সর্বশেষ আপডেট : ২০ মিনিট ৩৭ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজারের ফুলতলা ইউপি নির্বাচন : ৫ কেন্দ্র ঝৃঁকিপূর্ণ

আব্দুর রব, বড়লেখা:: মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন কাল ২৮ জানুয়ারি। ইতোমধ্যে প্রচার প্রচারণা শেষ হয়েছে। ভোটাররা অপেক্ষায় আছেন তাদের পছন্দের প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে। সরেজমিন ইউনিয়ন ঘুরে ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায়, নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ৩ জন হলেও মুল লড়াই হবে দ্বি-মুখী। আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীর সাথে বিদ্রোহী প্রার্থীর। তবে এ ইউনিয়নে প্রথম বারের মতো দলীয় প্রতীকে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় নৌকার প্রার্থী মাসুক আহমদ আলোচনায় রয়েছেন।
ভোটের আগে ভোটের মাঠে ছিলো প্রচন্ড উত্তাপ। ফলে ১১ টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৫টি কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করছেন দলের বিদ্রোহী প্রার্থী। তাছাড়া তিনি ভোটের দিন ভোটারদের ভোটাধিকার প্রয়োগে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিরও আশঙ্কা করছেন।
ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেযারম্যান পদে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩ প্রার্থী। তারা হলেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও সাবেক চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ (নৌকা), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও বর্তমান ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ফয়াজ আলী (ঘোড়া) এবং বিএনপি প্রার্থী বাবুল আহমদ (ধানের শীষ)।
ফুলতলা ইউনিয়নের মোট ভোটার ১১ হাজার ৪৬২। ১১ ভোট কেন্দ্র ২৮ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। চেয়ারম্যান পদে ৩ প্রার্থী ছাড়াও ৯টি ওয়ার্ডে ৫৫জন মেম্বার ও মহিলা মেম্বার প্রার্থী সরাসরি ভোট যুদ্ধে অংশ নেবেন।
ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ফুলতলা ইউনিয়নে ৪টি চা বাগান রয়েছে। এই চা জনগোষ্ঠির ভোটই গড়ে দেয় জয় পরাজয়ের ব্যবধান। শুধু তাই নয় এই ইউনিয়নে প্রার্থীর ব্যক্তি ইমেজটাও অনেক ক্ষেত্রে ফ্যাক্টর হয়। ভোটারদের মতে, প্রার্থী ৩জন হলেও মুল লড়াই হবে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মাসুক আহমদ ও বিদ্রোহী প্রার্থী ফয়াজ আলীর মধ্যে। এখানে বিএনপি প্রার্থী বাবুল আহমদ কিংবা ধানের শীষের ভোট খুব একটা নেই।
সকল হিসেবের পরে ভোটারদের মতে, ফুলতলা ইউনিয়নে দলীয় প্রার্থীর বিজয়ী হওয়ার সম্ভবনা সবচেয়ে বেশি। তবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক (বহিষ্কৃত) হওয়ায় দলীয় ভোটে ভাগ বসাতে পারলে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ফয়াজ আলী চমক দেখালে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।
আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ফয়াজ আলী বলেন, দলীয় প্রার্থী হয়ে মাসুক আহমদ এলাকায় একটা আতঙ্ক সৃষ্টির পায়তারা করছেন। তার কর্মীদের নানা ধরনের হয়রানি হুমকি ধমকি দিচ্ছেন। তিনি ১১ টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৫টি ভোট কেন্দ্র অধিক ঝুঁকিপূর্ণ বলে জানান। কেন্দ্রগুলো হলো- রাজকী চা বাগান, ফুলতলা চা বাগান, এলবিন টিলা চা বাগান, রাগনা বটুলী উচ্চ বিদ্যালয় ও ফুলতলা বাজার ভোট কেন্দ্র। তিনি ভোটের দিন ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে যেতেও বাঁধা দেয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেন। তাছাড়া বিজয়ী হওয়ার ব্যাপারে তাঁর মনোবল ও আস্থা দু’টোই রয়েছে।
এদিকে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ও ফুলতলা ইউনিয়নের সাবেক ৪ বারের চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ জানান, ফুলতলার মানুষ উন্নয়নের স্বার্থে নৌকায় ভোট দিয়ে তাকেই বিজয়ী করবে। মানুষ ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে উদগ্রিব হয়ে আছে। দলের বিদ্রোহী প্রার্থীর অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নিশ্চিত পরাজয় জেনে তিনি যত ধরনের মিথ্যা অভিযোগ আছে, তিনি সবক’টি প্রয়োগ করছেন। আওয়ামী লীগের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে এক যোগে কাজ করে যাচ্ছেন। কোন ধরনের বিশৃঙ্খলার আশঙ্কা তিনি করছেন না। মানুষ স্বতস্ফুর্তভাবে ভোট দিয়ে নৌকাকে বিজয়ী করবে বলে তিনি আশাবাদী।
ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সার্বিক আইন শৃঙ্খলা নিয়ে জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জালাল উদ্দিন জানান, একেকটি কেন্দ্রে একজন এসআই, ৪ জন এএসআই, ৬জন কনস্টেবল এবং ১৭ জন আনসার থাকবে। সেই সাথে বিজিবির টহল দল, র‌্যাব, ম্যাজিস্টেট্রের নেতৃত্বে স্ট্রাইকিং ফোর্স থাকবে। সুতরাং কোন ধরনের ঝুঁকির আশঙ্কা অমুলক।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার অসীম কুমার বনিক জানান, নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হচ্ছে। ভোটের দিন তা সবাই প্রত্যক্ষ করবে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) আবু ইউছুফ জানান, ভোটের আগের রাত থেকে নিরাপত্তা কি জিনিস সেটা ইউনিয়নের মানুষ প্রত্যক্ষ করবে। এখানে পেশি শক্তি প্রয়োগের কোন সুযোগ নেই।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: