সর্বশেষ আপডেট : ২৫ মিনিট ৫৯ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

চুনারুঘাটে বীরসৈনিকদের আলোকচিত্র সংগ্রহ অবিস্বরনীয় উদ্যোগ – উপজেলা চেয়ারম্যান

‘নয় মাসে দেশ স্বাধীন হয়। বীরসৈনিকরা ত্যাগ তিতিক্ষা ও সংগ্রামের মাধ্যমে বিজয় ছিনিয়ে আনেন। তাদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ নামে নতুন রাষ্ট্র সৃষ্টি হয়। সেই স্বাধীন রাষ্ট্রে বসবাস করছি আমরা।’ বলেছেন চুনারুঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের।

গতকাল রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) বিকাল ৪ ঘটিকায় হবিগঞ্জে চুনারুঘাট উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে ‘চুনারুঘাট ফটোগ্রাফিক সোসাইটি’ ও ‘পদক্ষেপ গণপাঠাগার’ কর্তৃক ২দিনব্যাপী আয়োজিত কেন্দ্রীয় শহীদমিনারে ‘প্রথম বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আলোকচিত্র প্রদর্শনীর’ সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বীরসৈনিকরা দেশের সম্পদ। জাতির সূর্য সন্তান।চুনারুঘাটে জীবিত-মৃত প্রায় পাঁচশত অধিক বীরসৈনিক রয়েছেন। এর মধ্যে জীবিত রয়েছেন প্রায় তিনশতের অধিক। বাকিরা মারা গেছেন। তাদের স্মৃতি সংরক্ষণ অপরিহার্য। “

জীবিত-মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংগৃহীত অালোকচিত্রের গুরুত্ব তুলে ধরে উপজেলা চেয়্যারম্যান আরো বলেন, ‘একটা সময় আসবে বীরসৈনিকরা দুনিয়াতে থাকবেন না। মারা যাবেন। অর্থাৎ পাওয়া যাবে না। তখন ভবিষ্যত প্রজন্মরা বলবে মুক্তিযোদ্ধা কি? নানা প্রশ্ন জাগরিত হবে। রক্তে মাংসের মানুষ না; রোবট বা অন্য কিছু! কৃষক, ছাত্র, শিক্ষক, জনতা, সরকারি চাকুরী, সেনা-নৌ-বিমান বাহিনী, ইপিআর পুলিশসহ সবাই দেশ রক্ষার্থে যুদ্ধ করেছিলেন। তখন এসব ছবির মাধ্যমে জানতে পারবেন। আমাদের সুপারম্যানরা ছিলেন রক্ত মাংসের মানুষ।”

তিনি বলেন, ‘সাবেক ইউএনও মাসহুদুল কবীর সাহেবের আমলে বীরসৈনিকদের ছবি সংগ্রহে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল কিন্তু ঐ রকম লোকবল না পাওয়ায় সেটি বাদ হয়ে যায়!’
১৫ মিনিটের বক্তব্যের শেষ প্রান্তে সিপিএসের সদস্যদের উদ্দেশ্য করে উপজেলা আওয়ামীলীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের বলেন, ‘তোমরা যে উদ্যোগ নিয়ে কাজ করেছো। সেটি বেশ ভাল উদ্যোগ। তোমাদেরকে সাদরে অভিবাদন জানাচ্ছি। তোমরা ছাত্র। বাড়ি বাড়ি গিয়ে ছবি সংগ্রহ করছো। সেগুলো প্রিন্ট করছো। প্রদর্শনী ব্যবস্থা করছো। সে ক্ষেত্রে অনেক টাকা খরচ হয়েছে । আমি ব্যক্তিগতভাবে তোমাদের ফটোগ্রাফিক সোসাইটি সভাপতির ( উৎপল) নিকট এ মাসের মধ্যে ২০/৩০ হাজার টাকা হস্তান্তর করবো। কাজটি চালিয়ে যাও। তোমাদেরকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।”

পদক্ষেপ গণপাঠাগারের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোহাম্মদ নুরুউদ্দিনের উপস্থাপনায় ও চুনারুঘাট ফটোগ্রাফিক সোসাইটি সভাপতি সোরাইজাম উৎপল সিংহের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রাখেন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল গফফার, সদ্য বিদায়ী সাবেক কমান্ডার আব্দুশ সামাদ, লংলা আধুনিক ডিগ্রি কলেজের সহকারি অধ্যাপক ও গণপাঠাগারের সাবেক সভাপতি মাজহারুল ইসলাম রুবেল, চুনারুঘাট রিপোর্টার্স ইউনিটি সাধারণ সম্পাদক ও যুগান্তর প্রতিনিধি আবুল কালাম আজাদ, চুনারুঘাট থানার এস আই কবীর।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের অন্যতম সদস্য আতাউর রহমান, হুসাইন সায়েম, সুমন আহমদ বিজয় হাসানসহ সদয় দেবনাথ, সিতাপ পাল প্রমুখ ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে রাখেন চুনারুঘাট ফটোগ্রাফিক সোসাইটি সাধারণ সম্পাদক এইচ আর আফজল । সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতি বক্তব্যে মধ্যে দিয়ে প্রথম অালোকচিত্র প্রদর্শনী সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

এদিকে গত ২৬ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত চুনারুঘাটে ১০ টি ইউনিয়ন ও পৌরসভাসহ ২৩০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আলোকচিত্র সংগ্রহে কাজে নিয়োজিত ৬ জনকে ‘আলোকচিত্র যোদ্ধা’ হিসেবে প্রধান অতিথির কাছ থেকে সনদপত্র নেন চুনারুঘাট ফটোগ্রাফিক সোসাইটির সভাপতি সৌরাইজাম উৎপল সিংহ, সহ-সাধারণ সম্পাদক আল মোছাফ্ফা নিপু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক অপুর্ব কুমার সিংহ, দপ্তর সম্পাদক রুবেল তালুকদার, নির্বাহী সদস্য রাকিব আহমদ, ফটোগ্রাফিক সোসাইটি সদস্য পিয়াস রঞ্জন ধর।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: