সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ন্যায়ভিত্তিক সমাজ গঠনে বিচার বিভাগের দায়িত্ব অব্যাহত

নিউজ ডেস্ক:: জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, একটি ন্যায়ভিত্তিক, সমতাভিত্তিক ও অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজ গঠনে বাংলাদেশের বিচার বিভাগ অব্যাহতভাবে তার দায়িত্ব পালন করে যাবে এটাই আমাদের প্রত্যশা।

শনিবার রাজধানীর বিচার প্রশাসন ও প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউশনে প্রধান বিচারপতিকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশ মহিলা জাজ অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমীন চৌধুরী।

তিনি বলেন, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, ন্যায়বিচার নিশ্চিত করা, সন্তান-সমাজ গড়ে তোলা এবং মানবাধিকার সমুন্নত রাখার মধ্য দিয়ে গণতন্ত্রকে সুসংহত করাই আমাদের সংবিধানের প্রত্যয়।

শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, সমগ্র বিশ্বে আজকের বাংলাদেশ নারী ক্ষমতায়নের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। তারই একটি বড় প্ল্যাটফর্ম হলো মহিলা জাজ অ্যাসোসিয়েশন। অত্যন্ত দক্ষতা, যোগ্যতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিচারকাজ পরিচালনা করে যাচ্ছেন বাংলাদেশের নারী বিচারকরা। বাংলাদেশের নারী বিচারপতিরা নারী ক্ষমতায়নের একটি অনন্য অধ্যায়।

স্পিকার বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে এগিয়ে আসাই এক সময় নারীদের জন্য চ্যালেঞ্জ ছিল। সেই চ্যালেঞ্জ আজ বাংলাদেশের নারীরা উত্তরণ ঘটিয়েছে। আজকের চ্যালেঞ্জ হচ্ছে, নারীর জন্য অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করা, নারীবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করা।

তিনি বলেন, সুপ্রিম কোর্টসহ বিচারাঙ্গনে নারী আইনজীবীদের জন্য বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা তৈরি করতে হবে। সামনে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ সম্প্রসারণ করতে হবে। মেধা এবং যোগ্যতার ভিত্তিতেই যেন তারা উপরের ধাপগুলোতে এগিয়ে যেতে পারে, সে বিষয়টির প্রতিও আমাদের দৃষ্টি রাখতে হবে।

স্পিকার বলেন, সুযোগ এবং সক্ষমতা এ দুয়ের সমন্বয়ের মধ্যদিয়েই কিন্তু আজকে বাংলাদেশে নারী ক্ষমতায়নের এ অর্জনগুলো সম্ভব হয়েছে। কাজেই বিচারাঙ্গনে যে নারীরা কাজ করছেন তাদের সুযোগ-সুবিধা সম্প্রসারণ করতে হবে।

এ সময় গণতান্ত্রিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় বিচার বিভাগের ভূমিকা তুলে ধরেন স্পিকার।

তিনি বলেন, সংবিধনের প্রস্তাবনা অনুযায়ী রাষ্ট্রের মূল লক্ষ্য হলো গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে একটি শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা। এ লক্ষ্যটি অর্জনে রাষ্ট্রের নির্বাহী বিভাগ, সংসদ এবং বিচার বিভাগকে সমন্বিতভাবে কাজ করে যেতে হবে। বিশেষ করে আইনের শাসন সমুন্নত রাখতে বিচার বিভাগ একটি অগ্রণী দায়িত্ব পালন করে।

বাংলাদেশ মহিলা জাজ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তানজিনা ইসমাইলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রধান বিচারপতির সহধর্মিণী সামিনা খালেক, সংগঠনটির উপদেষ্টা আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা, হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী, বিচারপতি জিনাত আরা, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্য নুরুন্নাহার ওসমানী, জ্যেষ্ঠ সহকারী জেলা জজ মেহনাজ সিদ্দিকী, নরসিংদীর যুগ্ম জেলা জজ বেগম লুবনা জাহান, যুগ্ম আইন সচিব বেগম উম্মে কুলসুম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের হতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেয়া হয়।


এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: