সর্বশেষ আপডেট : ১৬ মিনিট ১৯ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কানাইঘাটে ৪৬ কোটি টাকা মূল্যের কথিত বিষ পোড়ালো প্রশাসন

কানাইঘাট প্রতিনিধি ::
কানাইঘাট থানায় প্রায় আড়াই বছর জব্দ থাকার পর আদালতের নির্দেশে ৪৬ কোটি টাকা মূল্যের কথিত কোবরা সাপের বিষ গত বুধবার পুড়িয়ে ধ্বংস করেছে পুলিশ।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ২৭ ফেব্রুয়ারী দায়রা জজ বিশেষ ট্রাইব্যুানাল-১, সিলেটে মামলাটি নিষ্পত্তি হওয়ায় আদালতের নির্দেশে থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল আহাদ, জব্দকৃত মালামালের ইনচার্জ থানার এস.আই মো. আবুল মনসুর মির্জা, এসআই স্বপন চন্দ্র সরকার, পিএসআই প্রদীপ রায়ের উপস্থিতিতে গত বুধবার বিকেল ৩টায় থানা প্রাঙ্গনে প্রকাশ্যে ৪৬ কোটি টাকা মূল্যের কোবরা সাপের বিষ পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।
উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২৪ জুলাই উপজেলার বড়চতুল ইউনিয়নের রাউতগ্রাম থেকে সিলেট র‌্যাব-৯ এর একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাউতগ্রামের সিফাতুর রহমানের বসত ঘর থেকে অভিযান চালিয়ে ৪৬ কোটি টাকা মূল্যের কথিত কোবরা সাপের বিষসহ সাপের বিষের ক্যাটালক বই ও আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার সহ ৭ জনকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা হল- কানাইঘাট উপজেলার রাউতগ্রামের মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে সিফাতুর রহমান (৫৬), বালাগঞ্জের মোবারকপুর গ্রামের মৃত উমেশ চন্দ্র আচার্যের ছেলে মতিলাল আচার্য (৬০), সিলেট নগরীর খাসদবীর বন্ধন সি ৩০ নম্বর বাসার মৃত আরজুমান আলীর ছেলে আবু হাসান (৬২), ফাজিল চিশত প্রান্তিক ৯ নম্বর বাসার মৃত সোলেমান খানের ছেলে আব্দুল মালিক (৬০), ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবা উপজেলার শাহপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল মতিনের ছেলে নজরুল ইসলাম নান্নু (৫০), মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার রামপাশা গ্রামের মৃত সিরাজুল ইসলামের পুত্র প্রাইভেট কার চালক শহীদুল ইসলাম অনুজ (৩৪), একই উপজেলার মাদেকপুর গ্রামের মৃত খন্দকার কলিমুল্লার পুত্র খন্দকার আব্দুল ওয়াহিদ (৬০)।
পরবর্তীতে ২৫ জুলাই র‌্যাব-৯ এর এস.আই জুলফিকার আলী বাদী হয়ে কানাইঘাট থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করেন। বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা নং-২২, ও অস্ত্র মামলা নং- ২৩, তাং- ২৫/০৭/২০১৫ইং। মামলা দু’টিতে গ্রেফতারকৃত আসামীরা ৯ মাস হাজতবাসের পর জামিনে মুক্তি পায়। পরে বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলাটি আদালতে বিচারাধীন চলাকালে রাসায়নিক পরীক্ষার মাধ্যমে উদ্ধারকৃত কাচের বৈয়ামে থাকা তরল পদার্থগুলো বিষ প্রমাণিত না হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত মামলাটি খারিজ করে আসামীদের বেখসুর খালাস প্রদান করেন। আদালতের নির্দেশে কথিত সাপের বিষ কানাইঘাট থানায় পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। অপর অস্ত্র মামলায় ৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করা হয়েছিল। তারা হলেন- কানাইঘাট উপজেলার রাউতগ্রামের মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে সিফাতুর রহমান (৫৬), সিলেট নগরীর খাসদবীর বন্ধন সি ৩০ নম্বর বাসার মৃত আরজুমান আলীর ছেলে আবু হাসান (৬২), ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবা উপজেলার শাহপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল মতিনের ছেলে নজরুল ইসলাম নান্নু (৫০)। অস্ত্র মামলাটি বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: