সর্বশেষ আপডেট : ২৬ মিনিট ৩১ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২২ এপ্রিল, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৯ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এমপি কেয়া চৌধুরীর অনুষ্ঠান বাতিল : ১১ জনকে আসামী করে মামলা

নবীগঞ্জ সংবাদদাতা ::

সিলেট-হবিগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের এমপি আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরীর অনুষ্ঠান বাতিলকে কেন্দ্র করে আওয়ালীগ নেতা ও সাংবাদিকের বাড়িতে বুধবার বিকালে হামলার ঘটনায় রাতে ১১ জনকে আসামী করে মামলা হয়েছে। পুলিশ আসামী ধরার জন্য রাতেই অভিযান চালায় তবে কোন আসাম কে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।এনিয়ে আওয়ামীলীগ নেতাদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া বিরাজ করছে।

এলাকাবাসী সুত্র জানায়, লন্ডন প্রবাসী দিলবার হোসেন ও মামলার বাদী শামীনুরের মধ্যে র্দীঘ দিন ধরে গ্রামের মধ্যে মত বিরোধ চলে আসছে। মুলত এর জের ধরেই হামলার ঘটনা সংঘঠিত হয়েছে। গুরুতর আহত মইনুদ্দিন(৬০) ,পাবেল মিয়া (২২) কে নবীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে আর বাকীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। গতরাতে নবীগঞ্জ থানায় দায়েরকৃত মামলায় বিএনপি নেতা লন্ডন প্রবাসী দিলবার হোসেন,ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি নুর আলী ও বিএনপি নেতা শাহীন আহমদ ১১জন কে আসামী করা হয়েছে এবং অজ্ঞাত ৫/৬ জন কে আসামী রাখা হয়েছে। সাংবাদিক রাকিল হোসেনের চাচাতো ভাই শামীনুর রহমান বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেছেন। (মামলা নং ০৩ ধারা ৪৪৭/৪৪৮/৩২৩/৩২৪/৩০৭/৩৫৪/৩৮০/৪২৭/১১৪/৫০৬)।

মামলার বিবরনে জানা যায়, গত ৩ জানুয়ারী, ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের প্রজাতপুর গ্রামের বিএনপি নেতা লন্ডন প্রবাসী দিলবার হোসেন,ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি নুর আলী ও বিএনপি নেতা শাহীন আহমদের উদ্যোগে ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের প্রজাতপুর গ্রামের রাস্তা উন্নয়নের জন্য বিএনপি নেতা দিলবার হোসেনের বাড়ীতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বুধবার বেলা ১১টার সময় এমপি কেয়া চৌধুুরী পথিমধ্যে এসে খোঁজ নিয়ে দেখেন,উক্ত অনুষ্টানে ইনাতগঞ্জ আওয়ামীলীগের কোন নেতাকর্মী সম্পৃক্ত নেই।

আওয়ামীলীগের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী খোঁজ নিয়ে জানিতে পারেন অনুষ্ঠানের আয়োজকরা বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত । তাই এমপি কেয়া চৌধুরী বিএনপি নেতাদের অনুষ্ঠান জেনে অনুষ্ঠান বাতিল করে পথিমধ্যে থেকে চলে যান। এ নিয়ে অনুষ্ঠান আয়োজকরা দায়ী করেন, স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাংবাদিক রাকিল হোসেনকে। এর জের ধরেই বিএনপির নেতাকর্মীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সাংবাদিক রাকিলের বাড়িতে হামলা চালায়। মামলা বিবরনে আরো বলা হয়, এসময় আসামীরা সাংবাদিক রাকিল হোসেনের ঘরে হামলা করে ভাংচুর করে ৩লাখ টাকার ক্ষতি সাধন করে ও আলমিরা ভেঙ্গে নগদ ১০ হাজার টাকা, ৩ভরি স্বর্নালংকার যার বাজার মূল্য ১লাখ ২০ হাজার টাকা, বাদী শামীনুরের ঘরে ভাংচুর করে ৪লাখ টাকার ক্ষতি সাধন, আলমিরা ভেঙ্গে নগদ ২২ হাজার টাকা, ২ ভরি স্বর্নালংকার নিয়ে যায়। এব্যাপারে ইনাতগঞ্জ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য, দৈনিক সিলেটের ডাক এর নবীগঞ্জ প্রতিনিধি রাকিল হোসেন জানান, বাড়ীতে হামলা,ভাংচুর,লুটপাট ও মহিলাসহ ১০জন আহত হয়েছেন । তিনি আহতদের নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা প্রদান করেছেন। এখনো ২গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। আহতরা হলেন মইনুদ্দিন(৬০) ,পাবেল মিয়া (২২) ,রশিদা বেগম(৪০) জুবেল মিয়া(২৬) শেবু মিয়া(৩০) আব্দুল মালিক(৫০) এদের কে নবীগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন আমার সাথে দিলবার হোসেনের কোন বিরোধ নেই এঅনূষ্ঠান নিয়েই হামলা হয়েছে।

এব্যাপারে বিএনপি নেতা দিলবার হোসেন বলেন, আমার সাথে সাংবাদিক রাকিল হোসেনের কোন বিরুধ নেই। তবে মামলার বাদী শামীনুরে সাথে আমার মত বিরোধ রয়েছে। সে আমার ফুপাতো ভাই তার সাথে একটি বিয়ে নিয়ে মত বিরোধ সৃষ্টি হয়। আমি হতবাক হয়েছি ঘটনাটি নিয়ে আমাকে প্রধান আসামী করে মামলা হয়েছে পুলিশ আমার বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে। আমাদের সাথে সাংবাদিক রাকিলের চাচাতো ভাইয়ের মত বিরোধ থাকলেও কোম মামলা মোকাদ্দমা নেই। এব্যাপারে ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, আমরা কেয়া চৌধুরীর অনুষ্ঠান সম্পর্কে কিছুই জানিনা। আমাদেরকে কেউ অনুষ্ঠানে দাওয়াত দেয়নি। তাই আমরা অনুষ্ঠানে যাইনি।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম আতাউর রহমান জানান,হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। কেয়া চৌধুরীর অনুষ্ঠান কিছু বিএনপি নেতাকর্মী আয়োজন করেন। পরে খবর পেয়ে তিনি না যাওয়াতেই ক্ষিপ্ত হয়ে আসামীরা সাংবাদিক রাকিলের বাড়িতে হামলা করেছে। আমরা রাতে ঝটিকা অভিযান দিয়ে কোন আসামী পাই নাই। অভিযান অব্যাহত আছে আসামীদের ধরার চেষ্টা চলছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: