সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ২৬ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সুনামগঞ্জ পৌর সভার নতুন মেয়র নাদের বখত

নিজস্ব প্রতিবেদক ::
সুনামগঞ্জ পৌরসভার উপ নির্বাচনে মেয়র পদে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনিত নৌকা মার্কার প্রার্থী নাদের বখত। তিনি পৌরসভার সাবেক দু’বারের নির্বাচিত মেয়র আয়ুব বখত জগলুলের ছোট ভাই।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে বেসরকারিভাবে তাকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। ২১ কেন্দ্রের ফলাফল অনুযায়ী ১৬,৩২০ ভোট পেয়ে তিনি বিজয়ী হন নাদের। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন মোবাইল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান গানিউল সালাদিন। তিনি ভোট পেয়েছেন ৮,৩২০টি। আর তৃতীয় স্থানে রয়েছেন বিএনপি মনোনিত ধানের শীষের প্রার্থী সুজাউর রাজা সুমন। তিনি ভোট পেয়েছেন ১৫০৪ টি।

এছাড়া ২৩ কেন্দ্রের মধ্যে ২টি কেন্দ্রের ফলাফল স্থগিত করা হয়েছে। এদিকে বেসরকারীভাবে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী নাদের বখত বিজয়ী হওয়ায় পৌরশহরে আনন্দ-উল্লাস করছেন আওয়ামী লীগ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

অপরদিকে জালভোট, ব্যালট পেপার ছিনতাই, কেন্দ্র দখল ও প্রশাসনের পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনে সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচন বর্জন করেছেন বিএনপির মনোনীত প্রার্থী দেওয়ান সাজাউর রাজা চৌধুরী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী গনিউল সালাদীন।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় শহরের পুরাতন বাসস্টেন্ডে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে ও নিজ বাসভবনে পৃথক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন তারা। এ সময় বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট ফজলুল হক আছপিয়া, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা বিএনপির সভাপতি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন বলেন, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে নজিরবিহীন জালভোট ও ভোটকেন্দ্র দখল করার কারণে ভোটাররা কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারেননি। এ সময় তিনি নির্বাচন বাতিল করে এ পৌরসভায় পুনরায় নির্বাচন দেওয়ার দাবি জানান। এর আগে দুপুর ৩টায় নির্বাচন বাতিলের দাবিতে জেলা বিএনপি শহরের বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

এছাড়াও একই সময় নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান গনিউল সালাদীন একই অভিযোগে নিজ বাসভন তেঘরিয়ায় পৃথক সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন বর্জন করেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থী সালাদীন সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ প্রশাসনের সহযোগিতায় সুনামগঞ্জ পৌরসভার কেবি মিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, উত্তর আরপিন নগর পৌর প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, সুনামগঞ্জ পিটিআই কেন্দ্র, সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ কেন্দ্র, এইচ এমপি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রসহ সবক’টি ভোট কেন্দ্র দখল করে জাল ভোট দেয়। দুপুর ২ টায় উত্তর আরপিন নগর পৌর প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জাল ভোট দেওয়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর সমর্থক ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ অন্তত ৩০ রাউন্ড টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে। এ সময় ত্রিমুখী সংঘর্ষে এক পুলিশ সদস্য ইট পাটকেলে আহত হয়েছে।

সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ টিয়ারশেল নিক্ষেপ ও পুলিশ সদস্য আহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার উত্তম কুমার রায় জানান, পৌরসভার ৪২ হাজার ৩২২ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার কথা রয়েছে। এর মধ্যে ২১ হাজার ১৪৯ জন পুরুষ এবং ২১ হাজার ১৭৩ জন নারী ভোটার রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি সুনামগঞ্জ পৌরসভার দু’বারের নির্বাচিত মেয়র আয়ুব বখত জগলুল মৃত্যুবরণ করলে এ পদটি নির্বাচন কমিশন শূণ্য ঘোষণা করে। পরে ১৮ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন কমিশন উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। ২ মার্চ এ তিন তরুণ প্রার্থী সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। যাচাই ও বাছাইয়ের পর গত ১৩ মার্চ প্রতীক বরাদ্দ পান তারা।


এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: