সর্বশেষ আপডেট : ২১ মিনিট ১৩ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২২ এপ্রিল, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৯ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রাবি শিক্ষিকার বিরুদ্ধে শাশুড়ির অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক:: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আলোচিত সেই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তার শাশুড়ি। বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কাছে তিনি এ লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযুক্ত ওই শিক্ষিকার নাম রুখসানা পারভীন। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক।

এর আগে নিজ বিভাগের শিক্ষকদের নামে আপত্তিকর মন্তব্য করায় ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে উপাচার্যের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন বিভাগের ১১ শিক্ষক।

 

পরে ওই শিক্ষিকা বিভাগের এক শিক্ষকের নামে পাল্টা যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেন। তদন্তে সেই অভিযোগ টেকেনি। উল্টো কারণ দর্শানোর নোটিশ পেয়েছেন রুখসানা পারভীন।

উপাচার্যের কাছে দেয়া লিখিত অভিযোগে রুখসানা পারভীনের শাশুড়ি রোকেয়া বেগম বলেছেন, আমার একমাত্র পুত্র বেলায়েত হোসেনের সঙ্গে রুখসানা পারভীনের বিয়ের পর থেকে নানাভাবে আমাকে এবং আমার পরিবারের অন্যদের চরমভাবে অপমান-অপদস্ত, অরুচিকর আচরণ এবং হুমকি অব্যাহত রেখেছে। তাদের বিবাহিত জীবনের পর থেকে রুখসানা আমাকে প্রাণনাশের হুমকিসহ অপ্রকাশযোগ্য গালাগালি এবং নানা ধরনের মানসিক নির্যাতন করছে।

রোকেয়া বেগম লিখিত অভিযোগের সঙ্গে মোবাইলে কথপোকথনের নোংরা ও অরুচিকর গালাগালির রেকর্ড সংযুক্ত করে দিয়ে প্রয়োজনীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

লিখিত অভিযোগের অনুলিপি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য, রেজিস্ট্রার, কোষাধ্যক্ষ, ছাত্রউপদেষ্টা, প্রক্টর ও শিক্ষক সমিতিকেও দেয়া হয়েছে।

ওই শিক্ষিকার ননদ দিলারা সুলতানা বলেন, আমার ভাইয়ের সঙ্গে বিয়ের পর থেকে রুখসানা আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করার জন্য তাকে চাপ দিত। কোনো কারণ ছাড়াই আমাদের ফোন দিয়ে অশালীন-অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করাসহ হুমকি-ধমকি দেয়।

তিনি বলেন, আমরা কার কাছে বিচার চাইব? বিভিন্ন সময়ে বিষয়টি পারিবারিকভাবে সমাধান করতে চেয়েছি। নিরুপায় হয়ে রুখসানার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের (বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন) কাছে প্রতিকার চাইছি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে রুখসানা পারভীন সাংবাদিকদের বলেন, আমি অভিযোগের বিষয়ে জানি না। এটি আমাদের পারিবারিক বিষয়। এর বেশি কিছু বলতে পারব না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এটি তাদের পারিবারিক বিষয়। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করব।

বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ২৭ জুলাই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রুখসানা পারভীনের বিরুদ্ধে শ্রেণিকক্ষে ও শ্রেণিকক্ষের বাইরে বিভাগের শিক্ষকদের নামে আপত্তিকর মন্তব্যের অভিযোগ তুলে অধ্যাপক নাসিমা জামানের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন বিভাগের ১১ শিক্ষক।

এরপর রুখসানা পারভীন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কাছে ওই ১১ শিক্ষকদের বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ করেন। অর্থ আত্মসাৎসহ বিভিন্ন অভিযোগের পাশাপাশি এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানিরও অভিযোগ করেন রুখসানা পারভীন। ১১ শিক্ষক অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করে সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানান।

সেই সময় এক ছাত্রের সঙ্গে ওই শিক্ষিকার একটি অডিও রেকর্ড ফাঁস হয়। যেখানে ছাত্রকে অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করতে শোনা যায়। পাল্টাপাল্টি অভিযোগে বিভাগে অচলাবস্থার সৃষ্টি হলে তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

গত ৩০ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৭৫তম সিন্ডিকেট সভায় ওই তদন্ত প্রতিবেদন উত্থাপন করা হয়। রুখসানা পারভীনের আনা যৌন হয়রানির অভিযোগ তদন্তে মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয় সিন্ডিকেটে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: