সর্বশেষ আপডেট : ২৩ মিনিট ৪৭ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বের সবচেয়ে নোংরা নদী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
বিশ্বের সবচেয়ে বাজে মানে নোংরা নদী কোনটি, জানেন? ইন্দোনেশিয়ার চিতারুম নদী। ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম জাভায় নদীটির অবস্থান। প্রায় এক দশক আগে বিশ্বব্যাংক চিতারুমকে বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত নদী হিসেবে উল্লেখ করে। বর্তমানে অবশ্য চিতারুমের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের মিসিসিপি, ভারতের গঙ্গা ও চীনের ইয়োলোকে এই তালিকায় রেখেছে বিশ্বব্যাংক।

চিতারুম নদীর ঘোলা পানির ভেতরে তাকালে কিছুই দেখা যায় না। পানিতে প্রায়ই ভাসতে দেখা যায় বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ, গৃহস্থালি আবর্জনা ও বিভিন্ন প্রাণীর বিষ্ঠা। এই নদীর ধারেই ছয় সদস্যের পরিবার নিয়ে থাকেন ৫৪ বছর বয়সী ইউসুফ। নদীর পানি মারাত্মক দূষিত হলেও জীবনধারণের জন্য এই পানিই ব্যবহার করতে হয় তাকে। এর ফলে দেখা দিয়েছে চর্মরোগ। আর দূষিত পানির কারণে নষ্ট হচ্ছে ইউসুফের জমিতে জন্মানো ধান।

চিতারুম নদীর দূষণ এমন মারাত্মক অবস্থায় পৌঁছেছে যে কর্তৃপক্ষ স্বাস্থ্যঝুঁকি-সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। ইন্দোনেশিয়ার সরকারের এখন লক্ষ্য ২০২৫ সালের মধ্যে চিতারুমের পানি সুপেয় করে তোলা।

নদীটির দূষিত পানির ওপর প্রায় তিন কোটি মানুষের জীবন নির্ভরশীল। এসব মানুষ এই নদীর পানি সেচ ও দৈনন্দিন কাজে ব্যবহার করে থাকে। অনেকে এই পানি পানও করেন। ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তার প্রায় ৮০ শতাংশ অধিবাসী চিতারুমের পানির ওপর নির্ভরশীল।

চিতারুম নদীটি প্রায় ৩০০ কিলোমিটার লম্বা। জাভা ও বালি দ্বীপে সরবরাহ করা বিদ্যুৎ উৎপাদনেও ব্যবহার করা হয় এই নদীর পানি। নদীতে হাজার খানেক টেক্সটাইল কারখানার বর্জ্য পদার্থ ফেলা হয়। প্রতিদিন প্রায় ২৮০ টন বর্জ্য ফেলা হয় এই নদীতে। এক গবেষণা দেখা গেছে, নিরাপদ সুপেয় পানির যে মানদণ্ড যুক্তরাষ্ট্র নির্ধারণ করেছে, তার চেয়ে এক হাজারগুণ বেশি বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ পাওয়া গেছে চিতারুমের পানিতে।

কারা নদীতে বর্জ্য ফেলে, তা শনাক্ত করতে এখন এই নদীর তীর ঘেঁষে বহু সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে। তবে সরকার যা-ই করুক, স্থানীয় অধিবাসী ও উন্নয়নকর্মীদের খুব বেশি আস্থা নেই তাতে। স্থানীয় একটি বেসরকারি পরিবেশবিষয়ক সংস্থার কর্মী দেনি রিসবানদানি বলেন, নদীর পার্শ্ববর্তী এলাকার মানুষের অসুস্থ হওয়ার হার অনেক বেশি। কিন্তু এসব নিয়ে সরকারি কর্তৃপক্ষকে বারবার জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি। সরকারের নেওয়া পদক্ষেপ বাস্তবায়নে দুর্নীতিকেই সবচেয়ে বড় বাধা বলে মনে করেন তিনি।

সূত্র: এএফপি


নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: