সর্বশেষ আপডেট : ৩০ মিনিট ৩৫ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৩ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেট চেম্বারের উদ্যোগে টোয়াবের মতবিনিময় সভা

সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে ট্যুর অপারের্টস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টোয়াব)-এর সাথে ‘সিলেটে পর্যটন শিল্পের বিকাশ ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভা গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয়। সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ-এর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইমরান আহমদ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, পর্যটন খাতের উন্নয়নে বর্তমান সরকার অত্যন্ত আন্তরিক। ইতিমধ্যে এ খাতের উন্নয়নে অনেকগুলো পদক্ষেপ গৃহীত হয়েছে। যেমন সরকার জাফলংয়ের রাস্তার উন্নয়নে ইতোমধ্যে ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন, শীঘ্রই এ রাস্তার উন্নয়ন কাজ শুরু হবে।

এছাড়াও ভোলাগঞ্জ, জাফলং ও বিছনাকান্দি ট্যুরিস্ট স্পট এলাকা থেকে পাথর উত্তোলন নিষিদ্ধ করা হয়েছে এবং নতুন কাউকে লীজ দেওয়া হয়নি। কারণ পর্যটনকে টিকিয়ে রাখার জন্য পর্যটন এলাকাগুলোর পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষা করা একান্ত জরুরী। তিনি এ ব্যাপারে পর্যটকগণকে সচেতন থাকার আহবান জানান।
তিনি আরো বলেন, সরকারের পক্ষে এককভাবে পর্যটন খাতের বিকাশ ঘটানো সম্ভব নয়। এজন্য প্রাইভেট সেক্টর থেকে বড় ভূমিকা রাখতে হবে। ব্যবসায়ীদেরকে শুধুমাত্র ব্যবসায়ীক মনমানসিকতা থেকে বেরিয়ে এসে দেশের স্বার্থে কাজ করতে হবে। তিনি পর্যটকদের সিলেটের প্রতি আগ্রহী করে তোলার লক্ষ্যে সিলেটের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে ধরে রাখার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন। সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ বলেন, জৈন্তিয়া খাসিয়া পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত দুটি পাতা একটি কুঁড়ির দেশ সিলেট অঞ্চল পর্যটন খাতে অত্যন্ত সম্ভাবনাময়। সিলেটের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য পর্যটকদের কাছে সবসময়ই আকর্ষণীয়। পর্যটনের এ অপার সম্ভাবনাকে কাজে লাগিয়ে সিলেট দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম পর্যটন কেন্দ্রে পরিণত হতে পারে। তিনি আরো বলেন, সিলেটে বর্তমানে বেসরকারী উদ্যোগে অনেকগুলো বিশ্বমানের রিসোর্ট, হোটেল, মোটেল ইত্যাদি গড়ে উঠেছে, যা পর্যটন খাতের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে সিলেটকে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা একান্ত প্রয়োজন। এক্ষেত্রে তিনি শহরের যানজট নিরসন ও হকারদের উচ্ছেদ করে ফুটপাত দখলমুক্তকরণের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে বলেন, যানজট ও হকার কর্তৃক ফুটপাত দখল পর্যটন নগরী হিসেবে সিলেটের বিকাশের অন্যতম প্রধান অন্তরায়।

এছাড়াও তিনি সিলেটের দর্শণীয় স্থান সমূহের যোগাযোগ ব্যবস্থা ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য সরকারকে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের আহবান জানান। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, সহ সভাপতি মো. এমদাদ হোসেন, ট্যুর অপারের্টস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টোয়াব) এর প্রেসিডেন্ট তৌফিক ইউ আহমেদ, পরিচালক তৌফিক রাহমন, ট্যুরিস্ট পুলিশ সিলেট-এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ কে এম মোশাররফ হোসেন, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহ্ দিদারুল আলম নোবেল, ওমেন্স চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি স্বর্ণলতা রায়, বাংলাদেশ পর্যটন বোর্ডের সাবেক পরিচালক ড. জাকারিয়া হোসেন, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, হুমায়ুন কবির লিটন। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বারের পরিচালক জিয়াউল হক, মো. সাহিদুর রহমান, পিন্টু চক্রবর্তী, মুশফিক জায়গীরদার, আমিরুজ্জামান চৌধুরী, মুকির হোসেন চৌধুরী, আব্দুর রহমান, চন্দন সাহা, ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, মো. আব্দুর রহমান (জামিল), হুমায়ুন আহমেদ, মুজিবুর রহমান মিন্টু, মাহমুদ আহমেদ চৌধুরী, মো. রুয়েল বক্ত তুষার, সৈয়দ এফতার হোসেন পিয়ার, মারুফ আহমেদ, সালাহ উদ্দিন চৌধুরী, আবু তালেব মুরাদ, মো. জুনায়েদ আলী, হুমায়ুন কবির লিটন, ফখরুল ইসলাম মিয়া, মো. আবুল কালাম, সৈয়দ মাহবুবুল ইসলাম বুলু, ফয়েজ উদ্দিন লোদী, ইলিয়াস উদ্দিন লিপু, মো. আবুল কালাম আজাদ (মিলন), হামেদ বিন হানিফ, আবুল কাহের শাহিন, তানভির আহমেদ, মেহদী আমিন চৌধুরী, এস. এম. হাফিজুর রহমান ফারুক, তৌফিক রহমান, সৈয়দ শাফাত উদ্দিন, মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন, আবু বকর সিদ্দিক, মো. শাহ আলম রাফি, গোলাম রব্বানী প্রমুখ।-বিজ্ঞপ্তি

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: