সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৫৭ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৯ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রাতের অন্ধকারে বাঘ আতঙ্কে গ্রামবাসী (ভিডিও)

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: কথায় বলে, ‘যেখানে বাঘের ভয়, সেখানে সন্ধ্যা নামে’। কিন্তু, এই কথাটি যে এভাবে মিলে যাবে তা কি আর ভারতের দেহরাদূনের বাসিন্দারা জানত।

তবে বাঘ নয়, সেখানে দেখা দিয়েছে একটি আস্ত চিতাবাঘ। ঘণ্টা ছয়েক বসতি এলাকায় দাপিয়ে বেড়িয়েছে চিতাটি। পরে নিজের মেজাজেই পাড়া দাপিয়ে এলাকা ছেড়ে চম্পট দিয়েছে।

 

দেহরাদূনের বিহার এলাকায় মঙ্গলবারের ঘটনা এটি। তখন সবে সন্ধ্যা নেমেছে। শাস্ত্রবুদ্ধে রোডের জনবসতি এলাকায় রোজকার মতোই রাস্তাঘাটে লোকজন হেঁটে যাচ্ছেন। আশেপাশের বহুতল ভবনের ছাদে ঘুরে বেড়াচ্ছেন অনেকে।

হঠাৎই তারা দেখেন, একটি একতলা বাড়ি থেকে পড়িমরি করে চিৎকার করতে করতে ছুটে বেরিয়ে আসছেন এক নারী। কী হয়েছে বোঝার আগেই দেখা গেল, ওই নারীর পেছন পেছন ছুটতে শুরু করেছেন রাস্তার লোকজনও।

পাশের ছাদের একজন ওই ঘটনাটি ক্যামেরাবন্দি করেছেন। ভিডিও-তে দেখা যাচ্ছে, একটি চিতাবাঘ অত্যন্ত দ্রুত গতিতে ওই নারীর বাড়ির দেয়াল টপকে এক লাফে ঘরে ঢুকে পড়ছে। চিতা বাঘটি বাড়ির ভিতর দেখে নারীর চোখ তখন কপালে উঠে গেছে! ভয়ে দিশেহারা হয়ে তাই ঘর ছেড়ে রাস্তায় ছুটতে শুরু করেছেন তিনি।

আতঙ্কিত স্থানীয় বাসিন্দারা এর পর বন অধিদফতরে খবর দেন। তবে দফতরের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছলেও আতঙ্ক কমেনি। স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই চিতাবাঘকে ঘুম পাড়িয়ে ধরে নিয়ে যাওয়ার মতো অভিজ্ঞ কর্মী তাদের সঙ্গে ছিল না।

ঘণ্টাখানেক পরে রাজাজি টাইগার রিজার্ভ থেকে এক জন পশুচিকিৎসক ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছান। কিন্তু, তিনি ঘুমপাড়ানি গুলি চালানোর আগেই এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় চিতাটি। তবে, চিতাটি পালালেও তার আতঙ্ক এখনও ছেড়ে যায়নি এলাকাবাসীর মন থেকে।

সবাই ভাবছে, চিতাটি আশেপাশেই কোথাও আছে। হানা দিতে পারে যে কোনো সময়। আনন্দবাজার।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: