সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ১৮ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ত্রিপুরায় বামদুর্গে গেরুয়া ঝড়, ২ রাজ্যে কংগ্রেসের ভরাডুবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: উত্তরপূর্ব ভারতের তিন রাজ্যের ভোটের ফলাফল প্রকাশ হয়েছে আজ। ত্রিপুরা, মেঘালয় এবং নাগাল্যান্ডের নির্বাচনকে ঘীরে তুমুল উত্তেজনা ছিল চোখে পড়ার মতো। সময় গড়িয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই নির্বাচনের ফলাফল জানতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন তিন রাজ্যের প্রার্থীরা। খবর এনডিটিভির।

তিনটি রাজ্যের মধ্যে দু’টিতেই ভরাডুবি হয়েছে কংগ্রেসের। সেখানে তারা একটি আসনও পায়নি। দীর্ঘ পঁচিশ বছর ধরে ত্রিপুরার ক্ষমতাসীন বামফ্রন্টও বিজেপির কাছে হেরে গেছে। ফলে ওই এলাকায় বামদলের দীর্ঘ দুই যুগের ক্ষমতার অবসান ঘটল।

 

ত্রিপুরায় ৫৯ আসনের মধ্যে বিজেপি পেয়েছে ৪১টি আসন। অপরদিকে সেখানে বামদল পেয়েছে মাত্র ১৮টি আসন। এ রাজ্যে কংগ্রেস কোনো আসনই পায়নি। অপরদিকে মেঘালয় রাজ্যের ৫৯টি আসনের মধ্যে কংগ্রেস ২৩টি আসন, এনপিপি ১৬টি, বিজেপি ৪টি এবং অন্যান্য দল পেয়েছে ১৬টি আসন। এ রাজ্যেই বিজেপি সব দলকে পেছনে ফেলে এগিয়ে গেছে।

নাগাল্যান্ডে ৬০টি আসনের মধ্যে এনডিপিপি পেয়েছে ৩০টি আসন, এনপিএফ ২৫টি, অন্যরা ৫টি আসন পেলেও কংগ্রেস এ রাজ্যেও কোনো আসন পায়নি।

ত্রিপুরা বিধানসভায় এর আগে কোনও দিন পা রাখতে পারেননি যে বিজেপির কোনও প্রতিনিধি। সেখানে দীর্ঘদিন ধরে প্রধান বিরোধী দল হিসাবেও ছিল কংগ্রেস। এবার সেখানে ভোটের ফলের পর তাদের অস্তিত্বই খুঁজে যায়নি। সকাল আটটায় পোস্টাল ব্যালট দিয়ে ভোট গণনা শুরু হয়। সেখানে মূলত নির্বাচনের কাজে ব্যস্ত সরকারি কর্মচারীরাই নিজেদের ভোট দিয়ে থাকেন। সে সময়ে বামফ্রন্ট সামান্য এগিয়ে থাকলেও বিজেপি সমানে টক্কর দিয়ে চলছিল।

কিন্তু তারপরে যখন ইলেক্ট্রনিক ভোটযন্ত্রের গণনা শুরু হয় তখনই বিজেপি জোট ক্রমশ এগিয়ে যেতে থাকে। ৬০ সদস্যের বিধানসভায় ৫৯টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হয়েছিল ১৮ ফেব্রুয়ারি। একটি আসনের বাম প্রার্থীর মৃত্যুর ফলে সেখানে ১২ মার্চ ভোট নেওয়া হবে।

হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের জেরে ত্রিপুরার নির্বাচনের দিকে এবার নজর ছিল দেশের সব রাজনৈতিক শিবিরের। নির্বাচনী প্রচারে যে এমন মারাত্মক ঝড় উঠতে পারে, তা উত্তর-পূর্বের আপাত নিস্তরঙ্গ রাজ্যটির বাসিন্দারা আগে কখনও কল্পনাও সম্ভবত করেননি। উত্তেজনাটা তাই টের পাওয়া যাচ্ছিল গোটা নির্বাচনী মওসুম জুড়েই। কিন্তু এমন টানটান লড়াই শেষে গেরুয়া ঝড়ের মুখে এতটা শোচনীয় ভাবে ধরাশায়ী হবে লালদুর্গ, এমনটা অনেকেই ভাবতে পারেননি।

ত্রিপুরায় বামফ্রন্ট প্রথম ক্ষমতায় আসে ১৯৭৭ সালে। ১৯৮৩ সালের বিধানসভা ভোটেও জেতে বামফ্রন্ট। কিন্তু ১৯৮৮ সালের ভোটে হেরে যায় কংগ্রেস-টিইউজেএস জোটের কাছে। পরের বারের নির্বাচনে অর্থাৎ ১৯৯৩ সালেও ক্ষমতায় আসে বামফ্রন্ট। তার পর থেকে আরও চার বার টানা জয়।

অপরদিকে বিজেপি এর আগে ত্রিপুরায় কখনও কোনও আসনে জেতেনি। কিন্তু এবার যেভাবে ঝাপিয়েছিল প্রচার পর্বে, তা শাসক জোটের ঘাম ছুটিয়ে দিয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী মোদি, জেটলির মতো কেন্দ্রীয় হেভিওয়েটরা বারবার গিয়েছেন প্রচারে।


এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: