সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ২৬ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

”জৈন্তায় বেদাতী, ভন্ড ও মাজার পুজারিদের স্থান দেয়া হবে না”

শহীদ মাওলানা মুজ্জাম্মিল হক হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং ভন্ড বেদাতী কর্তৃক আলেম উলামাদের উপর থেকে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে ঈমান আক্বিদা সংরক্ষণ কেনদ্রীয় কমিটি। গতকাল শুক্রবার বিকেলে জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্তবাজারে প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঈমান আক্বিদা সংরক্ষণ কমিটির সভাপতি শায়খুল হাদিস আল্লামা আলিমুদ্দীন দূর্লভপুরী। মাওলানা আব্দুল জব্বার ও মাওলানা ওলিউর রহমানের যৌথ পরিচালনায় সমাবেশে বক্তারা বলেন, জৈন্তার মাটি আলেম উলামাদের ঘাটি, এখানে কোন বেদাতী, ভন্ড ও মাজার পুজারিদের স্থান দেয়া হবে না।
বক্তারা বলেন, শায়খুল ইসলাম আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরি (রহ.) ও আল্লামা শায়খ আব্দুল্লাহ হরিপুরী (রহঃ) সহ অসংখ্য উলামা মাশায়েখগন এখানে জন্মগ্রহণ করেছেন। তাই যারা উড়ে এসে জুড়ে বসে ইসলাম বিরোধী কর্মকান্ড করবে তাদের বিষদাঁত ভেঙ্গে দিতে জৈন্তাবাসী বদ্ধপরিকর।
বক্তারা বলেন, একজন প্রখ্যাত মুহাদ্দিছ মাওলানা আব্দুস সালাম কে দাওয়াত দিয়ে নিয়ে পরিকল্পিত ভাবে বেদাতীরা নির্মমভাবে হামলা করেছে। এতে হরিপুর বাজার মাদরাসার প্রায় ১৩/১৪ জন ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছেন। ভন্ডদের উপর্যুপরি তান্ডবে মাওলানা মুজ্জাম্মিল শাহাদত বরণ করেন।
বক্তারা বলেন, হত্যা ঘটনার প্রায় ১০ দিন অতিবাহিত হলেও রহস্যজনক কারণে ঘাতকরা গ্রেফতার হয়নি। পুলিশের নাকের ডগায় তারা ঘোরা ঘুরি করলেও তারা নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছেন। ঈমান আক্বিদা সংরক্ষণ কমিটির নেতৃবন্দরা প্রশাসনের প্রতি হুশিয়ারি উচ্চারন করে বলেন,আমাদের ধৈর্যের বাধ ভেঙ্গে গেছে। অনতিবিলম্বে খুনিদের গ্রেফতার আর মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার না করলে তীব্র আন্দোলনের দাবানল বৃহত্তর সিলেটে দাউ দাউ করে জ্বলবে।
সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে আল্লামা আলিমুদ্দীন দুর্লভপুরী বলেন, শহিদ মুজ্জাম্মিলকে হত্যা করে ভন্ডরা ইতিহাসের সবচেয়ে নির্লজ্জ কাজ করছে। দুর্লভপুরী বলেন, আমরা খুনিদের সুষ্ট বিচার চাই, যতদিন সুষ্টু বিচার না হবে ততদিন আমাদের আন্দোলন চলবে। দুর্লভপুরী বলেন,এক হাফিজ মুজ্জাম্মিলের শাহাদতের বিনিমিয়ে বৃহত্তর জৈন্তায় ভন্ড মুক্ত হবে ইনশাআল্লাহ।
বিশেষ অতিথীর বক্তব্যে জৈন্তাপুর উপজেলার চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন বলেন, যত বাধাঁ আসুক আমরা আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাব। কাহারো চোখ রাঙ্গানোকে ভয় করবনা। বিশেষ অতিথীর বক্তব্যে ফতেপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ বলেন,বর্তমান আন্দোলনকে স্থিমিত করতে একটি মাত্র সমাধান হচ্ছে খুনিদের গ্রেফতার করে ফাঁসির কাষ্টে ঝুলানো।
সংগঠনের মহাসচিব মাওলানা হিলাল আহমদ তার বক্তব্যে বলেন, প্রশাসন আমাদেরকে আশস্থ করেছিল খুনিদেরকে অতিশীঘ্রই গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনবে কিন্তু আজ পর্যন্ত ঘাতকদের গ্রেফতার করতে ব্যর্থ হয়েছে। এই সুবাধে খুনিরা আলেম উলামা ও তাওহিদি জনতার উপর একের পর এক মিথ্যা মামলা দিচ্ছে।
সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মাওলানা আব্দুল কাদির বাগেরখালী, মাওলানা মাহমুদুল হাসান রায়গড়ী, এডভোকেট মোহাম্মদ আলী, এডভোকেট মাওলানা শাহিনুর পাশা চৌধুরী, জেলা পরিষদ সদস্য মুহিবুল হক, ভাইস চেয়ারম্যান বশির উদ্দীন, কাজির বাজার মাদরাসার শায়খুল আল্লামা আহমদ আলী, মাওলানা শামছুদ্দীন দুর্লভপুরী, মাওলানা নজরুল ইসলাম তোয়াকুলী, মাওলানা আতাউর রহমান কোম্পানীগঞ্জী, মাওলানা আবুল হোসাইন চেয়ারম্যান চতুল ইউপি, দরবস্ত ইউপি চেয়ারম্যান বাহারুল আলম বাহার, সাবেক চেয়ারম্যান রহমতউল্লাহ, সাবেক চেয়ারম্যান কামাল উদ্দীন, মুফতী জিল্লুর রহমান, মাওলানা নুরুল হক, মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী, মাওলানা হাফিজ আহমদ ছগীর, মাওলানা আব্দুল মালিক চিকনাগুলী, মাওলানা হারুনুর রশিদ, মাওলানা জয়নাল আবেদীন, মাওলানা কবির আহমদ প্রমুখ।-বিজ্ঞপ্তি




এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: