সর্বশেষ আপডেট : ১১ মিনিট ৩২ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আদালতে সরকারের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটেছে: মির্জা ফখরুল

নিউজ ডেস্ক:: আদালতে সরকারের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটছে। আদালতের বিভিন্ন সিদ্ধান্তে আমরা সেগুলোই দেখতে পাচ্ছি বলে মন্তব্য করেছেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়ার পরে যখন হাইকোর্টে তাকে জামিন দেয়া হলো, এরপরে আবার দীর্ঘসূত্রিতা সৃষ্টি হয়েছে, তার জামিন যেন চূড়ান্ত হতে না পারে এবং তিনি যাতে বের হতে না পারে তার জন্য বিভিন্ন ছল-চাতুরীর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আরও বলেন, ওকালত নামায় সই করা (যিনি জেলে থাকেন) তা অধিকার। আমরা বিস্মিতও ক্ষুদ্ধ হয়েছি, ওকালত নামায় সই করা থেকে খালেদা জিয়াকে বঞ্চিত করা হয়েছে। সঠিকভাবে ওকালত নামাগুলো তার (খালেদা জিয়া) কাছে প্রেরণ করা হচ্ছে না এবং অনেক সময়ই তাকে সই করতে দেয়া হচ্ছে না। এরফলে আইনি প্রক্রিয়া রয়েছে, সেগুলো ব্যহত হচ্ছে।

তিনি অভিযোগ করেন, বাংলাদেশে বর্তমানে অবৈধ ও অনির্বাচিত সরকার ভয়াবহ অত্যাচার, নিপীড়ন ও নির্যাতনের পথ বেছে নিয়েছে। আইনের শাসনকে একে একে ধ্বংস করে চলেছে, গণতন্ত্রের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে ফেলেছে। খালেদা জিয়ােক রাজনীতি ও নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে দেয়ার জন্য ছক ও ষড়যন্ত্রের মধ্যে দিয়ে তাকে কারাঅন্তরীন করে রাখা হয়েছে। তার (খালেদা জিয়া) যে জামিন এবং আইনী প্রক্রিয়ার তার জামিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে তা দীর্ঘসূত্রিতার মধ্যে দিয়ে বিভিন্ন ছল-চাতুরীর মধ্যে দিয়ে তারা (সরকার) সেটাকে বিলম্বিত করছেন।

 

সরকারে মূল অস্ত্র মিথ্যা মামলা দেয়া মন্তব্য করে তিনি বলেন, বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে সারাদেশে ৭৮ হাজার মামলা, ১১ লাখের উপরে আসামি। আইনজীবীরা এর বাইয়ে নেই। ছক তৈরি করা হয়েছে। এই একটি ছক সারা বাংলাদেশে দিয়ে দেয়া হয়েছে।

সরকারে মূল লক্ষ্য বিএনপিকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে চায় মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, সেই জন্য দেশনেত্রীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, চক্রান্ত। সুতরাং দেশনেত্রীকে রাজনীতি ও নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রাখার জন্য এ অপকৌশলগুলো গ্রহণ করছে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড.মঈন খান, মির্জা আব্বাস, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, আতাউর রহমান ঢালি, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন ও প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: