সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৩৫ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২২ এপ্রিল, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৯ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ইসরায়েলের সঙ্গে অস্ত্র চুক্তি বাতিল করেছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::

ইসরায়েলের সঙ্গে ৫০ কোটি মার্কিন ডলারের অস্ত্র চুক্তি বাতিল করেছে ভারত।

ইসরায়েলের কাছ থেকে ১৬০০টি স্পাইক অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক গাইডেড মিসাইল কেনার জন্য ওই বিপুল অঙ্কের অস্ত্র চুক্তি করেছিল মোদি সরকার। কিন্তু বুধবার রাষ্ট্রীয় সংস্থা রাফায়েল অ্যাডভান্সড ডিফেন্স সিস্টেমস ওই চুক্তি বাতিল করার কথা ঘোষণা করেছে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি বলছে, বহু আগেই চুক্তিটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। কিন্তু রাষ্ট্রীয় ডিফেন্স কনট্রাকটরটিকে আনুষ্ঠানিকভাবে এই কথা জানানো হয়েছে মাত্র এক সপ্তাহ আগে। রাষ্ট্রীয় সংস্থাটি কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করলেও ভারত সরকারের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করার বিষয়ে অঙ্গীকারবদ্ধ বলে এই সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়েছে।

সংস্থাটি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘ভারতের অস্ত্রের বাজার বেশ বড়। আজ থেকে নয়, গত দুই দশক থেকেই দেশের এই বাজারটিতে আমরা কাজ করে চলেছি। ভারতের হাতে অত্যাধুনিক অস্ত্র তুলে দিতে আমরা দায়বদ্ধ ও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

যে সময় নয়াদিল্লি এই চুক্তি বাতিল করেছে, সেই একই সময় ইসরায়েলের কাছ থেকে ১৩১টি বারাক সারফেস টু এয়ার মিসাইল কেনার জন্য ৭ কোটি মার্কিন ডলারের চুক্তি চূড়ান্ত করেছে।

স্পাইক মিসাইল মূলত পোর্টেবল মিসাইল। কাঁধে করে সেনাবাহিনী একে বয়ে নিয়ে যেতে পারে। যুদ্ধক্ষেত্রে শত্রু পক্ষের ট্যাঙ্ক উড়িয়ে দিতে এই ‘ফায়ার অ্যান্ড ফরগট’ মিসাইল ব্যবহৃত হয়। ফলে একজন সেনা জীবনের ঝুঁকি ছাড়াই এই মিসাইল ছুড়ে নিরাপদ আশ্রয়ের দিকে ছুটে যেতে পারেন। ২০১৪ সালেই যুক্তরাষ্ট্র নয়াদিল্লিকে এই একই ধরনের জ্যাভলিন মিসাইল দিতে চেয়েছিল। কিন্তু তখন তাদেরটা না নিয়ে ভারত ঝুঁকেছিল ইসরায়েল নির্মিত এই স্পাইক মিসাইলের দিকে।

যে কারণে এই চুক্তি বাতিল করেছে ভারত

চুক্তি চূড়ান্ত হওয়ার পরই হায়দরাবাদের কাছে মিসাইল ম্যানুফ্যাকচারিং কারখানায় কল্যাণী গ্রুপের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে মিসাইলগুলি তৈরির প্রক্রিয়া শুরু করে দেয় ইসরায়েলি সংস্থা। কিন্তু রাষ্ট্রীয় ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট অরগানাইজেশন বা ডিআডিও কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কে জানায়, আগামী চার বছরের মধ্যেই একটি আন্তর্জাতিক মানের মিসাইল তৈরি করে ভারতীয় বৈজ্ঞানিকরা মন্ত্রণালয়ের হাতে তুলে দিতে পারবে। কিন্তু এত দীর্ঘ দিন ধরে অপেক্ষা করতে রাজি ছিল না ভারত। তাদের আশঙ্কা, ইসলামাবাদ যদি সীমান্তে এই মিসাইল ব্যবহার করে তাহলে ভারতীয় জওয়ানরা পাল্টা হামলা চালাতে পারবে না। কেননা পাক পদাতিক বাহিনীর হাতে আগেই এ ধরনের এমন মিসাইল রয়েছে যা কাঁধে করে বয়ে নিয়ে গিয়ে চার কিলোমিটার পর্যন্ত দূরের ভারতীয় ট্যাঙ্ক উড়িয়ে দেওয়া যায়। অথচ ভারতের হাতে যে মিসাইল রয়েছে তার পাল্লা মাত্র ২ কিলোমিটার। তাই সময় বেশি লাগার কারণেই চুক্তি বাতিল করে দিয়েছে নয়াদিল্লি।

সূত্র: এনডিটিভি

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: