হাউসে ছাড়ের সুবিধা পাবেন কার্ডের গ্রাহকরা। এছাড়া স্থানীয় হোটেল-রেস্তোরাঁতে রয়েছে ছাড়ের ব্যবস্থা। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের আসবাব, ইলেকট্রনিক্স ও গৃহস্থালি পণ্য কেনাকাটায়ও এ সময় ছাড়ের অফার দিয়েছে কোনো কোনো ব্যাংক।

বৈশাখী কেনাকাটায় ক্যাশব্যাক অফার ঘোষণা করেছে ব্র্যাক ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশ। কেনাকাটার পেমেন্ট বিকাশে করলেই ২০ শতাংশ ক্যাশব্যাক ঘোষণা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

এদিকে কেনাকাটায় নগদ ছাড়ের অফার পেয়ে খুশি কার্ডহোল্ডাররা। ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের গ্রাহক আমেনা বেগম জানান, বাংলার মেলা থেকে দুই হাজার টাকার পণ্য কিনলাম, ২০০ টাকা ছাড় দিল। ভালোই হলো আমি জানতাম না এ অফারের কথা। কার্ডে পেমেন্ট করে ছাড় পেয়েছি। ভালোই লাগছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, দেশের ব্যাংকগুলোর মোট ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডধারীর সংখ্যা প্রায় এক কোটি ১৪ লাখ। এর মধ্যে ডেবিট কার্ড রয়েছে এক কোটি তিন লাখের মতো। ক্রেডিট কার্ড রয়েছে নয় লাখের কিছু বেশি। বাকি প্রায় দুই লাখ প্রিপেইড কার্ড। এছাড়া সক্রিয় মোবাইল ব্যাংকিংয়ের অ্যাকাউন্ট রয়েছে দুই কোটি ১০ লাখ।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: