সর্বশেষ আপডেট : ৫ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই দেশের উন্নয়ন হচ্ছে’ প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক::
নৌকা মানুষকে শুধু দেয় জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নৌকায় ভোট দিয়ে ভাষার অধিকার পেয়েছি, নৌকায় ভোট দিয়ে স্বাধীনতা পেয়েছি। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই দেশের উন্নয়নও হচ্ছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর প্রত্যেক উপজেলায় অবকাঠামো থেকে শুরু করে সব কিছু উন্নয়ন করা হচ্ছে। বয়স্ক ভাতা দিয়েছি- যা আওয়ামী লীগ চালু করেছে, আর কেউ দেয়নি। দেশের ৬৭ লাখ বয়ষ্ক মানুষকে বয়ষ্ক ভাতা দিচ্ছি, মানুষের কল্যাণে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছি। ৮ লাখ প্রতিবন্ধীকে মাসে মাসে ভাতা দিচ্ছি। তাদের মধ্যে ৮০ হাজারকে বৃত্তি দেওয়া হচ্ছে পড়াশোনার জন্যে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে ঠাকুরগাঁও আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জনসভায় আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা ছাড়াও স্থানীয় পর্যায়ের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত রয়েছেন।

শিক্ষাখাতের চিত্র তুলে ধরে সরকার প্রধান বলেন, শিক্ষাখাতের উন্নয়নে নানা কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। বিনামূল্যে শিক্ষার্থীদের হাতে জানুয়ারির ১ তারিখে বেই তুলে দেওয়া হচ্ছে। ১ কোটি ৩০ লাখ মাকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বৃত্তির টাকা পৌঁছে দিচ্ছি। কারিগরি শিক্ষার ব্যবস্থা করেছি। প্রত্যেক উপজেলায়, প্রত্যেক স্কুল-কলেজে কাজ করছি। ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কথা দিয়েছিলাম ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করবো- করেছি। ১৬ কোটি মানুষের দেশে ১৩ কোটি মানুষ মোবাইলের সিম ব্যবহার করে। দেশে ৫ হাজার ২৭৫ টি ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করেছি। সেখান থেকে সব তথ্য পাওয়া যায়। গ্রামে গ্রামে গিয়ে তথ্য আপারা কাজ করছেন। এছাড়া মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতার পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে। তাদের কল্যাণে নানা প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীকে বিশেষ ভাতা দিচ্ছি।

তথ্য-প্রযুক্তির অগ্রগতি তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, সামনের মাসে নিজস্ব স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হচ্ছে। এতে সব কিছুর সুযোগ-সুবিধা বাড়বে। মানুষের চিকিৎসার জন্য কমিউনিটি ক্লিনিক করে দিয়েছি।। ১৮ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিকে ৩০ প্রকার ওষুধ বিনা পয়সায় দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, ৯৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর এ প্রকল্পটি চালু করি। কিন্তু ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয়। কিন্তু ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার পর আমি ২০০৯ সালে এটি ফের চালু করে দিয়েছি। এখন নিরাপদ সন্তান প্রসব থেকে শুরু করে সব ধরনের ব্যবস্থা সেখানে রয়েছে। এই সময় ঠাকুরগাঁওয়ের সন্তান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরেরও সমালোচনা করেন তিনি।

বিএনপির সমালোচনা করে আওয়ামী সভাপতি বলেন, এরা (বিএনপি) ধ্বংস করতে জানে সৃষ্টি করতে জানে না, বিএনপির আমলে বাংলাদেশ বিশ্বে দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়। তারা দুর্নীতিবাজ, লুঠপাট করেছে তা প্রমাণিত। ঠাকুরগাঁওয়ে পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনেরও প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। একই সঙ্গে একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কথাও বলেন তিনি।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: