সর্বশেষ আপডেট : ১৬ মিনিট ১০ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিপিএল এখন সিলেটে

স্পোর্টস রিপোর্টার:: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পঞ্চম আসর মাঠে গড়াতে আর মাত্র দু’দিন বাকি। শনিবারই সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পর্দা উঠবে জমজমাট বিপিএলে ধুম-ধাড়াক্কা চার-ছক্কার লড়াইয়ের। উদ্বোধনী দিনই মাঠে নামছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডাইনামাইটস এবং প্রথমবারেরমত স্বাগতিক হওয়া সিলেট সিক্সার্স। একই দিন সন্ধ্যায় মাঠে নামবে গতবারের রানার্সআপ রাজশাহী কিংস এবং দেশের অন্যতম শিল্পগ্রুপ বসুন্ধরার মালিকানাধীন রংপুর রাইডার্স।

বিপিএলের মাঠের লড়াই শুরু হতে ৪৮ ঘণ্টাও বাকি নেই, বলা যায়। এরই মধ্যে চিটাগাং ভাইকিংস বাদে মোটামুটি বাকি সব দলই চলে গিয়েছে সিলেটে। এবারের বিপিএলে মোটা সাতটি দল লড়াই করবে। যদিও দল হওয়ার কথা ছিল মোট ৮টি; কিন্তু পাওনা পরিশোধ করতে না পারায় আগেই পঞ্চম আসর থেকে বাদ পড়েছে বরিশাল বুলস।
অনেক আগে থেকেই দল গোচানোর কাজ শুরু হয়েছিল বিপিএল ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর। দেশি-বিদেশি খেলোয়াড় দিয়ে নিজ নিজ দলকে শক্তিশালী করার দিকেই মনযোগ দিয়েছিল সবাই। এরই মধ্যে আবার ছিল জাতীয় দলের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর। যদিও ফ্রাঞ্চাইজিগুলো জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের জন্য অপেক্ষা করেনি।

বিপিএলের মাঠের প্রস্তুতি পুরোদমে শুরু করেছে ২৫ অক্টোবর থেকে। বিপিএলের অনুশীলনে সবার আগে মাঠে নেমেছিল রংপুর রাইডার্স। প্রথম দিন থেকেই অসি কোচ টম মুডির অধীনের কঠোর প্রস্তুতি চালিয়ে যেতে শুরু করে রংপুরের রাইডাররা। দলটির বিদেশি খেলোয়াড়রাও এসে পৌঁছায় অন্য দলগুলোর আগে।

এরই মধ্যে রংপুর রাইডার্স গত ৩০ অক্টোবর বিকেএসপিতে নিজেদের মধ্যে একটা প্রস্তুতি ম্যাচও খেলে ফেলে। পরর দিনই, অথ্যাৎ ৩১ অক্টোবর সিলেটের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করে রংপুর। আর আজ (বৃহস্পতিবার) সিলেটে দলের সাথে সরাসরি যোগ দিয়েছেন শ্রীলংকান স্পিডস্টার লাসিথ মালিঙ্গা।

২৫ তারিখ থেকে অনুশীলন শুরু করেছিল খুলনা টাইটান্সও। তবে তাদের সঙ্গে শুরু থেকে ছিলেন না বিদেশি কোচ মাহেলা জয়বর্ধনে এবং অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এমনকি কোনো বড় কোন তারকাও শুরু থেকে ছিলেন না। এরপর চারদিন তারা অনুশীলন করে বিসিবির একাডেমি মাঠে। এরপর ২৯ অক্টোবর টাইটান্সরাও চলে যায় সিলেটে।

তবে অনুশীলনে কিছুটা শিথিল মনে হয়েছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ঢাকা, রানারআপ রাজশাহী এবং চিটাগাং ভাইকিংসকে। তারা অনুশীলন শুরু করে অনেক পরে, অথ্যাৎ, ২৯ অক্টোবর। ওই দিনই অনুশীলনে শুরু করে রাজশাহী কিংস এবং চিটাগাং ভাইকিংসও।

অনুশীলন শুরুর পরদিনই, অর্থ্যাৎ ৩০ অক্টোবর রাতে সিলেটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয় রাজশাহী কিংস। আর ঢাকা ডাইনামাইট গতকাল (বুধবার) রাতে ঢাকা ত্যাগ করেন। যদিও চিটাগাং ভাইকিংস সিলেটে অনুশীলনের কম সুবিধা পাওয়ার কথা বলে এখনও রয়ে গেছে ঢাকায়। তারা বিসিবি একাডেমি মাঠেই অনুশীলন করছে এখনও। আগামী ৫ তারিখ তাদের সিলেট যাবার কথা রয়েছে। ৭ নভেম্বরের আগে মাঠে নামছে না চিটাগাং।

এদিকে বাইরেরর দলগুলোর মধ্যে সবার আগে সিলেট পৌঁছেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ২৫শে অক্টোবরই তারা তারা সিলেট পৌঁছে যায়। ২৬ তারিখ থেকে সিলেটেই পুরোদমে অনুশীলন শুরু করে ভিক্টোরিয়ান্সরা।

এক মৌসুম পর নতুন নামে আসা সিলেট সিক্সার্স প্রথম থেকেই ঘরের মাঠে অনুশীলনে ব্যস্ত ছিল। এরই মধ্যে তারা একটি বোলার হান্ট প্রোগ্রাম আয়োজন করে ফেলেছে। পাকিস্তানি পেস লিজেন্ড ওয়াকার ইউনুসকে এনে সেই প্রোগ্রামের শেষ বাছাই পর্ব আয়োজন করেছে। ঘরের মাঠে প্রস্তুতি নেয়ার কারণে বোঝাই যাচ্ছে, একটা বাড়তি সুবিধা পাবে সিক্সার্সরা।

প্রতিটি দলেরই এখনও সব বিদেশি খেলোয়াড় এসে পৌঁছায়নি। ২৮ অক্টোবর থেকে মূলতঃ দলগুলির বিদেশি ক্রিকেটার আসতে শুরু করে। এখনও আসা অব্যাহত রয়েছে।

প্রথমবারে মত বিপিএলের আসর নিয়ে সিলেটবাসীর মধ্যে কাজ করছে তুমুল উৎসাহ-উদ্দীপনা। পুরো সিলেটকেই এখন বলা যায় বিপিএলের শহর। এক চিটাগাং ভাইকিংস বাদ দিয়ে সবগুলো ফ্রাঞ্চাইজিই এখন রয়েছে সিলেটে। এরই মধ্যে টিকেট কেনা নিয়ে হয়ে গেছে লংকাকাণ্ড। তবুও সিলেটবাসীর প্রত্যাশা, অসাধারণ একটা বিপিএল তারা দেখবে এবং তাদের দল ভাল করবে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: