সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ২৬ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মঙ্গলগ্রহের থেকেও শীতল হবে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: গত কয়েক দশকে এমন ঠান্ডা আর তুষারপাত দেখেনি যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ। পুরু বরফের চাদরে ঢেকে গেছে যুক্তরাষ্ট্রের একাংশ। এর মধ্যেই দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়। এর জেরে সমুদ্রে জলোচ্ছ্বাস এবং বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। এর ফলে দক্ষিণ-পূর্বের কোনও কোনও এলাকা মঙ্গল গ্রহের থেকেও বেশি শীতল হয়ে উঠবে।

গত কয়েকদিন ধরেই প্রচণ্ড ঠান্ডার কবলে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিস্তীর্ণ অংশ। মেরু এলাকার শীতল বাতাস যুক্তরাষ্ট্রের উত্তরাংশের তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নীচে নামিয়ে দিয়েছে। বিভিন্ন স্থানে চলছে তুষারপাত। তাপমাত্রার নিম্নগতি বজায় থাকবে চলতি সন্তাহেও। এমন পূর্বাভাস আগেই দেওয়া হয়েছিল। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ঘূর্ণিঝড়ের আতঙ্ক।

 

এই ঝড়ের নাম দেওয়া হয়েছে বম্ব সাইক্লোন। দক্ষিণ ক্যারোলিনা থেকে ১৩টি রাজ্যে ঘূর্ণিঝড়ের দাপট বেশি হতে পারে। এর আঁচ টের পাওয়া গেছে বৃহস্পতিবার থেকেই। আবহাওয়া অফিস থেকে বলা হয়েছে, ৩ থেকে ৬ ইঞ্চি বরফ পড়তে পারে ফিলাডেলফিয়ায়, ৪থেকে ৮ ইঞ্চি তুষারপাত হবে হতে পারে নিউ ইয়র্কে। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা হতে পারে বোস্টনে। সেখানে এক ফুটের উপরে বরফপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে ঝড়ের আগে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। কানেক্টিকাটের গভর্নর ড্যান মালোয় জানিয়েছেন, ছয় ইঞ্চি বরফ জমতে পারে। ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড় বইতে পারে সেখানে। তিনি বলেছেন, যতটা সম্ভব বাড়িতে থাকতে হবেভ বিশেষ করে মোটরবাইক নিয়ে রাস্তায় বের হওয়াটা বিপজ্জনক। ভার্জিনিয়ার গভর্নর টেরি ম্যাকঅলিফ রাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। পূর্ব ভার্জিনিয়ায় এক ফুটের মতো বরফ জমতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বিভিন্ন রাজ্যে প্রশাসন আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিচ্ছে।

নিউ ইয়র্ক, বোস্টন, শিকাগো, মিনিয়াপোলিসসহ বিভিন্ন এলাকায় স্কুল-কলেজ ও অফিস বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। যানবাহনের পরিষেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। শুধু বৃহস্পতিবারই ২৭০০ বিমানের ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। বোস্টন থেকে সব বিমানের ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। নিউ ইয়র্ক থেকে ৯০ শতাংশ ফ্লাইট বাতিল করতে হয়েছে প্রতিকূল আবহাওয়ার জন্য। চলতি সন্তাহে প্রবল শীতে যুক্তরাষ্ট্রে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পূর্বের তাপমাত্রা আগে থেকেই হিমাঙ্কের নীচে ছিল। ঠান্ডা বাতাসের প্রভাবে নিউ ইয়র্ক ও ফিলাডেলফিয়ায় শীত আরও বাড়বে। তাপমাত্রা আরও ৩ ডিগ্রি নীচে নামার আশঙ্কা করা হচ্ছে। বোস্টনে তাপমাত্রা থাকতে পারে হিমাঙ্কের ৭ ডিগ্রি নীচে। তবে শুধু উত্তর-পূর্বের এলাকা নয়, পূর্বের রাজ্য মেইন থেকে জর্জিয়ায় তাপমাত্রাও কমবে।

আবহাওয়া অফিসের পরিসংখ্যান বলছে, ১৯৮৯ সালে শেষবারের মতো এতো তুষারপাত আর বরফ পড়েছিল। দক্ষিণ-পূর্ব আমেরিকার বিভিন্ন অঞ্চলে বরফপাতের অভিজ্ঞতা প্রথম বারের মতো। ফ্লোরিডার জ্যাকসনভিলের তুলনায় আলাস্কার অ্যাংকরেজের তাপমাত্রা ছিল বেশি। সাধারণ ভাবে ফ্লোরিডার তাপমাত্রা যুক্তরাষ্ট্রের উত্তরাংশের তুলনায় বেশি থাকে। সে জন্য এখানে পর্যটকরা ভিড় করেন। কিন্তু মঙ্গলবার অ্যাংকরেজের তাপমাত্রা ছিল ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্যদিকে ফ্লোরিডায় হয়েছে তুষারপাত।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: