সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ১ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘নীল চাঁদোয়ার নীচে’ কাব্যগ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব

মানুষের চিন্তা-চেতনা, সমকালীন সমাজ, সংস্কৃতি, মানুষের সার্বজনীন আশা-আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটেছে ‘নীল চাঁদোয়ার নীচে’ কাব্যের মধ্যে। সামাজিক মানুষের মূল্যবোধের অবক্ষয়, প্রেম-ভালোবাসা এবং অনাচার-অত্যাচারের প্রতি প্রচ- বিদ্রোহী মনোভাব কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ’র কাব্যমননে পুনর্জাগরণের স্ফুলিঙ্গ ছড়িয়ে দিয়েছে। প্রেম-ভালোবাসা, ইতিহাস-ঐতিহ্য এবং মানুষের চিরন্তন আদর্শের প্রকাশ সমকালীন কাব্যজগতে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে সমাসীন করেছে। জীবনবাস্তবতার বিচিত্র রুপ এঁকে কবি তাঁর কাব্যে দার্শনিক চেতনার উন্মেষ ঘটিয়েছেন যা আদর্শের প্রতিষ্ঠায় মাইলফলক ভূমিকা পালন করবে।

প্রকাশনা উৎসব উদ্যাপন কমিটি, সিলেট-এর উদ্যোগে দৈনিক জালালাবাদের সহকারী সম্পাদক কবি ও সাংবাদিক নিজাম উদ্দিন সালেহ’র ‘নীল চাঁদোয়ার নীচে’ কাব্যগ্রন্থের প্রকাশনা উৎসবে বক্তারা এ কথা বলেন।
বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ লে. কর্নেল (অব.) সৈয়দ আলী আহমদের সভাপতিত্বে গত বুধবার কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে আয়োজিত প্রকাশনা উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট স্টেশন ক্লাবের সভাপতি এডভোকেট এমাদুল্লাহ শহীদুল ইসলাম শাহিন, বিশিষ্ট কবি মুকুল চৌধুরী, দৈনিক কাজিরবাজার পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক সৈয়দ সুজাত আলী, সিলেট কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সহ সভাপতি গল্পকার সাংবাদিক সেলিম আউয়াল, দৈনিক জালালাবাদের নির্বাহী সম্পাদক আব্দুল কাদের তাপাদার, অনুভূতি ব্যক্ত করেন গ্রন্থের লেখক কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ এবং মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন সিলেট সরকারি তিব্বিয়া কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ডা. মাশুকুর রহমান।

এডভোকেট কবি আব্দুল মুকিত অপি ও সংস্কৃতিকর্মী ফাহমিদা খান ঊর্মির যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন এডভোকেট কবি কামাল তৈয়ব, অধ্যাপক কবি বাছিত ইবনে হাবীব, সাংবাদিক চৌধুরী আমিরুল হোসেন, কলামিস্ট বেলাল আহমদ চৌধুরী, মাসিক ভিন্নধারা সম্পাদক জাহেদুর রহমান চৌধুরী, প্রাবন্ধিক আহমদ মারুফ, দৈনিক শুভ প্রতিদিনের সাহিত্য সম্পাদক কবি খালেদ-উদ-দীন, সিলেট লেখিকা সংঘের সহ সভাপতি ইছমত হানিফা চৌধুরী, কবি ইশরাক জাহান জেলি, কবি এম. শহীদুজ্জামান চৌধুরী, সিলেট প্রেসক্লাবের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক খালেদ আহমদ, দৈনিক জালালাবাদের ফটো সাংবাদিক হুমায়ুন কবির লিটন। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক, জালালাবাদের চীফ রিপোর্টার আহবাব মুস্তফা খান, পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন কবি আব্দুল কাদির জীবন। কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ’র কাব্যগ্রন্থ থেকে কবিতা আবৃত্তি করেন আবৃত্তিশিল্পী সাইমুম আনজুম ইভান, সিদরাতুল মুনতাহা লামিয়া, জারিন তাসনীম অধরা এবং গান পরিবেশন করেন বেতারশিল্পী এম. রহমান ফারুক। অনুষ্ঠানের শেষে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন পা-ুলিপি প্রকাশনের স্বত্ত্বাধিকারি লেখক বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অধুনালুপ্ত দৈনিক সিলেট সমাচার, দৈনিক জালালাবাদীর সম্পাদক, প্রবীণ সাংবাদিক আব্দুল ওয়াহিদ খান, দৈনিক জালালাবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আজিজুল হক মানিকসহ সিলেটের সাহিত্য, সংষ্কৃতি অঙ্গনের ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির বলেন, কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ তাঁর কাব্যে সমকালীন সমাজের চিত্র অঙ্কন করার পাশাপাশি নীতি-নৈতিকতা এবং ঐতিহ্য চেতনার অবতারণা করেছেন তা আমাদের মন ও মনন জগতকে সমৃদ্ধ করবে, আলোকিত করবে। প্রেম-ভালোবাসা এবং একটি আদর্শিক চিন্তার প্রতিফনের দরুণ তিনি সাহিত্য অঙ্গনে সকলের কাছে বটবৃক্ষ।
সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে সিলেট স্টেশন ক্লাবের সভাপতি এডভোকেট এমাদুল্লাহ শহীদুল ইসলাম শাহিন বলেন, ইতিহাসে কোনো দেশেই প্রকৃতভাবে কবি-সাহিত্যিকদেরকে তাদের জীবিতকালে মূল্যায়ন করা হয়নি। কিন্তু সত্যিকার অর্থে তারাই দেশ ও জাতির জন্য ইতিহাস-ঐতিহ্য রক্ষায় তাঁদের চিন্তার জগতকে উন্মুক্ত করে দেন। কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ তেমনি একজন, যিনি সমকালীন সমাজের চিত্রকল্প তুলে ধরে জীবনমুখী পথের সন্ধান দিয়েছেন।
বিশিষ্ট কবি মুকুল চৌধুরী বলেন, আশির দশকের যে কয়জন শক্তিমান কবি বাংলা সাহিত্যে অবদান রাখছেন তার মধ্যে অন্যত হলেন কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ। একজন বিশ^াসী অনুধ্যানের জগতে তাঁর কাব্য-প্রতিভা আলোর দ্যুতি ছড়ায়। মননের চর্চার মাধ্যমে জীবনের বিচিত্র রুপ তিনি অবলীলায় প্রকাশ করে বিশ^াস ও চেতনার বাণীতে উচ্চকিত করেছেন।

দৈনিক কাজিরবাজারের নির্বাহী সম্পাদক সৈয়দ সুজাত আলী বলেন, কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ’র কবিতায় জীবন ও জগতের কথা এসেছে। মানুষ, প্রকৃতি এবং সর্বোপরি একটি সার্বজনীন চিন্তার প্রকাশ জীবনকে সঠিক গতিপথে চলতে অনুপ্রাণিত করে।
সিলেট কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সহ সভাপতি গল্পকার সাংবাদিক সেলিম আউয়াল বলেন, কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ তাঁর কাব্যে বিশ^বাস্তবতা তুলে এনেছেন। পরাধীনতার শৃঙ্খলে আবদ্ধ জাতির মুক্তির বারতা নিয়ে তাঁর কবিতা জানান দেয় স্বাধীনতার মুক্ত চেতনার। মনুষ্যত্ব এবং স্বাধীনতার বিষ্ফোরণে তাঁর কবিতা রেঁনেসা সৃষ্টিতে নতুন প্রজন্মকে উজ্জ্বীবিত করবে।

দৈনিক জালালাবাদের নির্বাহী সম্পাদক আব্দুল কাদের তাপাদার বলেন, কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ আমাদের চেতনার কবি। পুনর্জাগরণের কবি। সময় ও কালের সংমিশ্রণে যে সমকাল, সেটাকে তিনি অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে তাঁর কাব্যে তুলে ধরেছেন। তাঁর কবিতা জানায় দেয় একটি আদর্শিক চেতনার উন্মেষের, সমাজের অন্যায়-অনাচারের বিরুদ্ধে প্রবল প্রতিবাদ-প্রতিরোধ।

অনুভূতি ব্যক্ত করে কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ বলেন, মনুষ্যত্ব অর্জন এবং এর প্রসার করাই হোক আমাদের প্রত্যয়। জীবনের সব ভালো কথাই এক একটি কবিতা। আমার লিখিত কাব্যটি তেমনি একটি ছোট্ট অবদান। সমকাল, সমাজ এবং সামাজিক শৃঙ্খলের দেয়াল ঘেঁষে মানুষ যদি আদর্শিক চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়, তবেই আমার জীবনের ভাঙ্গা-গড়ার সামান্যতম প্রয়াস সার্থক হবে।

সভাপতির বক্তব্যে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ লে. কর্নেল (অব.) সৈয়দ আলী আহমদ বলেন, কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ একজন নির্লোভ, নিরহংকারী এবং শাদা মনের মানুষ। অত্যন্ত শান্ত এবং নীরব প্রকৃতির কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ তাঁর কবিতার মতই নীরব, কিন্তু কবিতায় প্রতিবাদের ভাষা অত্যন্ত শাণিত। মানুষের প্রেম-ভালোবাসা, আদর্শ, বিশ^াস, জীবনযুদ্ধ, বিপ্লব এবং আন্দোলন তাঁর কাব্যে এঁকে দিয়েছে এক অনন্য কবিসত্ত্বার ভাবের শরীর। – বিজ্ঞপ্তি




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: