সর্বশেষ আপডেট : ৭ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কোটা বাতিল

নিউজ ডেস্ক::
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের লাগাম টেনে ধরতেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব ধরনের কোটা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছেন বলে মনে করছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ের নেতারা। তাদের মতে, দুই দিন পরই পহেলা বৈশাখ—বাংলা নববর্ষ। তাই নতুন বছরকে বরণ করার অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে শাহবাগকে আন্দোলনকারীদের কাছ থেকে মুক্ত রাখতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এছাড়া সামনে জাতীয় নির্বাচন। তাই এই আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত হওয়ার সুযোগ না দিয়ে যেকোনো মূল্যে দেশের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে চায় সরকার।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ফারুক খান একটি গণমাধ্যমকে বলেনছেন, ‘এখন কোটা নেই, আর আন্দোলনও থাকার কথা নয়। আমি মনে করি, প্রধানমন্ত্রীর হাতে আর কোনো অপশন না থাকায় তিনি সব কোটা বাতিলের ঘোষণা দিয়ে উত্তম কাজটিই করেছেন।’

আওয়ামীগের কেন্দ্রীয় এক নেতা বলেন, ‘সরকার প্রধানের আশ্বাসের পরেও এই আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া মানেই হলো- শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে চক্রান্তকারী বিশেষ মহল ঢুকে পড়েছে। তাই ইস্যুটি নিয়ে বেশি দূর যাওয়ার সুযোগ কাউকে দিলেই সরকারকে বেকায়দায় পড়তে পারতো।তাই কাউকে সুযোগ না দিতেই এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে সরকার প্রধানকে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবউল আলম হানিফ বলেন, ‘কোটা সংস্কারের বিষয়টি দেখা হবে বলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করেছেন। কিন্তু আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা কোটা সংস্কারের আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন। এখন প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষণা ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল বলে মনে করি না।’

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক: লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: