সর্বশেষ আপডেট : ২১ মিনিট ৩৫ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৮ মে, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রূপচর্চায় দারুণ উপকারি পাকা আম

লাইফস্টাইল ডেস্ক::
ফলের রাজা আম। গরমের সময় চারিদিক যখন জ্বলে পুড়ে খাক হয়ে যায়, তখন শরীরকে ঠান্ডা রাখে এ ফল। সেই সঙ্গে স্বাদ গ্রন্থিদের উজ্জীবিত করে তুলতেও এই ফলটির কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। কিন্তু একথা জানেন কি, ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতেও কাজে লাগানো যেতে পারে আমকে? একেবারেই ঠিক শুনেছেন!

সুস্বাদু এই ফলটিকে কাজে লাগিয়ে একদিকে যেমন ত্বক ফর্সা করে তোলা সম্ভব, তেমনি স্কিনের অন্দরে পুষ্টির ঘাটতি দূর করে সার্বিকভাবে ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতেও আমের কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে।এখন প্রশ্ন হল ত্বকের পরিচর্যায় কীভাবে কাজে লাগাতে হবে এই ফলটিকে? এক্ষেত্রে পাকা আমের সঙ্গে আরও কিছু উপাদান মিশিয়ে বানিয়ে ফেলতে হবে একটি ফেসপ্যাক। তারপর সেটি মুখে লাগাতে শুরু করলেই কেল্লাফতে! তাহলে আর অপেক্ষা কেন, চুলন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে বানাবেন এইসব উপকারি ফেসপ্যাকগুলি।

১. ত্বকের হারিয়ে যাওয়া আদ্রতা ফিরিয়ে আনতে: বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে ত্বকের আন্দরে আদ্রতা কমতে শুরু করলে ত্বক শুষ্ক হয়ে ওঠে। ফলে বলিরেখা প্রকাশ পায়। সেই সঙ্গে ত্বক বুড়িয়ে যেতে শুরু করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই সৌন্দর্য কমতে সময় লাগে না। এমনটা অপনার সঙ্গেও ঘটুক, এমনটা যদি না চান, তাহলে ত্বকের পরিচর্যায় আমকে কাজে লাগাতে ভুলবেন না!

এক্ষেত্রে আমের সঙ্গে ২-৩ চামচ মুলতানি মাটি মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। তারপর সেটি মুখে লাগিয়ে কম করে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। সময় হয়ে গেলে মুখটা ভাল করে মাসাজ করে পেস্টটা ধুয়ে ফলতে হবে।

২. ত্বককে তরতাজা করতে: বছরের এই সময় অতিরিক্ত গরম এবং ঘামের কারণে ত্বক এত মাত্রায় ক্লান্ত হয়ে পরে যে সৌন্দর্য কমতে সময় লাগে না। এক্ষেত্রে ত্বককে তরতাজা রাখতে এবং সৌন্দর্যকে ধরে রাখতে দারুনভাবে কাজে আসে এই ফলটি।
এক্ষেত্রে অল্প পরিমাণ আম নিয়ে তার সঙ্গে পরিমাণ মতো বাদামের গুঁড়ো, ২-৩ চামচ ওটসমিল, ২ চামচ কাঁচা দুধ, পরিমাণ মতো জল এবং ৩ চামচ মুলতানি মাটি মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। তারপর তা মুখে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। তরপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফলতে হবে সারা মুখটা। সপ্তাহে ৩-৪ দিন এই ফেসপ্যাকটির সাহায্যে স্বকের পরিচর্যা করলে এই গরমেও দেখবেন ত্বকের সৌন্দর্য বাড়বে বই কমবে না।

৩. ত্বকের অন্দরে প্রদাহ কমায়: ত্বকের ভিতরে প্রদাহের মাত্রা বাড়তে থাকলে ব্রণ এবং পিম্পলের মতো ত্বকের রোগের প্রকোপ বাড়তে শুরু করে। আর এমনটা হলে মুখের সৌন্দর্য কমে চোখে পরার মতো। তাই তো ত্বকের ভিতরে প্রদাহের মাত্রা যাতে কোনও সময় মাত্রা না ছাড়ায়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আর এই কাজে আপনাকে সাহায্য করতে পারে আম।

পরিমাণ মতো আমের সঙ্গে ৩ চামচ মুলতানি মাটি, ১ চামচ গোলাপ জল এবং ১ চামচ দই মিশিয়ে তৈরি করা মিশ্রন মুখে লাগালে একদিকে যেমন প্রদাহের মাত্রা কমতে থাকে, তেমনি নানাবিধ ত্বকের রোগের প্রকোপ কমতেও সময় লাগে না। প্রসঙ্গত, এক্ষেত্রে ফেসপ্যাক ৩০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখতে হবে। তারপর ভুল করে ধুয়ে ফেলতে হবে সারা মুখটা।

৪. পুড়ে যাওয়া ত্বকের পরিচর্যায়: গরমের সময় একটু সময় রোদে থাকলেই দেখবেন ত্বক পুড়ে কালো হয়ে যেতে শুরু করে। ফলে সৌন্দর্য কমতে সময় লাগে না। এক্ষেত্রে ঠিক ঠিক নিয়ম মেনে যদি আমকে কাজে লাগাতে পারেন, তাহলে তাপদাহের মাঝেও দেখবেন ত্বকের সৌন্দর্য একটুও কমবে না।

এক্ষেত্রে পরিমাণ মতো আম নিয়ে তার সঙ্গে ৪ চামচ বেসন, পরিমাণ মতো বাদাম গুঁড়ো এবং ১ চামচ মধু এক সঙ্গে মিলিয়ে একটি পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। তারপর সেই পেস্টটা মুখ, ঘার, গলা এবং হাতে ভাল করে লাগিয়ে নিতে হবে। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে। এমনটা সপ্তাহে ৩-৪ দিন করলেই দেখবেন উপকার মিলতে শুরু করেছে।

৫. ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে: খালি চোখে দেখা না গেলেও সারাক্ষণ মৃত কোষেরা আমাদের ত্বকের উপরিঅংশে জমতে থাকে। ফলে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য হারিয়ে যেতে সময় লাগে না। এমনটা সবার সঙ্গেই হয়ে থাকে। কিন্তু আপনার সঙ্গে কেন হবে, যখন আপনার হাতে রয়েছে ফলের রাজা আম। জানেন কি এই ফলটিকে কাজে লাগিয়ে ত্বকের উপরে জমতে থাকা মৃত কোষের স্তরকে সরিয়ে ফেলা সম্ভব।

আর এমনটা হলে ত্বকের সৌন্দর্য বাড়তে যে সময় লাগে না, তা বলাই বাহুল্য। এখন প্রশ্ন হল এক্ষেত্রে কীভাবে কাজে লাগাতে হবে ফলের রাজাকে? পরিমাণ মতো পাকা আম নিয়ে তার সঙ্গে ২ চামচ কাঁচা দুধ এবং মধু মিশিয়ে নিন, তারপর মেশান হাফ কাপ চিনি। সবকটি উপাদান ভাল করে মিশিয়ে নেওয়ার পর মিশ্রনটা সারা মুখে লাগিয়ে ভাল করে মাসাজ করুন।

কিছু সময় পর গরম জল দিয়ে সারা মুখটা ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। এইভাবে সপ্তাহে কয়েকদিন যদি ত্বকের পরিচর্যা করতে পারেন, তাহলে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়বে চোখে পরার মতো।

সূত্র: বোল্ডস্কাই




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: